বাংলা নিউজ > ময়দান > Asia Cup 2022: তুমি যে জায়গা আমায় দিয়েছ, তাতে আমি স্বস্তি পেয়েছি- রোহিতকে ধন্যবাদ জানালেন কোহলি
বিরাট কোহলি এবং রোহিত শর্মা। ছবি: বিসিসিআই টুইটার

Asia Cup 2022: তুমি যে জায়গা আমায় দিয়েছ, তাতে আমি স্বস্তি পেয়েছি- রোহিতকে ধন্যবাদ জানালেন কোহলি

  • প্রায় ৩ বছর সেঞ্চুরি অধরা ছিল কোহলির। একেবারেই নিজের ছন্দে ছিলেন না, রান পাচ্ছিলেন না। গোটা ক্রিকেট বিশ্ব তখন তাঁর সমালোচনায় মুখর ছিল। সেই খারাপ সময়ে অধিনায়ক রোহিত শর্মা এবং কোচ রাহুল দ্রাবিড় তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। এমনই দাবি কোহলির।

সেঞ্চুরি পাওয়ার পর রোহিত শর্মার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন বিরাট কোহলি। যদিও তাঁদের দু’জনের সম্পর্কের টানাপোড়েন নিয়ে নানা জল্পনা রয়েছে। বিশেষ করে কোহলির পরিবর্তে রোহিতকে অধিনায়ক করার পর, তাঁদের সম্পর্কের সমীকরণ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। তবে বারবার পুরো উল্টো ছবি দেখা গিয়েছে এশিয়া কাপের মঞ্চে বা তারও আগে বিভিন্ন সময়ে।

বৃহস্পতিবার (৮ অগস্ট) আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে বিরাট কোহলি সেঞ্চুরি করার পরে ভারতীয় দলের দুই তারকা যেন তাঁদের মাঝে সুন্দর সম্পর্কের বিজ্ঞাপন আরও একবার দিলেন। রোহিত-কোহলির একান্ত আলাপচারিতার একটি ভিডিয়ো প্রকাশ করেছে বোর্ড। তাতে কঠিন সময়ে পাশে দাঁড়ানোর জন্য রোহিতকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিরাট।

আরও পড়ুন: T20 WC-এ হারের পর কোহলিকে দোষ দেওয়া হয়েছিল, এ বার কী বলবেন- প্রশ্ন আকাশ চোপড়ার

প্রায় ৩ বছর সেঞ্চুরি অধরা ছিল কোহলির। একেবারেই নিজের ছন্দে ছিলেন না, রান পাচ্ছিলেন না। গোটা ক্রিকেট বিশ্ব তখন তাঁর সমালোচনায় মুখর ছিল। সেই খারাপ সময়ে অধিনায়ক রোহিত শর্মা এবং কোচ রাহুল দ্রাবিড় তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। বিরাটের ফর্ম নিয়ে লাগাতার সমালোচনা নিয়ে বিরক্তিও প্রকাশ করেছিলেন রোহিত। টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক জানিয়ে দিলেন, খারাপ সময়ে টিম ম্যানেজমেন্ট সব সময়ে তাঁর পাশে ছিল।

আরও পড়ুন: ৭১তম সেঞ্চুরির পর মাথা নীচু করে কোহলিকে প্রণাম তাঁর বৃদ্ধ ভক্তের- ভিডিয়ো ভাইরাল

রোহিতের সঙ্গে আলোচনার সময়ে কোহলি বলেন, ‘এই সুপার ফোরের ম্যাচগুলি থেকে আমরা অনেক কিছু শিখেছি। কী ভুল হয়েছে, সেটা খতিয়ে দেখছি। আমার সঙ্গে এতদিন টিম ম্যানেজমেন্টের স্পষ্ট আলোচনা হয়েছে। যেভাবে আমাকে নিজের জায়গাটা তোমরা দিয়েছ, সেটা আমাকে মানসিক ভাবে স্বস্তি দিয়েছে। সে কারণেই আমি বিরতি থেকে ফেরার পর দলের জন্য কী করতে পারব, সেটা নিয়ে ভাবতে পেরেছি।’

এদিন কোচ রাহুল দ্রাবিড়েরও প্রশংসা শোনা যায় বিরাটের গলায়। তিনি বলেন, ‘রাহুল ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলে আমার অনেকটা উপকার হয়েছে। মাঝের ওভারগুলিতে কী ভাবে রান বাড়াতে হবে, সেটা রাহুল ভাই আমাকে বলেছিলেন।’ তিনি আরও বলেছেন, ‘নিজের সহজাত খেলায় ফিরে গিয়েই এই সাফল্য আমার। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট মানেই বড় শট নয়। আমি এতদিন বড় শট মারতে গিয়ে ভুল করছিলাম। আসলে ছয় মারাটা আমার শক্তি নয়। দরকার পড়লে অবশ্যই বড় শট খেলতে হবে। কিন্তু এশিয়া কাপের আগে আমি ম্যানেজমেন্টকে বলেই দিয়েছিলাম আমি গ্যাপে খেলে বাউন্ডারি মারার চেষ্টা করব। সেটাই কাজে দিয়েছে।’

বন্ধ করুন