বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘সৌরভ-কোহলি বিতর্কের আগুনে নতুন করে ঘি ঢেলেছেন চেতন শর্মা’, দাবি আকাশ চোপড়ার
চেতন শর্মা এবং বিরাট কোহলি।
চেতন শর্মা এবং বিরাট কোহলি।

‘সৌরভ-কোহলি বিতর্কের আগুনে নতুন করে ঘি ঢেলেছেন চেতন শর্মা’, দাবি আকাশ চোপড়ার

  • দক্ষিণ আফ্রিকায় সিরিজের জন্য ওডিআই স্কোয়াড ঘোষণার দিনই চেতন শর্মা বিসিসিআই প্রেসিডেন্টের বক্তব্যকে সমর্থন করে বলে দেন, কোহলিকে টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক হিসেবে পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছিল। কিন্তু সিদ্ধান্তে অনড় ছিলেন কোহলি নিজেই।

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং বিরাট কোহলির বক্তব্যের মাঝে পার্থক্যকে ঘিরে যে আগুন ভারতীয় ক্রিকেটে জ্বলছিল, তাতে নতুন করে চেতন শর্মা ঘি ঢেলেছেন বলে দাবি করেছে ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার আকাশ চোপড়ার। আর এতে পরিস্থিতি আরও জটিল হবে বলেই মনে করেন আকাশ চোপড়া।

দক্ষিণ আফ্রিকায় সিরিজের জন্য ওডিআই স্কোয়াড ঘোষণার দিনই চেতন শর্মা বিসিসিআই প্রেসিডেন্টের বক্তব্যকে সমর্থন করে বলে দেন, কোহলিকে টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক হিসেবে পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছিল। কিন্তু সিদ্ধান্তে অনড় ছিলেন কোহলি নিজেই। সৌরভও আগে এই একই কথা বলেছিলেন। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা উড়ে যাওয়ার আগে কোহলি পুরো উল্টো কথা বলেছিলেন সাংবাদিকদের। তিনি বলেছিলেন, টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব না ছাড়ার বিষয়ে তাঁকে কেউ কোনও রকম অনুরোধ করেননি।

আকাশ চোপড়া তাঁর ইউটিউব চ্যানেলে দাবি করেছেন, ‘এমনিতেই এই নিয়ে আগুন জ্বলছিল। তাতে আরও কিছুটা ঘি যোগ হল। কারণ বিসিসিআই-এর তরফে চেতন শর্মা, যিনি প্রধান নির্বাচক, তিনি এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।’

আকাশ চোপড়া আরও দাবি করেছেন, ‘চেতন শর্মা স্পষ্ট করে বলে দিয়েছেন, আমরা সকলেই বিরাটকে টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব ছাড়তে বারণ করেছিলাম। বলেছিলাম নেতৃত্ব ছাড়ার জন্য এটা সঠিক সময় নয়, বিশ্বকাপে এর প্রভাব পড়বে। কিন্তু কোহলি রাজি হননি। নির্বাচক কমিটির বৈঠকে উপস্থিত সকলেই - নির্বাচক, বিসিসিআই কর্মকর্তা - বিরাট কোহলিকে পদত্যাগ না করার অনুরোধ করেছিলেন। এটি ছিল চেতন শর্মার উদ্ধৃতি। তবে ভারত অধিনায়ক বলেছিলেন যে তিনি পদত্যাগের ইচ্ছে প্রকাশ করার পর কেউ তাঁকে কোনও অনুরোধ করেননি। এবং সকলে বলেছিল, এটি খুবই ভালো পদক্ষেপ।’

আকাশ চোপড়া এর সঙ্গেই যোগ করেছেন, ‘চেতন শর্মার বক্তব্যের পরে পুরো বিষয়টি মোটেও মিটবে না। বিরাট কোহলির তরফে পাল্টা গুলিবর্ষণ হতে পারে। কারণ এখনও পর্যন্ত এ রকমটাই ঘটে চলেছে - একজন ব্যক্তি কিছু বলছেন এবং অন্যজন সেটি খণ্ডন করছেন। এটা একেবারেই ভালো বিষয় নয়।’ আকাশ চোপড়ার দাবি অনুযায়ী, এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভারতীয় ক্রিকেটে কাদা ছোড়াছুড়ি বাড়ার সম্ভাবনা বেশি।

বন্ধ করুন