বাড়ি > ময়দান > অস্ট্রেলিয়ায় Covid-19 লড়াইয়ে অংশ নেওয়া ভারতীয় ছাত্রীকে কুর্নিশ গিলক্রিস্টের
শ্যারন ভার্গেস ও অ্যাডাম গিলক্রিস্ট।
শ্যারন ভার্গেস ও অ্যাডাম গিলক্রিস্ট।

অস্ট্রেলিয়ায় Covid-19 লড়াইয়ে অংশ নেওয়া ভারতীয় ছাত্রীকে কুর্নিশ গিলক্রিস্টের

  • গত বছরই ওলংগং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নার্সিংয়ে গ্যাজুয়েট হন কেরলের মেয়ে।

করোনা মহামারির সংকটময় পরিস্থিতিতে নিঃস্বার্থ সেবার জন্য প্রশংসিত হলেন শ্যারন ভার্গেস। ২৩ বছর বয়সী ভারতীয় নার্সকে কুর্নিশ জানান প্রাক্তন অজি উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান অ্যাডাম গিলক্রিস্ট।

কেরলের কোট্টায়াম জেলার কুরুপ্পানথুরার মেয়ে শ্যারন ২০১৬ সালে পড়াশোনার জন্য অস্ট্রেলিয়ায় যান। তিন বছর পরে তিনি ওলংগং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নার্সিংয়ে গ্র্যাজুয়েট হন। সেই থেকেই তিনি গ্রিনহিল ম্যানর বৃদ্ধাশ্রমের দেখাশোনা করেন।

করোনা ভাইরাসে যেহেতু সবথেকে বিপদ বয়স্কদের, তাই গত কয়েকমাসে শ্যারনের দায়িত্ব বেড়ে যায় কয়েকগুন। কেলরের মেয়ে অতি সাবধানে আবাসিকদের দূরে সরিয়ে রাখেন ভাইরাস সংক্রমণ থেকে।

গিলক্রিস্ট সরকারি সংস্থার তরফে একটি ভিডিও বার্তায় শ্যারনের এমন মহৎ কাজের প্রশংসা করেন। ভিডিওটি প্রকাশ করে অস্ট্রেলিয়ান ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট কমিশন (অস্ট্রেড)।

ভিডিও বার্তায় গিলক্রিস্ট বলেন, 'অস্ট্রেলিয়ায় পড়াশোনা করা একজন ভারতীয় ছাত্রী শ্যারন ভার্গেসের সক্রিয় অবদানের কথা শুনে আমি ভীষন আনন্দিত। শ্যারন ওলংগং বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী। Covid-19'এর কঠিন সময়ে ও বৃদ্ধাশ্রম কর্মী হিসেবে সেবা করে গিয়েছে। তোমার নিঃস্বার্থ কাজের জন্য তোমাকে অভিনন্দন শ্যারন। পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার মানুষকে ধন্যবাদও বলতে চাই, তাদের সঙ্গে দীর্ঘ সাড়ে তিন বছর এদেশে কাটানো সময়টা তুমি উপভোগ করেছ।'

বন্ধ করুন