বাংলা নিউজ > ময়দান > তাণ্ডব ওয়াটসন-ডাঙ্ক-হজের, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে উড়ে গেল ইংল্যান্ড লেজেন্ডস

তাণ্ডব ওয়াটসন-ডাঙ্ক-হজের, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে উড়ে গেল ইংল্যান্ড লেজেন্ডস

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে উড়ে গেল ইংল্যান্ড লেজেন্ডস। ছবি টুইটার

অজি অধিনায়ক শেন ওয়াটসন আজ প্রথম থেকেই মারকুটে মেজাজে ব্যাটিং করছিলেন। আর সতীর্থ বেন ডাঙ্ক তো যেন এদিন ছিলেন খুনে মেজাজে। ব্যাট করতে নেমে প্রথম থেকেই চালিয়ে খেলতে শুরু করেন তিনি। তার মারকাটারি ব্যাটিংয়ের চোটে তখন ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি অবস্থা ইংল্যান্ড দলের বোলারদের।

শুভব্রত মুখার্জি: রায়পুরে রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজের ২০তম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া লেজেন্ডস এবং ইংল্যান্ড লেজেন্ডস এই দুই দল। ম্যাচে শেন ওয়াটসনের নেতৃত্বাধীন অস্ট্রেলিয়া দল কার্যত খড়কুটোর মতো উড়িয়ে দিল ইয়ান বেলের নেতৃত্বাধীন ইংল্যান্ড দলকে। শহিদ বীর নায়ায়ণ সিং আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে উপস্থিত ক্রিকেট ভক্তরা এদিন সাক্ষী থাকল অজি দলের মারকাটারি ব্যাটিংয়ের।

অজি অধিনায়ক শেন ওয়াটসন আজ প্রথম থেকেই মারকুটে মেজাজে ব্যাটিং করছিলেন। আর সতীর্থ বেন ডাঙ্ক তো যেন এদিন ছিলেন খুনে মেজাজে। ব্যাট করতে নেমে প্রথম থেকেই চালিয়ে খেলতে শুরু করেন তিনি। তার মারকাটারি ব্যাটিংয়ের চোটে তখন ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি অবস্থা ইংল্যান্ড দলের বোলারদের। আর ডাঙ্কের দেখানো পথেই যেন কার্যত হাটলেন আরেক সতীর্থ ব্র্যাড হজ। এই ত্রয়ীর বেদম প্রহারে ১৩.৪ ওভারেই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছে যায় অজিরা। অস্ট্রেলিয়ার সামনে জয়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১৬১ রানের। ডুলানকে নিয়ে অজিদের হয়ে ইনিংস ওপেন করেন ওয়াটসন। ৫.১ ওভারেই স্কোরবোর্ডে উঠে যায় ৫৭ রান। ব্যক্তিগত ১১ রানে আউট হন ডুলান। ২৬ বলে ৪৭ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ওয়াটসন। এরপরেই ব্যাট হাতে তাণ্ডব শুরু করে দেন ডাঙ্ক। মাত্র ১৩ বলে ৪২ রান করে আউট হন তিনি। তার ইনিংসে ছিল ৩টি চার ও চারটি ছয়। স্ট্রাইক রেট ছিল ৩২৩.০৭।

ডাঙ্ক আউট হওয়ার পরে তার অসমাপ্ত কাজ যেন শেষ করেন ব্র্যাড হজ। ১৬ বলে ৩৩ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলে অপরাজিত থেকে যান। তার ইনিংস সাজানো ছিল ২টি চার ও ৩টি ছয়ে। ফলে মাত্র চার উইকেট হারিয়ে ১৩.৪ ওভারেই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছে যায় অস্ট্রেলিয়া। এদিন প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬০ রান করেছিল ইংল্যান্ড দল। ওপেনার ফিল মাস্টার্ড ২৪ বলে ৩৪ রানের একটি দ্রুতগতির ইনিংস উপহার দেন। অপর ওপেনার দিমিত্র মাসকারেনহাস করেন ১৯ রান।

ড্যারেন ম্যাডি ২৩ বলে ৩৪ রানের একটি ঝোড়ো ইনিংস খেলেন। এছাড়া ১১ বলে ১৮ রান করেন রিকি ক্লার্ক। ইংল্যান্ডের ইনিংসে অর্ধশতরান করতে পারেননি একজন ব্যাটারও। আর সেটা হলে তাদের রান সংখ্যা আরও বাড়তে পারত। অজিদের হয়ে ন্যাথান রিয়ারডন এবং জেসন ক্রেজা দুটি করে উইকেট নেন। আর ইংল্যান্ডের হয়ে ৩০ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন স্টিফেন প্যারি। তবে শেষ রক্ষা তিনি করতে পারেননি। ফলে ৬ উইকেটে সহজ জয় তুলে নেয় অস্ট্রেলিয়া লেজেন্ডস দল।

বন্ধ করুন