বাংলা নিউজ > ময়দান > Abu Dhabi T10: বড় মঞ্চের সুপারস্টার! ব্যাট হাতে তাণ্ডব চালিয়ে দলকে ফাইনালে তুললেন আন্দ্রে রাসেল

Abu Dhabi T10: বড় মঞ্চের সুপারস্টার! ব্যাট হাতে তাণ্ডব চালিয়ে দলকে ফাইনালে তুললেন আন্দ্রে রাসেল

নিকোলাস পুরান ও আন্দ্রে রাসেল। ছবি- আবু ধাবি টি-১০।

Deccan Gladiators vs Samp Army Abu Dhabi T10: সারা টুর্নামেন্টে ব্যর্থ, তবে দরকারের সময় জ্বলে উঠল আন্দ্রে রাসেলের ব্যাট, জলে গেল মইন আলির ধ্বংসাত্মক অর্ধশতরান।

আন্দ্রে রাসেলকে কেন বড় মঞ্চের প্লেয়ার হিসেবে বিবেচনা করা হয়, প্রমাণ মিলল আরও একবার। চলতি আবু ধাবি টি-১০ লিগে মোটেও পরিচিত ছন্দে ছিলেন না ক্যারিবিয়ান অল-রাউন্ডার। তবে কোয়ালিফায়ারের মতো মহা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠলেন দ্রে রাস। ধ্বংসাত্মক হাফ-সেঞ্চুরিতে ডেকান গ্ল্যাডিয়েটর্সকে ফাইনালে তুললেন রাসেল।

শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে আবু ধাবি টি-১০ লিগের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে স্যাম্প আর্মির মুখোমুখি হয় ডেকান গ্ল্যাডিয়েটর্স। টস হেরে শুরুতে ব্যাট করতে নামে স্যাম্প আর্মি। ক্যাপ্টেন মইন আলির দুর্দান্ত অর্ধশতরানে ভর করে তারা নির্ধারিত ১০ ওভারে ২ উইকেটের বিনিময়ে ১১৯ রানের বড়সড় ইনিংস গড়ে তোলে।

মইন ৪টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে ২২ বলে ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। তিনি শেষেমেশ ৬টি চার ও ৬টি ছক্কার সাহায্যে ২৯ বলে ৭৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। এছাড়া জনসন চার্লস ৭, শিমরন হেতমায়ের ১০ ও ডেভিড মিলার অপরাজিত ১৬ রানের যোগদান রাখেন।

ডেকানের হয়ে ১টি করে উইকেট নেন জাহির খান ও তাবরাইজ শামসি। আন্দ্রে রাসেল ১ ওভার বল করে ২২ রান খরচ করেন। তবে কোনও উইকেট পাননি তিনি।

আরও পড়ুন:- Abu Dhabi T10: এখনও ফুরিয়ে যাননি, মাত্র ১৯ বলে হাফ-সেঞ্চুরি করে বোঝালেন প্রাক্তন KKR দলনায়ক

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ডেকান গ্ল্যাডিয়েটর্স ৯.৪ ওভারে ২ উইকেটের বিনিময়ে ১২১ রান তুলে ম্যাচ জিতে যায়। মাত্র ২ বল বাকি থাকতে ৮ উইকেটে ম্যাচ জিতে ফাইনালের টিকিট পকেটে পোরে তারা।

আন্দ্রে রাসেল ওপেন করতে নেমে ৪টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে ২৭ বলে ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। তিনি ৭টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে ৩২ বলে ৬৩ রান করে আউট হন। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, এর আগে টুর্নামেন্টের ৬টি ম্যাচে ব্যাট করতে নেমে রাসেল সংগ্রহ করেন যথাক্রমে ৩, ০, অপরাজিত ১০, ৪, ৪ ও ০ রান। অর্থাৎ, একেবারে কোয়ালিফায়ারে গিয়ে নিজের ফর্ম খুঁজে পান ক্যারিবিয়ান তারকা।

আরও পড়ুন:- ৬,৬,৬,০,৬,৬: এক ওভারে ৫টি ছক্কায় শাকিবকে চোখে সর্ষে ফুল দেখালেন পুরান

এছাড়া টম কোহলার-ক্যাডমোর ১৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন। নিকোলাস পুরান ৫টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ১২ বলে ৩৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। ওডিন স্মিথ নট-আউট থাকেন ব্যক্তিগত ২ রানে।

করিম জানাত ও ডোয়েন প্রিটোরিয়াস ১টি করে উইকেট দখল করেন। ম্যাচের সেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার হাতে তোলেন আন্দ্রে রাসেল।

বন্ধ করুন