বাংলা নিউজ > ময়দান > জন্মস্থানে সেরা বোলিং রেকর্ডের দখল নিলেন আজাজ, টপকে গেলেন মুরলিকেও
আজাজ প্যাটেল।
আজাজ প্যাটেল।

জন্মস্থানে সেরা বোলিং রেকর্ডের দখল নিলেন আজাজ, টপকে গেলেন মুরলিকেও

  • ২০০২ সালে নিজের জন্মস্থান ক্যান্ডিতে ৫১ রান দিয়ে ৯ উইকেট নিয়েছিলেন মুরলিথরন। এটাই ছিল এতদিন জন্মস্থানে সেরা বোলিং পারফরম্যান্সের বিশ্ব রেকর্ড। শনিবার সেই রেকর্ডকেই টপকে গেলেন আজাজ।

নিজের জন্মস্থানে ইতিহাস লিখে ফেললেন আজাজ প্যাটেল। বিশ্বের তৃতীয় বোলার হিসেবে টেস্টের এক ইনিংসে ১০ উইকেট তুলে নিলেন আজাজ। স্পর্শ করলেন জিম লেকার এবং অনিল কুম্বলের রেকর্ডকে। আজাজের আগে জিম লেকার এবং কুম্বলের টেস্টের এক ইনিংসে ১০ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড রয়েছে। সেই সঙ্গে জন্মস্থানে গড়ে ফেললেন আরও একটি রেকর্ড।

জন্মস্থানে সেরা বোলিং-এর নজির গড়ে ফেললেন আজাজ। টপকে গেলেন মুথাইয়া মুরলিথরনকেও। ২০০২ সালে নিজের জন্মস্থান ক্যান্ডিতে জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে ৫১ রান দিয়ে ৯ উইকেট নিয়েছিলেন শ্রীলঙ্কার মুরলিথরন। এটাই ছিল এতদিন জন্মস্থানে সেরা বোলিং পারফরম্যান্সের বিশ্ব রেকর্ড। শনিবার সেই রেকর্ডকেই টপকে গেলেন আজাজ। মুম্বইয়ে নিজের জন্মস্থানে ভারতের বিরুদ্ধে ১১৯ রান দিয়ে ১০ উইকেট নেন তিনি। এই তালিকায় তিনে রয়েছেন পাকিস্তানের আব্দুল কাদির। ১৯৮৭ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে লাহোরে নিজের জন্মস্থানে ৫৬ রান দিয়ে ৯ উইকেট নিয়েছিলেন আব্দুল কাদির। আর ২০১৫ সালে ইংল্যান্ডের স্টুয়ার্ড ব্রড অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে নিজের জন্মস্থান নাটিংহ্যামে ১৫ রান দিয়ে ৮ উইকেট নিয়েছিলেন। তিনি রয়েছেন এই তালিকায় চার নম্ব

মুম্বই টেস্টের প্রথম দিনে শুক্রবার আজাজ প্যাটেল চার উইকেট নিয়েছিলেন। আর শনিবার সকালে তিনি আরও ছয় উইকেট তুলে নেন। প্রথম দিনের শেষে ভারতের স্কোর ছিল ৪ উইকেটে ২২১ রান। শনিবার আজাজের বিধ্বংসী বোলিংয়ের সামনে ভারত আর মাত্র ১০৪ রান যোগ করতে পারে। দ্বিতীয় দিনে ৩২৫ রানে অল আউট হয়ে যায় টিম ইন্ডিয়া।

নিজের জন্মস্থান মুম্বইয়ে বল হাতে দুরন্ত ছন্দে ছিলেন আজাজ প্যাটেল। একাই দায়িত্ব নিয়ে ভারতের প্রথম ইনিংস শেষ করে দিলেন। শনিবার সকালেই সবার আগে তিনি ফেরান ঋদ্ধিমান সাহাকে। ২৭ করে আজাজের বলে এলবিডব্লিউ হন ঋদ্ধি। তখন ভারতের স্কোর ২২৪। এর পর অশ্বিন ব্যাট করতে নামলে প্রথম বলেই তাঁকে ফেরান আজাজ। ১ বলে খেলে শূন্য রানে বোল্ড হন অশ্বিন। এর পর কিছুটা হাল ধরার চেষ্টা করেছিলেন ময়াঙ্ক আগরওয়াল এবং অক্ষর প্যাটেল। কিন্তু দলের ২৯১ রানের মাথায় আজাজের বলে ১৫০ করে আউট হন ময়াঙ্ক। এর পর অক্ষর প্যাটেল ৫২ করে আউট হওয়ার পরপরেই জয়ন্ত যাদব এবং মহম্মদ সিরাজও আউট হয়ে যান। ৩২৫ রানেই গুটিয়ে যায় ভ

বন্ধ করুন