বাংলা নিউজ > ময়দান > ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের উচ্ছ্বাসের ভিডিয়ো দেখে রেগে গেলেন অজি কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার
অস্ট্রেলিয়ার প্রধান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার (ছবি:রয়টার্স) (Pool via REUTERS)
অস্ট্রেলিয়ার প্রধান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার (ছবি:রয়টার্স) (Pool via REUTERS)

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের উচ্ছ্বাসের ভিডিয়ো দেখে রেগে গেলেন অজি কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার

  • অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ডের ওয়েবসাইটে পোস্ট করা হয়েছে বাংলাদেশের সিরিজ জয়ের ভিডিয়ো। যা দেখে চোটে গেলেন অজিদের প্রধান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার।

অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ডের ওয়েবসাইটে পোস্ট করা হয়েছে বাংলাদেশের সিরিজ জয়ের ভিডিয়ো। যা দেখে চোটে গেলেন অজিদের প্রধান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। শুধু রেগেই গেলন না, অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার অন্যান্য কর্মীদের সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে পড়লেন। এই ভিডিয়োতে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের উদযাপন করতে দেখা গেছে। 

আসলে গত সপ্তাহে ক্যাঙ্গারুদের বিরুদ্ধে প্রথম সিরিজ জয়ের স্বাদ পেয়েছিল বাংলাদেশ, সেই কারণেই তারা নিজেদের মতো করেই আনন্দ প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু সেই ভিডিয়ো নিজেদের ওয়েবসাইটে দিয়ে দিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। এটাই কিছুতে মানতে পারছেন না অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার।

'দ্য সিডনি মর্নিং হেরাল্ড' -এর মতে, ক্রিকেট ওয়েবসাইটে পোস্ট করা একটি ভিডিয়ো নিয়ে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচের পর ল্যাঙ্গার এবং অস্ট্রেলিয়া দলের ম্যানেজার গেভিন ডোভির মধ্যে তর্ক হয়েছিল। বাংলাদেশ পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ৪-১ ব্যবধানে জিতেছে। 'দ্য সিডনি মর্নিং হেরাল্ড' –এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডোভি প্রাথমিকভাবে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ডিজিটাল কর্মীদের কাছে বিষয়টি জানিয়েছিলেন। কিন্তু যখন তিনি রাজি হননি, তখন বিষয়টি বেড়ে যায় এবং ল্যাঙ্গার স্টাফ মেম্বারের উপর ক্ষুব্ধ হন। ডোভি যুক্তি দিয়েছিলেন যে সিএ -এর ওয়েবসাইটে বাংলাদেশ দলের ভিডিয়ো পোস্ট করা অনুচিত। ঘটনাটি কমপক্ষে এক ডজন লোক প্রত্যক্ষ করেছিল এবং কিছু খেলোয়াড় এতে অস্বস্তিতে পড়ে গিয়েছিল।

ল্যাঙ্গার এই বিষয়ে মন্তব্য করেননি। কিন্তু ডোভি বলেন, ‘একটি সুস্থ দলের পরিবেশের মধ্যে রয়েছে সৎ এবং অকপট আলোচনা।’ খেলোয়াড়, সাপোর্ট স্টাফ বা দলের সাথে যুক্ত অন্যান্য লোকের মধ্যেই হোক না কেন, যেমনটি ঘটেছে এই ক্ষেত্রে। এখানে মতভেদ ছিল এবং আমরা একটি বিষয়ে দ্বিমত পোষণ করেছি। যাই হোক, এটি সবার সাথে হওয়া উচিত ছিল না। আমি এর পুরো দায়িত্ব নিচ্ছি।

বন্ধ করুন