বাংলা নিউজ > ময়দান > Asia Cup 2022: বিশ্বকাপে নিশ্চিত নয়, সেই শ্রীলঙ্কা জিতল এশিয়া কাপ, হামাগুড়ি মূলপর্বের ৪ দলের
এশিয়া কাপ জয়ের উচ্ছ্বাস শ্রীলঙ্কার। (ছবি সৌজন্যে এএফপি)

Asia Cup 2022: বিশ্বকাপে নিশ্চিত নয়, সেই শ্রীলঙ্কা জিতল এশিয়া কাপ, হামাগুড়ি মূলপর্বের ৪ দলের

  • Asia Cup 2022: এবারের এশিয়া কাপকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের (আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে হবে) প্রস্তুতি হিসেবে দেখা হচ্ছিল। সরাসরি বিশ্বকাপের 'সুপার ১২'-এ খেলবে ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান এবং বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কা সরাসরি মূলপর্বে খেলার সুযোগ পায়নি।

সরাসরি বিশ্বকাপে খেলার ছাড়পত্র মেলেনি। খেলতে হবে প্রাথমিক রাউন্ডে। সেই শ্রীলঙ্কাই জিতল এশিয়া কাপে। শুধু তাই নয়, যে ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান এবং বাংলাদেশকে হারিয়ে এশিয়া কাপ জিতল শ্রীলঙ্কা, সেই চার দলই সরাসরি আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার ছাড়পত্র পেয়েছে।

এবার এশিয়া কাপে ছ'টি দল ছিল - শ্রীলঙ্কা, ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান বাংলাদেশ এবং হংকং। যে টুর্নামেন্টকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের (আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে হবে) প্রস্তুতি হিসেবে দেখা হচ্ছিল। সরাসরি বিশ্বকাপের 'সুপার ১২'-এ খেলবে ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান এবং বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কা সরাসরি মূলপর্বে খেলার সুযোগ পায়নি। বিশ্বকাপের মূলপর্ব শুরুর আগে প্রথম রাউন্ডে খেলতে হবে দাসুন শানাকাদের। যে রাউন্ডে দুটি গ্রুপে মোট আটটি দল। প্রতিটি গ্রুপ থেকে প্রথম দুটি দল বিশ্বকাপের মূলপর্বে উঠবে। 

আরও পড়ুন: Asia Cup 2022 Final LIVE: খাদের কিনারা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে এশিয়া চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা

শ্রীলঙ্কা বনাম পাকিস্তান ম্যাচ

টসে জিতলেই ম্যাচ জিতছে কোনও দল - সেই ধারণাকে ভ্রান্ত প্রমাণ করল শ্রীলঙ্কা। রবিবার এশিয়া কাপ ফাইনালে টসে জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান। শুরুটা দুর্দান্ত করেছিলেন বাবর আজমরা। ৫৮ রানে পাঁচ উইকেট পড়ে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কার। 

সেখান থেকে শ্রীলঙ্কার ইনিংসের হাল ধরেন ভানুকা রাজাপক্ষ এবং ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। পালটা পাকিস্তানকে চাপে ফেলে দেন তাঁরা। ২১ বলে ৩৬ রান করে তারকা অল-রাউন্ডার আউট হয়ে গেলেও শ্রীলঙ্কাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন রাজাপক্ষ। শেষপর্যন্ত ৪১ বলে ৭১ রানে অপরাজিত থাকেন। তাঁর সৌজন্যেই নির্ধারিত ২০ ওভারে ছয় উইকেটে ১৭০ রান তোলে শ্রীলঙ্কা। 

আরও পড়ুন: India fans allegedly heckled: ‘ইন্ডিয়া গো আউট’, এশিয়া কাপের ফাইনালে মাঠে ‘ঢুকতে দেওয়া হল না’ ভারতীয়দের

সেই রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা একেবারেই ভালো করতে পারেনি পাকিস্তান। পরপর দু'বলে আউট হয়ে যান বাবর এবং ফখর আজম। তারপর উইকেট না হারালেও পাকিস্তানের রানের গতি বাড়েনি। তার ফলে ক্রমশ রিকোয়ার্ড রানরেট বাড়তে থাকে। 

সেই অবস্থায় ১৪ তম ওভারে ইফতিকার আহমেদ আউট হতেই পাকিস্তানের ইনিংসে ধস নামে। ইফতিকার যখন আউট হন, তখন পাকিস্তানের স্কোর ছিল তিন উইকেট রান। যা ১৮.২ ওভারে দাঁড়ায় নয় উইকেটে ১২৫ রান। ১৭ তম হাসারাঙ্গার ওভার ম্যাচ পুরোপুরি ঘুরিয়ে দেয়। সেই ওভারে তিন উইকেট পড়ে। শেষপর্যন্ত ২৩ রানে এশিয়া কাপের ফাইনালে জিতে যায় দ্বীপরাষ্ট্র।

বন্ধ করুন