বাংলা নিউজ > ময়দান > কোন মুহূর্তে কেঁদে ফেলেছিলেন দৃঢ় মানসিকতার পূজারা? জানালেন নিজেই
চেতেশ্বর পূজারা। ছবি- বিসিসিআই।
চেতেশ্বর পূজারা। ছবি- বিসিসিআই।

কোন মুহূর্তে কেঁদে ফেলেছিলেন দৃঢ় মানসিকতার পূজারা? জানালেন নিজেই

  • মুশকিল সময়ে তাঁর মানসিকতাতেও চিড় ধরাতে সক্ষম হয়েছিল বলেই জানান লাল বলের ক্রিকেটে ভারতীয় ব্যাটিংয়ের স্তম্ভ।

ভারতীয় দলের নতুন ওয়াল হিসাবে পরিচিতি তাঁর। অসহ্য যন্ত্রণা সত্ত্বেও অস্ট্রেলিয়া বোলারদের গায়ের দিকে ধেঁয়ে আসা বলও তাঁকে টলাতে পারেনি। অদম্য সহ্যশক্তি ও দৃঢ় মানসিকতারই প্রতীক হিসাবে ধরা হয় চেতেশ্বর পূজারাকে। সেই পূজারা কাঁদছেন, ভয় পাচ্ছেন, এমন দৃশ্য তো কোন সমর্থক স্বপ্নেও দেখেছেন কিনা সন্দেহ। 

তবে মুশকিল সময় তাঁর মানসিকতাতেও চিড় ধরাতে সক্ষম হয়েছিল বলেই জানান লাল বলের ক্রিকেটে ভারতীয় ব্যাটিংয়ের স্তম্ভ। ইউটিউবে ‘মাইন্ড ম্যাটারস’র সাথে এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ‘যখন আমি প্রথমবার চোটের কবলে পড়ি, তখন আমাদের দলের ফিজিও আমায় জানান যে পুরোপুরি সুস্থ হতে আমার ছয় মাস সময় লাগবে। সেই সময় আমি প্রচন্ড হতাশ হয়ে গিয়ে কান্নাকাটি শুরু করে দিই। বারবার আমার মাথায় আর কোনদিন জাতীয় দলে খেলতে পারব কি না, সেই কথা ভেবে নেতিবাচক চিন্তাভাবনা ঘোরাফেরা করতে থাকে। নিজে একবার নেতিবাচক ভাবতে শুরু করে দিলে চারিদিকের সবই নেতিবাচক লাগে’।

তবে পূজারা জানান তাঁর বন্ধুবান্ধব এবং পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলার মাধ্যমে ধীরে ধীরে ওই পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হন তিনি। এখন তিনি সবসময় বর্তমানে কী করা সম্ভব সেইদিকেই নজর রাখার চেষ্টা করেন বলে তাঁর দাবি।

বন্ধ করুন