বাংলা নিউজ > ময়দান > সকালে কোহলির সিদ্ধান্তের কথা জেনেও, বিনা বাক্য ব্যায়ে সেটা মেনে নিয়েছিলেন সৌরভ-জয় শাহরা

সকালে কোহলির সিদ্ধান্তের কথা জেনেও, বিনা বাক্য ব্যায়ে সেটা মেনে নিয়েছিলেন সৌরভ-জয় শাহরা

কোহলির সিদ্ধান্ত এক কথায় মেনে নেয় বোর্ড কর্তারা।

শনিবার সকালেই নাকি ফোনে বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং সচিব জয় শাহর সঙ্গে কথা বলেছিলেন কোহলি। ফোনেই তাঁদেরকে নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানান। কোহলির সিদ্ধান্ত শোনার পরে নাকি তাঁকে তাঁর সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার জন্য কোনও রকম জোর করা হয়নি বিসিসিআইয়ের তরফে।

শুভব্রত মুখার্জি: সম্প্রতি ভারতের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার বিরাট কোহলির সঙ্গে বোর্ডের সম্পর্কে যে কি চিড় ধরেছিল, তা সকলের কাছেই পরিষ্কার! আর সেই চিড় ধরার কারণেই কি টেস্ট দলের নেতৃত্বও ছেড়ে দিলেন বিরাট? নানা মহল থেকে এমন নানা মন্তব্য ভেসে আসছে। তবে বিরাটের এই সিদ্ধান্তের জন্য কি তৈরিই ছিল সৌরভের নেতৃত্বাধীন বোর্ড? 

শনিবার সন্ধ্য়ে নাগাদ বিরাট কোহলি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে টেস্ট অধিনায়কত্ব ছাড়ার কথা ঘোষণা করার কার্যত ৯ মিনিটের মধ্যেই বিসিসিআইয়ের তরফে পাল্টা টুইট করে তাঁকে ধন্যবাদ জানানো হয়। আর তার পরেই প্রশ্ন উঠে যায়. তাহলে কি বিরাটের এই সিদ্ধান্তকে বিনা বাক্যব্যয়ে মেনে নিয়েছে বিসিসিআই?

প্রোটিয়াভূমে টেস্ট সিরিজ হারের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই বিরাটের এই সিদ্ধান্তে বিস্মিত তাঁর ভক্তরা। শনিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন কোহলি। কোহলির সিদ্ধান্তের পরপরেই বোর্ডের প্রতিক্রিয়া যেন প্রমাণ করে দেয়, কোহলির এই সিদ্ধান্তের জন্য তারা প্রস্তুত ছিল। মাত্র ৯ মিনিট সময়ের ব্যবধানে বোর্ডের পাল্টা টুইট করে বিরাটকে ধন্যবাদ জানানো যেন সে কথাই প্রমাণ করে দিচ্ছে।

এর পাশাপাশি বিসিসিআই সূত্রের খবর, শনিবার সকালেই ফোনে বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং সচিব জয় শাহর সঙ্গে কথা বলেছিলেন কোহলি। ফোনেই তাঁদেরকে নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানান। কোহলির সিদ্ধান্ত শোনার পরে নাকি তাঁকে তাঁর সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার জন্য কোনও রকম জোর করা হয়নি বিসিসিআইয়ের তরফে। 

প্রসঙ্গত গত চার মাসে একের পর এক অধিনায়কত্ব গেল কোহলির। প্রথমে সেপ্টেম্বরে টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব থেকে নিজে সরে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করেছিলেন। যদিও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কোহলিই ভারতকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। তার পর ওডিআই নেতৃত্ব তাঁর থেকে কেড়ে নেয় বিসিসিআই। আর সব শেষে টেস্টের নেতৃত্ব নিজেই ছাড়লেন কোহলি।

এখন অবশ্য ভারতীয় ক্রিকেটে একটাই প্রশ্ন, কোহলির পরবর্তী টেস্ট দলের অধিনায়ক কে হবেন? এই তালিকায় উঠে আসছে অনেক নামই। রোহিত শর্মা, কেএল রাহুল, ঋষভ পন্তদের নাম ভেসে আসছে। এখন দেখার, কার হাতে টেস্টে দলের দায়িত্ব তুলে দেয় বিসিসিআই! তবে অনেকেই রোহিত শর্মাকে এগিয়ে রাখছেন। এই মুহূর্তে টি-টোয়েন্টি এবং ওডিআই দলের অধিনায়কও রোহিতই।

বন্ধ করুন