বাংলা নিউজ > ময়দান > চ্যাম্পিয়ন করার পরেই মুম্বইকে বিদায় জানিয়ে এটিকে মোহনবাগানে যোগ দিলেন অমরিন্দর
অমরিন্দর সিং।
অমরিন্দর সিং।

চ্যাম্পিয়ন করার পরেই মুম্বইকে বিদায় জানিয়ে এটিকে মোহনবাগানে যোগ দিলেন অমরিন্দর

  • পাঁচ বছরের জন্য এটিকে মোহনবাগানে সই করলেন অমরিন্দর সিং। গত বছর তাঁর অধিনায়কত্বেই আইএসএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মুম্বই সিটি এফসি।

পাঁচ বছরের অনেক স্মৃতি। মুম্বই সিটি এফসি-র রঙিন সেই সব দিনগুলিকে স্মৃতির খাতায় বন্দি করে কলকাতা পাড়ি দিলেন অমরিন্দর সিং। সোমবারই অমরিন্দরের সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়েছে মুম্বইয়ের। আর সোমবারই এটিকে মোহনবাগানের তরফে অমরিন্দরের দলে যোগ দেওয়ার খবর সরকারি ভাবে ঘোষণা করা হল। পাঁচ বছরের জন্য অমরিন্দরের সঙ্গে চুক্তি করল এটিকে মোহনবাগান।

বেঙ্গালুরু এফসি থেকে লোনে ২০১৬ সালের ৭ সেপ্টেম্বর মুম্বইয়ে এসেছিলেন ভারতের তারকা গোলকিপার। এর পর টানা পাঁচ বছর মুম্বইয়েই জার্সিতেই আইএসএল খেলেছেন। ২০১৮ সালে মুম্বই এফসি-র সঙ্গে আরও তিন বছরের চুক্তি করেছিলেন অমরিন্দর। সেই চুক্তিই শেষ হল সোমবার।

মুম্বই সিটি-র তরফে অমরিন্দরের সাক্ষাৎকারের একটি ভিডিয়ো শেয়ার করা হয়েছে। সেখানে তারকা গোলকিপারকে আগেবপ্রবণ হয়ে বলতে শোনা গিয়েছেন, ‘শেষ পাঁচ বছর আমার জীবনের সেরা সময় কাটিয়েছি। এই মুহূর্তগুলিকে আমি কখনও ভুলতে পারব না। প্রথম বছর আমি যখন মুম্বইয়ে আসি, তখন দিয়েগো ফোরলানদের মতো ফুটবলাররা দলে ছিলেন। আমি একটু ভয়ে ভয়েই থাকতাম। তবে দলের ভিতরের পরিবেশ খুবই ভাল ছিল। আস্তে আস্তে এই দলের সঙ্গে মিশে যাই। মুম্বই সিটি থেকে আমি অনেক কিছু শিখেছি। ভাল ভাল প্লেয়ার, কোচেদের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি।’

এর সঙ্গেই তিনি যোগ করেছেন, ‘এই ক্লাবটা আমার পরিবারের মতো। আর পরিবারকে বিদায় জানানোটা সব সময়েই কঠিন। তবে আমি গর্বিত, মুম্বইকে প্রথম বার চ্যাম্পিয়ন করার পরেই আমি এই পরিবার ছেড়ে যাচ্ছি।’ এ দিকে দেশের এক নম্বর গোলকিপারকে সই করিয়ে দলের শক্তি আরও বাড়াল এটিকে মোহনবান। এর আগেও ২০১৫-'১৬-তে এটিকে-তে হাবাসের কোচিংয়ে খেলেছেন অমরিন্দর। ফের তাঁকে কলকাতা দলের জার্সিতে হাবাসের কোচিংয়েই খেলতে দেখা যাবে।

অমরিন্দর বলেছেন, ‘কলকাতার দলে সই করেছি মূলত তিনটি কারণে। এটিকে মোহনবাগানের বিশাল সদস্য সমর্থকদের সমর্থন পাওয়া যাবে, দলের প্রধান কর্ণধার সঞ্জীব গোয়েঙ্কার ফুটবল দর্শন এবং এই শহরের গৌরবময় ফুটবল ইতিহাস রয়েছে, এরই সঙ্গে হাবাসের কোচিংয়ে খেলার সুযোগ পাব। হাবাসের ফুটবল ভাবনা আমাকে টানে। সব থেকে বড় কথা ফুটবলারদের থেকে উনি সেরা খেলাটা বের করে আনতে পারেন। সেই দলের সদস্য হতে পেরে খুব ভাল লাগছে।’

বন্ধ করুন