বাংলা নিউজ > ময়দান > Asia Cup: হুডাকে বল না দেওয়া, আর্শদীপকে ১৯তম ওভারে না আনা, রোহিতের কৌশল নিয়ে বিরক্ত ইরফান
রোহিত শর্মা।

Asia Cup: হুডাকে বল না দেওয়া, আর্শদীপকে ১৯তম ওভারে না আনা, রোহিতের কৌশল নিয়ে বিরক্ত ইরফান

  • ভারতীয় দলের দেওয়া ১৭৪ রানের টার্গেট তাড়া করতে গিয়ে শেষ ১২ বলে শ্রীলঙ্কার প্রয়োজন ছিল ২১ রান। রোহিত শর্মা ১৯তম ওভারের জন্য অভিজ্ঞ ভুবনেশ্বর কুমারের উপর বাজি রেখেছিলেন এবং তিনি মোট ১৯তম ওভারে মোট ১৪ রান দেন।

২০২২ এশিয়া কাপের সুপার ফোরের ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ছয় উইকেটের পরাজয়ের পর, ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মার কৌশল নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ইরফান পাঠান। প্রাক্তন ভারত অলরাউন্ডার বলেছেন যে, রোহিত ইনিংসের ১৯তম ওভারটি আর্শদীপ সিংকে না দিয়ে একটি বড় ভুল করেছেন।

আরও পড়ুন: মিয়াঁদাদের সেই বিখ্যাত ছক্কার কথা মনে পড়ছে- নাসিমকে নিয়ে ঘোরে বাবর

ভারতীয় দলের দেওয়া ১৭৪ রানের টার্গেট তাড়া করতে গিয়ে শেষ ১২ বলে শ্রীলঙ্কার প্রয়োজন ছিল ২১ রান। রোহিত শর্মা ১৯তম ওভারের জন্য অভিজ্ঞ ভুবনেশ্বর কুমারের উপর বাজি রেখেছিলেন এবং তিনি মোট ১৯তম ওভারে মোট ১৪ রান দেন। শেষ ওভারে জয়ের জন্য মাত্র ৭ রান বাকি ছিল। ৬ ওভারে ৭ রান করাটা কোনও কঠিন বিষয়ই নয়। তাও আর্শদীপ সিং দুর্দান্ত বোলিং করেছিলেন। কিন্তু এক বল বাকি থাকতেই শ্রীলঙ্কা ম্যাচ জিতে যায়। এবং ফাইনালে তাদের জায়গা পাকা করে ফেলে।

আরও পড়ুন: আমরা স্নায়ুকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারিনি- ম্যাচ হেরে স্বীকারোক্তি নবির

ভারতের পরাজয়ের পর সম্প্রচারকদের সঙ্গে আলোচনার সময়ে রোহিত শর্মার ভুলগুলি নিয়ে কথা বলতে গিয়ে পাঠান বলেন, ‘দেখুন, আমি ভেবেছিলাম এই পিচে ১৮০-এর কাছাকাছি যে কোনও স্কোরই বেশ ভালো। কারণ আপনি যদি পিচের পরিস্থিতি দেখেন, তবে সেখানে কোনও শিশির ছিল না। এবং যদি শিশির না থাকে, বোলিং করাটা সত্যিই সহজ হয়ে যায়। যে চার উইকেট পড়েছিল সবই ভারতের স্পিনাররা নিয়েছিল। কোনও ফাস্ট বোলার উইকেট পায়নি। রোহিত শর্মা বেশ কয়েক বার নিজের স্ট্র্যাটেজি ঠিকঠাক নিতে পারেনি। এক, দীপক হুডাকে দিয়ে বল করায়নি। দ্বিতীয়ত, আমি মনে করি আর্শদীপকে দিয়ে ১৯তম ওভারটি করানো উচিত ছিল। কারণ দীর্ঘ বাউন্ডারির দিকটি বাঁ-হাতিকে সাহায্য করত। একই কথা আমি ধারাভাষ্য দেওয়ার সময়েই বলেছি। রোহিত শর্মা কিছুটা ভালো করতেই পারতেন।’

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারের পর এবং বুধবার পাকিস্তান ১ উইকেটে আফগানিস্তানকে হারিয়ে দেওয়ার পর ২০২২ এশিয়া কাপের ফাইনালে ওঠার ক্ষীণ আশাটুকুও শেষ হয়ে গিয়েছে। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে ম্যাচটি জিতলে, ভারতের ফাইনালে যাওয়ার আশা বেঁচে থাকত।

বন্ধ করুন