বাংলা নিউজ > ময়দান > ICC T20 WC 2022 হারের পর BCCI-এর আর একটি বড় পদক্ষেপ! ছেঁটে ফেলা হল এই কোচকে

ICC T20 WC 2022 হারের পর BCCI-এর আর একটি বড় পদক্ষেপ! ছেঁটে ফেলা হল এই কোচকে

ছেঁটে ফেলা হল দলের এই অভিজ্ঞকে

এই পরাজয়ের পরে, BCCI ইতিমধ্যেই চেতন শর্মার নেতৃত্বাধীন নির্বাচক কমিটিকে সরিয়ে দিয়েছে, এখন আরেকটি বড় পদক্ষেপ নিল। এবারে বিসিসিআই কতৃপক্ষ টিম ইন্ডিয়া থেকে একজন অভিজ্ঞকে ছেড়ে দিল।

২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পরাজয়ের পর থেকে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) অনেক বড় পদক্ষেপ নিচ্ছে। এই টুর্নামেন্টে টিম ইন্ডিয়া সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে হেরে বিদায় নিয়েছিল। এই পরাজয়ের পরে, BCCI ইতিমধ্যেই চেতন শর্মার নেতৃত্বাধীন নির্বাচক কমিটিকে সরিয়ে দিয়েছে, এখন আরেকটি বড় পদক্ষেপ নিল। এবারে বিসিসিআই কতৃপক্ষ টিম ইন্ডিয়া থেকে একজন অভিজ্ঞকে ছেড়ে দিল।

অস্ট্রেলিয়াতে অনুষ্ঠিত ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের বাজে পারফরম্যান্সের পর থেকে বিসিসিআই সম্পূর্ণ অ্যাকশনে রয়েছে। অতীতে হঠাৎ করেই পুরো নির্বাচক কমিটিকে ছেঁটে ফেলেছিল বিসিসিআই। এবার এই পর্বে আরেকটি পদক্ষেপ নিয়েছে ভারতের সর্বোচ্চ ক্রিকেট বোর্ড। এখন খবর আসছে ভারতীয় দলের মানসিক কন্ডিশনিং কোচ প্যাডি আপটনের চুক্তি নবায়ন করবে না বোর্ড। বিশ্বকাপে আপটনের চুক্তি শেষ হয়। আপটনকে বেছে নিয়েছিলেন কোচ রাহুল দ্রাবিড়। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবর অনুযায়ী, মানসিক কন্ডিশনিং কোচ আপটনের চুক্তির মেয়াদ বাড়ায়নি বিসিসিআই।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের আগে, দ্রাবিড়ের সুপারিশে প্যাডি আপটনকে বিশ্বকাপ পর্যন্ত অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। এখন বাংলাদেশ সফরে দলের সঙ্গে যাবেন না আপটন। খেলোয়াড়দের চাপ কমাতে সাহায্য করার জন্য আপটনকে নেওয়া হয়েছিল। তিনি তার কাজে সফলও হয়েছেন। তার ইনপুট বিরাট কোহলিকে ফর্মে ফিরতে সাহায্য করেছিল। প্যাডি আপটনও কেএল রাহুলের সঙ্গে সময় কাটিয়েছেন এবং রাহুলও হাফ সেঞ্চুরি করে ফিরে এসেছিলেন।

যাইহোক, রাহুল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে আবারও ব্যর্থ হন এবং প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক সুনীল গাভাসকর রাহুলের সঙ্গে কাজ না করার জন্য তাঁকে তিরস্কার করেন। ভারতীয় দলের সঙ্গে এটি ছিল আপটনের দ্বিতীয় ইনিংস। এর আগে তিনি গ্যারি কার্স্টেনের সঙ্গে কাজ করেছিলেন যখন ভারত ২০১১ সালে বিশ্বকাপ জিতেছিল।

প্যাডি আপটন আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালস, দিল্লি ডেয়ারডেভিলস এখনকার দিল্লি ক্যাপিটালস এবং পুনে ওয়ারিয়র্সের সঙ্গেও কাজ করেছেন। চেতন শর্মার নেতৃত্বাধীন নির্বাচক কমিটিকে বিসিসিআই বরখাস্ত করার পরে আপটনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। সূত্রের খবর এবার স্কোয়াড নিয়েও পদক্ষেপ নিচ্ছে বোর্ড। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অনেক সিনিয়র খেলোয়াড়কে বাদ দিতে পারে বোর্ড। এর মধ্যে রয়েছে আর অশ্বিন, দীনেশ কার্তিক ও মহম্মদ শামির নাম। এমনকি রোহিত শর্মাও তাঁর টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব হারাতে পারেন বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। বর্তমানে অনেক বিশেষজ্ঞই বিশ্বাস করা হচ্ছে যে হার্দিক পান্ডিয়া ২০২৪ সালে অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অধিনায়কত্ব করতে পারেন।

বন্ধ করুন