বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘আফ্রিদি আমাকে নেতৃত্ব থেকে সরাতে চেয়েছিল’, বিস্ফোরক অভিযোগ ইউনিস খানের
আফ্রিদি নাকি ইউনিস খানকে নেতৃত্ব থেকে সরাতে চেয়েছিলেন।
আফ্রিদি নাকি ইউনিস খানকে নেতৃত্ব থেকে সরাতে চেয়েছিলেন।

‘আফ্রিদি আমাকে নেতৃত্ব থেকে সরাতে চেয়েছিল’, বিস্ফোরক অভিযোগ ইউনিস খানের

  • ২০০৯ সালে ইউনিস খানের নেতৃত্বেই আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতেছিল পাকিস্তান।

পাকিস্তান ক্রিকেটে কোন না কোনও বিষয় নিয়ে সর্বক্ষণই কিছু না কিছু বিতর্ক তৈরি হয়েই চলেছে। এ বার শহিদ আফ্রিদির বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করে নতুন বিতর্কের জন্ম দিলেন ইউনিস খান। তিনি দাবি করেছেন, আফ্রিদি নিজে অধিনায়ক হতে চেয়েছিলেন। তাই ইউনিস খানকে অধিনায়কত্ব থেকে সরাতে চেয়েছিলেন।

আসলে ২০০৯ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সময় থেকেই পাক শিবিরে তীব্র গুঞ্জন শুরু হয়েছিল, ইউনিস খানকে নাকি পছন্দ করছেন না পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। তাঁর ব্যবহার, তাঁর নেতৃত্ব দেওয়ার স্টাইল নাকি পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের একেবারেই পছন্দ ছিল না। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে ইউনিস খান দাবি করেছেন, আফ্রিদি এবং অক-দু'জন সিনিয়র প্লেয়ার, যাঁরা অধিনায়ক হতে চাইতেন, তাঁরা ছাড়া বাকি কোনও প্লেয়ারেরই ইউনিস খানকে নিয়ে অন্তত কোনও সমস্যা ছিল না।

প্রাক্তন পাক অধিনায়ক স্পষ্ট ভাষায় বলে দিয়েছেন, ‘যদি প্লেয়ারদের আমাকে নিয়ে কোনও সমস্যা সত্যি থাকত, তা হলে ওরা আমাকে বলতে পারত। ওরা দাবি করেছিল, আমাকে অধিনায়কের পদ থেকে ওরা সরাতে চায়নি। তবে আমার দৃষ্টিভঙ্গি বা ভাবনা বদলানোর জন্য ক্রিকেট বোর্ড আমার সঙ্গে কথা বলেছিল। তা হলে কেন প্লেয়াররা পিসিবি চেয়ারম্যান ইজাজ বাটের সঙ্গে দেখা করে এবং একজন সিনিয়র প্লেয়ার, অর্থাৎ আফ্রিদি অধিনায়ক বদলানোর কথা বলেছিল। আমার মনে হয়, ওর অধিনায়ক হওয়ার ইচ্ছে থেকেই এই কথা বলেছিল।’ ২০০৯ সালে ইউনিস খানের নেতৃত্বেই আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতেছিল পাকিস্তান।

বন্ধ করুন