বাংলা নিউজ > ময়দান > Australia A vs India-শেষ দিনে নির্বিষ বোলিং ভারতের, সহজেই ম্যাচ ড্র করল অজিরা
ম্যাকডারমট ও উইল্ডারমুথ
ম্যাকডারমট ও উইল্ডারমুথ

Australia A vs India-শেষ দিনে নির্বিষ বোলিং ভারতের, সহজেই ম্যাচ ড্র করল অজিরা

  • প্রথমে সাফল্য পেলেও সেটা দীর্ঘস্থায়ী হল না

প্রথম ইনিংসের থেকে সম্পূর্ণ অন্য ছন্দে খেলে ভারতীয় বোলারদের রীতিমত শিক্ষানবিশের পর্যায় নামিয়ে আনলেন অজি তরুণরা। বেন ম্যাকডারমট ও জ্যাক উইল্ডারমুথের জোড়া সেঞ্চুরির দৌলতে সহজেই তিন দলের গোলাপি বলের অনুশীলন ম্যাচটি ড্র করল অজি এ দল। এদিন ৭৫ ওভার শেষে তারা করে ৩০৭-৪, যখন দুই দলই মেনে নেয় খেলা শেষ করার প্রস্তাব।

অথচ এদিন শুরুটা ভালো হয়েছিল ভারতের। কিন্তু যতই দিন গেল নির্বিষ হয়ে গেল ভারতীয় বোলিং। তৃতীয় দিনের প্রথম সেশনে তিনটি উইকেট তুলে নেয় ভারত। দ্বিতীয় দিনের শেষ ওভারে ২২ রান করে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ঋষভ পন্থ। স্বাভাবিকভাবেই আর তৃতীয় দিনে ব্যাটিং না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাহানের দল। অস্ট্রেলিয়া এ দলকে ৯০ ওভারে ৪৭৩ রানের টার্গেট দিয়েছে ভারত।

নির্বাচকদের চিন্তা বাড়িয়ে শুরুতেই আউট হন দুই ওপেনার মার্কাস হ্যারিস ও জো বার্নস। বার্নস ১ রান করে এলবি ও হ্যারিস ৪ রান করে ক্যাচ আউট হয়েছেন। দুই ক্ষেত্রেই বোলার মহম্মদ শামি। কিছুটা হলেও ছন্দে ছিলেন নিক ম্যাডিলসন। কিন্তু ব্য়ক্তিগত ১৪ রানের মাথায় পয়েন্টে সিরাজের বলে সাইনির হাতে ক্যাচ দিয়ে বসেন তিনি।

২৫ রানে তিন উইকেট পড়ে যাওয়ার পর মনে হচ্ছিল ফের না ধস নামে অজি ব্যাটিংয়ে। কিন্তু তারপরে ইনিংসের রাশ ধরেন অধিনায়ক অ্যালেক্স ক্যারি ও বেন ম্যাকডারমট। চা পানের বিরতিতে ২৫ ওভার শেষে অজিরা করে ৮৯-৩। পরের ৩০ ওভারে দলে করে ১১১ রান ১ উইকেট খুইয়ে। এর মধ্যে বিহারীর বলে ত্যাগীর হাতে আউট হন ক্যারি, ৫৮ রানের মাথায়। তারপরেই খেলা ধরেন বেন ও জ্যাক। ক্রেগ ম্যাকডারমটের ছেলে বেন নিজের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের দ্বিতীয় শতরান করেন। অপর দিকে মারকুটে মেজাজে ছিলেন জ্যাক। 

যেরকম উদ্যম ওয়ার্ম আপ ম্যাচের তৃতীয় তথা শেষ দিন ভারতীয়দের থেকে দেখার প্রত্যাশা ছিল, সেটা পাওয়া গেল না। দ্বিতীয় সেশনে পড়ে মাত্র একটি উইকেট। অজিরাও ওই সেশনে রান করার তেমন চাগাড় দেখায় নি। তৃতীয় সেশনে যদিও দ্রুত রান করে অজিরা। ২০ ওভারে মাত্র এক উইকেট হারিয়ে ১০৭ করে তাঁরা। তার সিংহভাগই করেন জ্যাক উইল্ডারমুথ। গতকালের ঋষভ পন্তের মতো এদিন জ্যাক ঝোড়ো ইনিংস খেলেন। তিনি করেন অপরাজিত ১১৯ বলে ১১১, ১২ টি চার ও তিনটি ছয়ের সহযোগে। অপর প্রান্তে বেন ম্যাকডারমট অপরাজিত থাকেন ১০৭ রানের ১৬টি চারের সহযোগে।

এদিন প্রথম দিকে শামি দুটি উইকেট নেন। বুমরাহ উইকেট না পেলেও ব্যাটারদের বেগ দিয়েছেন ১৩ ওভার বল করে। কিন্তু সম্পূর্ণ ব্যর্থ নভদীপ সাইনি। ১৬ ওভারে কোনও উইকেট না পেয়ে ৮৭ রান দেন তিনি। আঁটোসাটো বল করেছেন সিরাজও। এদিন তিন পার্টটাইমার স্পিনার বিহারী, মায়াঙ্ক ও পৃথ্বী হাত ঘোরান ভারতের জন্য। যার মধ্যে বিহারী একটি উইকেটও পান।  

মোটের ওপর এই ম্যাচের প্রাপ্তি বলতে শুভমন গিল, হনুমা বিহারী ও ঋষভ পন্তের ব্যাটিং। চিন্তা থাকবে পৃথ্বি শ-কে নিয়ে। উইকেটে সুইং থাকলে যেভাবে ভারতীয়রা ব্যাটিংয়ে প্রতিরোধ গড়তে ব্যর্থ হয়েছিলেন, সেটাও উদ্বেগজনক। উইকেটে সাহায্য না পেলে যেভাবে ভারতীয় বোলাররা শেষ দিনে উইকেট পেতে ব্যর্থ হলেন সেটাও কোহলি ও শাস্ত্রীর কপালে ভাঁজ ফেলবে অ্যাডিলেড টেস্টের আগে। 

বন্ধ করুন