বাংলা নিউজ > ময়দান > WTC Final-এ ভারতের হারের ব্যাখ্যা দিয়ে বিরাটদের পাশে দাঁড়ালেন অস্ট্রেলিয়ার সহকারী কোচ
বিশ্ব টেস্ট চ্যা্ম্পিয়নশিপের ভারতীয় দলের অনুশীলন চলছে (ছবি: গুগল)
বিশ্ব টেস্ট চ্যা্ম্পিয়নশিপের ভারতীয় দলের অনুশীলন চলছে (ছবি: গুগল)

WTC Final-এ ভারতের হারের ব্যাখ্যা দিয়ে বিরাটদের পাশে দাঁড়ালেন অস্ট্রেলিয়ার সহকারী কোচ

  • বিরাটের ভারতের পাশে দাঁড়ালেন ভারতের প্রাক্তন অলরাউন্ডার এবং বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া দলের সহকারী কোচ শ্রীধরণ শ্রীরাম।

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারতের বিশ্রি হারের পর থেকে সমালোচনার ঝড় বয়ে চলেছে। বিরাট কোহলিদের পারফরম্যান্স নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বিরাটের ভারতের পাশে দাঁড়ালেন ভারতের প্রাক্তন অলরাউন্ডার এবং বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া দলের সহকারী কোচ শ্রীধরণ শ্রীরাম। তাঁর মতে, সকলে মিলে ভারতের হারের সমালোচনা করছে ঠিকই, তবে শেষ এক বছর ধরে করোনা পরিস্থিতিতে ভারতের লড়াইটা কেউ মনে রাখেনি।

এক সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময়ে শ্রীরাম বলেছেন, 'এটা খুবই ক্লোজ টেস্ট ম্যাচ ছিল। আমার মনে হয় ইংল্যান্ডের আবহাওয়া, পরিস্থিতির সঙ্গে খুব ভাল ভাবে মানিয়ে নিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। কারণ ওরা বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের আগে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দু'টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছিল। যে কারণে ওরা ইংল্যান্ডের আবহাওয়ায় খেলতে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছিল। কিন্তু কেউই ভারতের প্রায় শেষ এক বছরের কঠিন লড়াইটা নোটিশই করেনি।'

এর সঙ্গেই শ্রীরাম যোগ করেছেন, 'দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত ২০২০ আইপিএল থেকে যাত্রা শুরু হয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেটারদের। সেখানে জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকার পর সোজা অস্ট্রেলিয়ায় চার মাসের সফরে গিয়েছিল ভারতীয় দল। সেখানেও জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকতে হয়েছিল ভারতের ক্রিকেটারদের। দেশে ফেরার পর ৫ দিনের মধ্যেই আবার ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলা থাকায় প্রায় দু'মাসের জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকতে হয়েছে বিরাট কোহলিদের। সেখান থেকে আবার ২০২১ আইপিএলের বলয়ে ঢুকে পড়তে হয়েছিল। তার পরে ইংল্যান্ড সফরের জন্য মুম্বইয়ে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টানের পর  ফের ইংল্যান্ডে আবার কোয়ারেন্টাইন কাটাতে হয়েছে। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পর ভারত আবার পাঁচ টেস্টের সিরিজ খেলবে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে।'

অস্ট্রেলিয়ার সহকারী কোচ আরও বলেছেন, 'শেষ ১২ মাস ভারতীয় ক্রিকেটাররা খুব কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে গিয়েছে। উল্টোদিকে নিউজিল্যান্ডের ভাগ্য অনেক ভাল। কারণ ওদের দেশে সে ভাবে কোভিড সংক্রমণ নেই। ওরা অনেক বেশি মানসিক দিক থেকে মুক্ত ছিল। বাইরে খেলতে পেরেছে, প্র্যাক্টিস করতে পেরেছে, ঘরোয়া ক্রিকেটে খোলা মনে অংশ নিতে পেরেছে। ওরা অনেক খোলামেলা ভাবে এই টেস্টের প্রস্তুতি নিতে পেরেছে। যেটা ভারত পারেনি।'

বন্ধ করুন