আই লিগে ও আইএসএলে বিদেশি ফুটবলার খেলানোর নিয়মে আবার বদল আনতে চলেছে সর্বভারতীয় ফুটবল সংস্থা। AIFF-এর টেকনিক্যাল কমিটি ইতিমধ্যেই ৪ জন বিদেশি ফুটবলারকে দলে নেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে, যাঁদের মধ্যে একজনের এশিয়া (AFC) কোটার ফুটবলার হওয়া বাধ্যতামূলক।

শুক্রবারই বৈঠকে বসেছিল শ্যাম থাপার নেতৃত্বাধীন AIFF-এর টেকনিক্যাল কমিটি। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দেন জাতীয় কোচ ইগর স্টিমাচ, ফেডারেশন সভাপতি প্রফুল প্যাটেল ও সচিব কুশল দাস।

বৈঠকেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ৩+১ নিয়মে বিদেশি ফুটবলার দলে নেওয়ার। যদি প্রস্তাব গৃহীত হয়, তবে ২০২১ মরশুম থেকে আই লিগ ও আইএসএলে সর্বাধিক ৪ জন বিদেশি দলে নেওয়া যাবে। যদিও আসন্ন মরশুমে আগের মতোই নিয়ম বহাল থাকছে। বেশিরভাগ দলই বিদেশিদের সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদি চুক্তি সেরে রেখেছে। তাই তড়িঘড়ি নিয়ম বদল করা সম্ভব নয়।

লিগে বিদেশি ফুটবলার কমানোর প্রস্তাব দেন জাতীয় কোচ স্টিমাচ। লিগের দলগুলির বিদেশি স্ট্রাইকার ব্যবহার করার প্রবণতার জন্যই ভারতীয় দলে আন্তর্জাতিক মানের স্ট্রাইকার উঠে আসছে না। এমনটাই জানান স্টিমাচ। 

পরে টেকনিক্যাল কমিটি প্রস্তাব দেয় ৩+১ নিয়মে দলে বিদেশি ফুটবলার দলে নেওয়ার এবং ম্যাচে সর্বাধিক ৩ জন বিদেশি ফুটবলার খেলানোর। যদিও আইএসএলের দলগুলি এই প্রস্তাব মানবে কিনা সন্দেহ। কেননা, তাদের ব্যবসায়িক দিক নির্ভর করে মূলত বিদেশি ফুটবলারদের উপর ভিত্তি করেই।

এখন আই লিগে ৬ জন বিদেশি ফুটবলার নেওয়া যায়। একসঙ্গে খেলা যায় ৫ জনকে। আইএসএলে আপাতত ৭ জন বিদেশি দলে নেওয়া যায় এবং ৫ জনকে একসঙ্গে মাঠে নামানো যায়।

বন্ধ করুন