বাংলা নিউজ > ময়দান > Asia Cup 2022: টস ভাগ্যেই কি পাক-শ্রীলঙ্কা ফাইনাল? বিতর্ক উস্কে দিলেন মঞ্জরেকর
সঞ্জয় মঞ্জরেকর।

Asia Cup 2022: টস ভাগ্যেই কি পাক-শ্রীলঙ্কা ফাইনাল? বিতর্ক উস্কে দিলেন মঞ্জরেকর

  • এশিয়া কাপে ভারত শেষ ম্যাচ খেলার পর রোহিত দাবি করেছিলেন, ‘আশা করছি, ওখানে টস গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়াবে না এবং অস্ট্রেলিয়ায় (এবার অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে) আমরা নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দিতে পারব।’ ভারত অধিনায়কের বক্তব্য ঘিরে বহু জলঘোলা হয়েছে।

টসে হারের জন্য এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে যেতে হয়েছে। ঘুরিয়ে এমনই দাবি করেছিলেন ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা। তা নিয়ে সমালোচনাও হয়েছে বিস্তর। যদিও রোহিত সরাসরি তেমন কিছু বলেনি। কিছুটা কটাক্ষের সুরে বলেছেন, ‘আশা করছি, ওখানে (টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ) টস গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়াবে না।’

আরও পড়ুন: Asia Cup Final-এর আগে সুখবর পাক শিবিরে,লঙ্কার চিন্তা বাড়িয়ে দলে ফিরলেন এই পেসার

যাইহোক টস কি সত্যি এশিয়া কাপের ভাগ্য নির্ধারণ করবে? তা নিয়ে বিস্তর জল্পনা রয়েছে। তবে এই জল্পনার আগুনে যেন ঘি ঢেলেছেন সঞ্জয় মঞ্জরেকর। তিনি একটি টুইট করে লিখেছেন, ‘এই এশিয়া কাপে যেটি উপেক্ষা করা যায় না - সেটা হল সুপার ফোরে যে দলগুলি বেশির ভাগ টস হেরেছে, তারা ফাইনালে নেই। ভারত সবকটিতেই (৩টিতে) টসে হেরেছে। আফগানিস্তান ২টিতে হেরেছে। তবে কয়েনের স্পিন ঠিক করতে পারে না, কে খুব গুরুত্বপূর্ণ সুবিধে পাবে। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে একটি ন্যায্য পদ্ধতি অন্বেষণ করতে হবে।’

রবিবার দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে চলতি এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলবে পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কা। তার আগে একই মাঠে দু'দল সুপার ফোরের লড়াইয়ে সম্মুখসমরে নামে। উভয় দল আগেই ফাইনালের টিকিট পেয়ে গিয়েছে। সুতরাং, এই ম্যাচটি ছিল নিছক নিয়মরক্ষার। তবে ফাইনালের আগে স্টেজ রিহার্সাল করে নিল দুই দলই।

আরও পড়ুন: কোথায় কিং-মহারাজের দ্বন্দ্ব? কোহলিকে বেশি দক্ষ প্লেয়ারের দরাজ সার্টিফিকেট সৌরভের

একে অপরের শক্তি-দুর্বলতা জানা ছাড়াও ফাইনালের আগে আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে নেওয়ার বিষয়টিও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। সে দিক থেকে শ্রীলঙ্কা শুক্রবারের (৯ সেপ্টেম্বর) ম্যাচটি জিতে মানসিক ভাবে এগিয়ে রইল বলা যায়। কারণ সুপার ফোরের শেষ ম্যাচে পাকিস্তানকে দাপটের সঙ্গে হারান দাসুন শানাকারা।

দুবাইয়ে টস জিতে পাকিস্তানকে শুরুতে ব্যাট করতে পাঠায় শ্রীলঙ্কা। ১৯.১ ওভারে বাবর আজমদের ১২১ রানে অল-আউট করে দেয় তারা। পাল্টা ব্যাট করতে নেমে শ্রীলঙ্কা একটা সময়ে ২৯ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বসেছিল। তবে শেষ পর্যন্ত ১৭ ওভারে ৫ উইকেটের বিনিময়ে ১২৪ রান তুলে ম্যাচ জিতে যায় লঙ্কা ব্রিগেড। ১৮ বল বাকি থাকতে ৫ উইকেটে ম্যাচ জেতেন দাসুন শনাকারা।

বন্ধ করুন