বাংলা নিউজ > ময়দান > ব্যাটের পর বল, পাঁচ উইকেট নিয়ে বাংলার আশা জিইয়ে রাখলেন শাহবাজ
শাহবাজ আহমেদ।

ব্যাটের পর বল, পাঁচ উইকেট নিয়ে বাংলার আশা জিইয়ে রাখলেন শাহবাজ

  • শাহবাজের আগুনে বোলিংয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে মধ্যপ্রদেশ ২৮১ রানে অল আউট হয়ে যায়। প্রথম ইনিংসে ৬৮ রানে এগিয়ে থাকার সুবাদে ৩৪৯ রানের লিড পায় মধ্যপ্রদেশ। জিততে হলে বাংলাকে করতে হবে ৩৫০ রান।

বছর চারেক আগে মনোজ তিওয়ারির হাত ধরেই বাংলা দলে খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন হরিয়ানার শাহবাজ আহমেদ। সেই সময়ে যাঁর নামের সঙ্গে ‘বহিরাগত’ তকমা জুড়ে দেওয়া হয়েছিল, সেই শাহবাজই এখন বাংলার জার্সিতে ফুল ফোটাচ্ছেন। সেমিফাইনালে দুরন্ত ছন্দে রয়েছেন তিনি। প্রথমে ব্যাট হাতে সেঞ্চুরি, তার পর বল হাতে ৫ উইকেট নিয়ে মধ্যপ্রদেশকে গুড়িয়ে দিয়েছেন শাহবাজ। সেই সঙ্গে জিইয়ে রাখলেন বাংলার জয়ের আশা।

শাহবাজের আগুনে বোলিংয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে মধ্যপ্রদেশ ২৮১ রানে অল আউট হয়ে যায়। প্রথম ইনিংসে ৬৮ রানে এগিয়ে থাকার সুবাদে ৩৪৯ রানের লিড পায় মধ্যপ্রদেশ। জিততে হলে বাংলাকে করতে হবে ৩৫০ রান।

বাংলার রঞ্জির সেমিফাইনালের পুরো লাইভ আপডেট পেতে ক্লিক করুন এখানে:

ম্যাচের তৃতীয় দিন রজত পতিদার এবং আদিত্য শ্রীবাস্তব শক্ত হাতে হাল ধরে রেখেছিলেন মধ্যপ্রদেশের। তবে চতুর্থ দিনের শুরুতেই রজতকে (৭৯) ফিরিয়ে বাংলাকে অক্সিজেন দেন শাহবাজ। এর পর অক্ষত রঘুবংশী, যিনি প্রথম ইনিংসে নজর কেড়েছিলেন, তাঁকে ৪ রানে বোল্ড করেন শাহবাজ। এ ছাড়াও সারাংশ জৈন (১১), পুনিত দাতে (৪), এবং কুমার কার্তিকেয়কে (৩) ফেরান শাহবাজ। প্রসঙ্গত, প্রথম ইনিংসে শাহবাজ নিয়েছিলেন ৩ উইকেট। দুই ইনিংস মিলিয়ে তাঁর সংগ্রহ মোট ৮ উইকেট।

এ ছাড়া দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলার প্রদীপ্ত প্রামাণিক ৪ উইকেট নিয়েছেন। হিমাংশু মন্ত্রীকে (২১) তো আগেই ফিরিয়েছিলেন। এ ছাড়াও শুভম শর্মা (২৬), আদিত্য শ্রীবাস্তব (৮২) এবং অনুভব আগরওয়ালকে (১২) ফেরান তিনি। দুই বোলারের দাপটেই মূলত দ্বিতীয় ইনিংসে ২৮১ রানে অল আউট হয়ে যায় মধ্যপ্রদেশ।

তবে বাংলার ব্যাটিং লাইনআপ কিন্তু নড়বড় করছে। হাতে দেড় দিন মতো সময় পেলেও, বাংলার ব্যাটারদের শক্ত হাতে হাল ধরতে হবে। না হলে কিন্তু উলটপুরাণ হতে পারে। উল্টে মধ্যপ্রদেশ ১০ উইকেট তুলে নিয়ে বাংলাকে সহজেই হারিয়ে দিতে পারে। প্রথম ইনিংসে মনোজ এবং শাহবাজ সেঞ্চুরি করলেও, বাংলার বাকি ব্যাটাররা কিন্তু নজর কাড়তে পারেননি। মাত্র ২৭৩ রানে তাঁরা অল আউট হয়ে গিয়েছিল।

বাংলার দ্বিতীয় ইনিংসের প্রথম বলেই আবার অভিষেক রামন শূন্য করে সাজঘরে ফিরে গিয়েছেন। শুরুতেই উইকেট পতন, বাংলার জন্য মোটেও ভালো লক্ষণ নয়।

বন্ধ করুন