বাংলা নিউজ > ময়দান > সচিনের রেকর্ড ভাঙব, দম্ভ করেছিলেন ২৪ বছরের কোহলি, আজ হাতড়াচ্ছেন ফর্মের জন্য
সচিন তেন্ডুলকর এবং বিরাট কোহলি।

সচিনের রেকর্ড ভাঙব, দম্ভ করেছিলেন ২৪ বছরের কোহলি, আজ হাতড়াচ্ছেন ফর্মের জন্য

  • ২০১২ সালে কোহলি যখন ১৯ বছর বয়সে ভারতের হয়ে অভিষেক করেছিলেন, তখন কেউ ভাবেনি যে তিনি এই উচ্চতায় পৌঁছাবেন। ২০১৩ সালের মধ্যে, কোহলি টিম ইন্ডিয়ার তারকা হয়ে উঠেছিলেন, যিনি পরবর্তী ৭ বছর ধরে বিশ্ব ক্রিকেটকে শাসন করে চলেছেন। 

এখনও পর্যন্ত সচিন তেন্ডুলকরের রেকর্ডের ধারেকাছে যদি কোনও ব্যাটসম্যান পৌঁছতে পারেন, তবে তিনি হলেন বিরাট কোহলি। বিশ্ব ক্রিকেটে কোহলির দ্বিতীয় সর্বাধিক আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি রয়েছে। সব ফরম্যাট মিলিয়ে ৭০টি সেঞ্চুরি রয়েছে তাঁর। সচিন তেন্ডুলকরের সঙ্গে তুলনার কথা উঠলে প্রথমেই আসে বিরাট কোহলির নাম।

সর্বোপরি তিনি সচিনের পরে ভারতের সবচেয়ে সফল ব্যাটার। তাঁর খারাপ ফর্মের কথা বাদ দিলে, আধুনিক যুগে কোহলি এখনও একমাত্র ক্রিকেটার, রেকর্ডের দিক থেকে কিংবদন্তি তেন্ডুলকরকে ছাপিয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে যাঁর। ৪৩টি ওডিআই সেঞ্চুরি করে ফেলেছেন তিনি। তেন্ডুলকরের থেকে মাত্র ছ'টি সেঞ্চুরি পিছিয়ে রয়েছেন।

আরও পড়ুন: ব্যাট হাতে অনন্য নজির শিখরের, ভাঙলেন ধোনির রেকর্ড

২০১২ সালে কোহলি যখন ১৯ বছর বয়সে ভারতের হয়ে অভিষেক করেছিলেন, তখন কেউ ভাবেনি যে তিনি এই উচ্চতায় পৌঁছাবেন। ২০১৩ সালের মধ্যে, কোহলি টিম ইন্ডিয়ার তারকা হয়ে উঠেছিলেন, যিনি পরবর্তী ৭ বছর ধরে বিশ্ব ক্রিকেটকে শাসন করে চলেছেন। কিন্তু কোহলি যখন তরুণ ছিলেন, তখনও তিনি বিশ্বাস করতেন যে, তেন্ডুলকরের ব্যাটিং রেকর্ডকে তিনি ছাপিয়ে যেতে পারবেন।

কোহলি যখন ২৪ বছরের ছিলেন, সেই সময়ে তাঁর ঝুলিতে ছিল ৯টি সেঞ্চুরি। তখন কোহলি দাবি করেছিলেন, ‘আমি ওডিআইতে সচিন পাজিকে ধরব।’

আরও পড়ুন: ৯৮ করে সচিনের নজির ভাঙার সুযোগ হাতছাড়া, সেহওয়াগদের অবাঞ্ছিত তালিকায় নাম শুভমনের

ওকলে স্পোর্টস মার্কেটিংয়ের প্রধান অশ্বিন কৃষ্ণান তাঁর চ্যাট শো, দ্য অল্টারনেট ভিউ-এ জেমি অল্টারকে বলেছিলেন, ‘বিরাট কোহলির ওয়ানডে রেকর্ডটি অভূতপূর্ব। এবং তিনি সচিনের সেই রেকর্ডের কাছাকাছি এগিয়ে যাচ্ছেন - তিনি সেখানে যান বা না যান, সেটা মূল বিষয় নয়। আমি আপনাকে একটি ছোট গল্প বলব, ২০১৩ সালে, আমরা ওকলের জন্য এলএ-তে বিরাটকে সাইন করাতে গিয়েছিলান। এবং আমরা সেখানে গিয়ে বসেছিলাম। বিরাট ওর ম্যানেজার বান্টির সঙ্গে এসেছিল এবং ও মুম্বই থেকে এসেছিল। আমি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ করছিলাম এবং ওকে সাইন করানো লক্ষ্য ছিল। ২৪ বছরের তারকা তখন ওডিআই-এ ৯টি সেঞ্চুরি করে ফেলেছিলেন। এবং তিনি তখন বলেছিলেন, ওয়ান-ডে মে তো আমি পাজি (সচিন) কো পাকড় লুঙ্গা (ওয়ানডে-তে আমি পাজিকে ধরে ফেলব)। পাজির ৪৯টি সেঞ্চুরি রয়েছে।’

বন্ধ করুন