বাংলা নিউজ > ময়দান > করোনা আক্রান্ত হয়ে লুকিয়ে রাশিয়া ছেড়ে পালিয়ে গেলেন মার্কিন টেনিস তারকা
স্যাম কুয়েরি। ছবি- গেটি ইমেজেস।
স্যাম কুয়েরি। ছবি- গেটি ইমেজেস।

করোনা আক্রান্ত হয়ে লুকিয়ে রাশিয়া ছেড়ে পালিয়ে গেলেন মার্কিন টেনিস তারকা

  • বড় অঙ্কের জরিমানা ছাড়াও তিন বছরের জন্য নির্বাসিত হতে পারেন কুয়েরি।

সেন্ট পিটার্সবার্গ ওপেনে খেলতে গিয়ে বড়সড় বিতর্কের মুখে স্যাম কুয়েরি। এটিপির গুরুতর নিয়মভঙ্গ করলেন তিনি। সেন্ট পিটার্সবার্গ ওপেনে খেলতে গিয়ে করোনা পজিটিভ হিসেবে চিহ্নিত হন ৩৩ বছর মার্কিন টেনিস তারকা। তাঁর স্ত্রী অ্যাবি ও সন্তানে ফোর্ডের শরীরেও করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে বলে খবর। এই অবস্থায় আইসোলেশনে থাকার বদলে ব্যক্তিগত বিমানে রাশিয়া ছেড়ে পালিয়ে যান বলে অভিযোগ আমেরিকান টেনিস তারকার বিরুদ্ধে।

স্বাভাবিকভাবেই রাশিয়ার কোভিড প্রোটোকল এবং সেই সঙ্গে এটিপির করোনাবিধি ভঙ্গের অভিযোগ উঠেছে কুয়েরির বিরুদ্ধে। শেষমেশ দোষী প্রমাণিত হলে এক লক্ষ মার্কিন ডলার জরিমানা ও তিন বছরের জন্য টেনিস থেকে নির্বাসিত হতে পারেন কুয়েরি।

সেন্ট পিটার্সবার্গের কোর্টে নামার আগে বাধ্যাতামূলক করোনা টেস্টে কুয়েরির রিপোর্ট পজিটিভ আসে। টুর্নামেন্ট থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় তাঁকে এবং হোটেলে ১৪ দিনের কোয়ারান্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়। তবে রাশিয়ান স্বাস্থ্য দফতরের তরফে টেনিস তারকার কাছে ফোন যাওয়ার পরেই তিনি সম্ভবত ভয় পেয়ে যান।

রাশিয়ান স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয় যে, কুয়েরির কাছে মেডিক্যাল টিম যাবে পরীক্ষার জন্য। যদি কোনও উপসর্গ থাকে, তবে বাধ্যতামূলকভাবে হাসপাতালে ভর্তি করানো হবে তাঁকে।

আশঙ্কা করা হচ্ছে যে, কুয়েরির বা তাঁর পরিবারের কারও হালকা উপসর্গ ছিল। তাই হাসপাতালে থাকা এবং ৮ মাসের শিশু সন্তানের কাছ থেকে আলাদা থাকার ভয়েই মার্কিন টেনিস তারকা ব্যক্তিগত বিমান ভাড়া করে গোপনে সপরিবারে রাশিয়া ছেড়ে পালিয়ে যান।

বেন রোদেনবার্গের টুইট অনুযায়ী, কুয়েরি সম্ভবত কাছাকাছি কোনও ইউরোপীয়ান দেশে পৌঁছেছেন, যেখানে প্রবেশ করার জন্য নেগেটিভ করোনা রিপোর্ট আবশ্যক নয়।

বন্ধ করুন