বাংলা নিউজ > ময়দান > টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সরে যেতে পারে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে
ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ করা নিয়ে ধোঁয়াশা।
ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ করা নিয়ে ধোঁয়াশা।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সরে যেতে পারে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে

  • নভেম্বরে করোনার তৃতীয় ঢেউ ভারতে আছড়ে পড়তে পারে। দ্বিতীয় ঢেউ এ দেশে আছড়ে পড়ার পরই শোচনীয় পরিণতি হচ্ছে লক্ষ-লক্ষ মানুষের। তৃতীয় ঢেউ যে কতোটা ভয়ানক হবে, সেই আতঙ্ক ইতিমধ্যেই গ্রাস করেছে সকলকে।

আইপিএল বাতিল হয়ে যাওয়াটা বিসিসিআই-এর কাছে বিশাল বড় একটা ধাক্কা। তাদের পুরো পরিকল্পনাটাই যেন মুখ থুবড়ে পড়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই এর পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারতে আয়োজন করা নিয়ে প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, সম্ভবত,  সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করা হবে।

জানা গিয়েছে, নভেম্বরে করোনার তৃতীয় ঢেউ ভারতে আছড়ে পড়তে পারে। দ্বিতীয় ঢেউ এ দেশে আছড়ে পড়ার পরই শোচনীয় পরিণতি হচ্ছে লক্ষ-লক্ষ মানুষের। তৃতীয় ঢেউ যে কতোটা ভয়ানক হবে, সেই আতঙ্ক ইতিমধ্যেই গ্রাস করেছে সকলকে। 

করোনা কতটা ভয়ানক তার প্রমাণ প্রতিটা দিন পাচ্ছে ভারতবাসী। সাধারণ মানুষ তো মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেই। কিন্তু আইপিএলেও জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করে, সমস্ত রকম সাবধানতা অবলম্বন করেও, করোনা আটকানো যায়নি।

আইপিএল থেকে শিক্ষা নিয়েছে পিএসএল। তারা আগে থেকেই সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে টুর্নামেন্ট সরিয়ে নেওয়ার ভাবনাচিন্তা শুরু করে দিয়েছে। মার্চ মাসে অবশ্য অর্ধেক টুর্নামেন্ট হওয়ার পর করোনার জন্যই পিএসএলও বাতিল করে দিতে হয়েছিল।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিষয়ে এখনও হাতে সময় রয়েছে। তবে ১৬টি দেশ এই বিশ্বকাপে অংশ নেবে। অক্টোবরের শেষের শুরু হবে টুর্নামেন্ট। ফাইনাল ১৪ নভেম্বর। আদৌ কী করোনা পরিস্থিতি ভারত ১৬টি দেশকে সামলাতে পারবে? যেখানে ৮টি দল নিয়ে আইপিএলের আয়োজন করতে গিয়ে, সেটা শেষ পর্যন্ত ভেস্তেই গেল!

২৬ এপ্রিল আইসিসি-র একটি দলের ভারতে আসার কথা ছিল জৈব সুরক্ষা বলয়, নিরাপত্তা, ভেন্যু পরিদর্শন, এ সবের জন্য। কিন্তু ভারতে করোনা পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে, ভারতে সঙ্গে সাময়িক ভাবে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীএ বিমান যোগাযোগ বন্ধ রেখেছে। যার জেরে আইসিসি-র দলটি  ভারতে আসতে পারেনি।

এখন অবশ্য পুরো পরিস্থিতি বদলে গিয়েছে। করোনা পরিস্থিতিতে বিশ্বকাপ করার জন্য ভারত কতটা সুরক্ষিত, তা নিয়েই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। সব পরিস্থিতি দেখে বিশেষজ্ঞদের অনেকেরই ধারণা, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপটি সম্ভবত সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতেই হবে।

বন্ধ করুন