বাংলা নিউজ > ময়দান > বিশ্বকাপে সোনা জয়ের হ্যাটট্রিক, অলিম্পিক্সের ছাড়পত্র পেয়ে গেলেন দীপিকা
দীপিকা কুমারী।

বিশ্বকাপে সোনা জয়ের হ্যাটট্রিক, অলিম্পিক্সের ছাড়পত্র পেয়ে গেলেন দীপিকা

  • দীপিকা কুমারী বিশ্ব তিরন্দাজি ক্রমতালিকায় মহিলাদের একক বিভাগে শীর্ষ স্থান দখল করেছেন। আর শীর্ষ স্থানে থাকার সুবাদেই অলিম্পিক্সের ছাড়পত্র পেয়ে গেলেন তিনি।

তিরন্দাজি বিশ্বকাপের স্টেজ থ্রি ইভেন্টে সোনা জয়ের হ্যাটট্রিক করে ফেললেন দীপিকা কুমারী। প্রথমে মহিলা দলগত বিভাগে সোনা পান দীপিকা। তার পরে স্বামী অতনু দাসের সঙ্গে মিক্সড ডাবলসে সোনা জেতেন তিনি। এর পরে একক বিভাগে সোনা পান দীপিকা।

একক বিভাগের টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে তিনি মেক্সিকোর অ্যানা ভাসকোয়েজকে ৬-২ ব্যবধানে হারানোর পর, ফাইনালে রাশিয়ার এলিনা ওসিপোভাকে ৬-০ ব্যবধানে পরাস্ত করেন। তিরন্দাজি বিশ্বকাপে এই নিয়ে দীপিকা চতুর্থ বার সোনার পদক জয় করলেন।

এ দিন প্যারিসে একক বিভাগে সোনা জয়ের পর অলিম্পিক্সের ছাড়পত্রও পেয়ে গেলেন দীপিকা। কারণ তিনি বিশ্ব তিরন্দাজি ক্রমতালিকায় মহিলাদের একক বিভাগে শীর্ষ স্থান দখল করেছেন তিনি। আর শীর্ষ স্থানে থাকার সুবাদেই অলিম্পিক্সের ছাড়পত্র পেয়ে গেলেন দীপিকা কুমারী। এর আগে ২০১২ লন্ডন অলিম্পিক্সের আগেও তিনি শীর্ষস্থান দখল করেছিলেন।

এ ছাড়াও দীপিকাএবং অতনু রবিবারই প্যারিসে জুটি বেঁধে তিরন্দাজি বিশ্বকাপের মঞ্চে থ্রি ইভেন্টে মিক্সড রিকার্ভ দলের হয়ে দেশকে সোনা এনে দিয়েছেন। এই বিভাগে তারকা দম্পতি ফাইনালে ৫-৩ ব্যবধানে হারিয়েছেন নেদারল্যান্ডসকে। 

মহিলা রিকার্ভ দলে আবার দীপিকার সঙ্গী ছিলেন অঙ্কিতা ভকত এবং কোমলিকা বারি। অলিম্পিক্সে মহিলা দল যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি ঠিকই, তবে এ দিন ফাইনালে মেক্সিকোকে ৫-১ ব্যবধানে হারান দীপিকারা। চলতি বছরে গুয়াতেমালা সিটিতে বিশ্বকাপেও একই বিভাগে সোনা জিতেছিলেন দীপিকারা। এই নিয়ে মোট ছ'বার সোনা জিতল মহিলা দল। আর প্রতি বারই দলে ছিলেন দীপিকা কুমারী।

প্রসঙ্গত এই বছর অলিম্পিক্সে একমাত্র মহিলা তিরন্দাজ হিসেবে টোকিও অলিম্পিক্সের ছাড়পত্র পেয়েছেন দীপিকা কুমারী। ভারতের পুরুষ দলও ইতিমধ্যেই যোগ্যতা অর্জন করেছে। সেই দলে রয়েছেন দীপিকার স্বামী অতনুও।

বন্ধ করুন