বাংলা নিউজ > ময়দান > Australia vs India: ভারত-অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় টেস্টে বিশেষ মেডেল পাবেন ম্যাচের সেরা, কারণ জানেন?
এই মেডেল পাবেন ম্যাচের সেরা। (ছবি সৌজন্য কলকাতা নাইট রাইডার্স)
এই মেডেল পাবেন ম্যাচের সেরা। (ছবি সৌজন্য কলকাতা নাইট রাইডার্স)

Australia vs India: ভারত-অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় টেস্টে বিশেষ মেডেল পাবেন ম্যাচের সেরা, কারণ জানেন?

  • নয়া উদ্যোগ নিল অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড।

অস্ট্রেলিয়ায় ক্রিকেটের অন্যতম প্রবর্তককে সম্মান জানাতে বিশেষ উদ্যোগ নিল সেদেশের ক্রিকেট বোর্ড। এবার থেকে বক্সিং ডে টেস্টের সেরা খেলোয়াড়কে বিশেষ ‘জনি মুলাঘ মেডেল’ প্রদান করা হবে। ভারত-অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট থেকেই সেই নয়া উদ্যোগ চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

প্রতি বছর বক্সিং ডে টেস্টের সেরা খেলোয়াড়দের সেই পুরস্কার প্রদান করা হবে। খেলাধুলোর ক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম তারকা তথা আদি জনজাতির ক্রিকেটার জনি মুলাঘকে সম্মান জানিয়ে সেই মেডেলের নামকরণ করা হয়েছে। যিনি ১৮৬৮ সালে আদি অস্ট্রেলিয়া দল ‘অ্যাবঅরিজিনাল’-এর অধিনায়ক হিসেবে ইংল্যান্ড সফরে গিয়েছিলেন। যে সফর অস্ট্রেলিয়ার ক্রীড়াজগতে ইতিহাস রচনা করেছিল। কারণ সেই প্রথম অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড়দের কোনও গোষ্ঠী সংঘবদ্ধভাবে বিদেশে খেলতে গিয়েছিল। স্বভাবতই অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটের ইতিহাসেও সেই সফর স্বর্ণাক্ষরে খোদাই করা আছে।

মুলাঘের প্রকৃত নাম অবশ্য উনার্রিমিন। তিনি বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী ছিলেন। ব্যাটিং, বোলিংয়ে তাঁর দক্ষতায় রীতিমতো মুগ্ধ হয়েছিলেন ইংরেজরা। শুধু তাই নয়, উইকেট রক্ষাও করতেন। ছ'মাসে ‘অ্যাবঅরিজিনাল’ দল যে ৪৭ টি ম্যাচ খেলেছিল, তার মধ্যে ১৪ টি ম্যাচে জিতেছিল। ১৪ টি ম্যাচে হারের মুখ দেখতে হয়েছিল। ১৯ টি ম্যাচ অমীমাংসিত ছিল। যে ৪৫ টি ম্যাচে খেলেছিলেন, তাতে সবমিলিয়ে ১,৬৯৮ রান করেছিলেন মুলাঘ। উইকেট নিয়েছিলেন ২৪৫ টি। সঙ্গে চারটি স্টাম্পিংও করেছিলেন।

অস্ট্রেলিয়ার প্রথম তারকার বিষয়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে ড্যান ক্রিশ্চিয়ান বলেন, ‘সেই সফরে উনি সবকিছু করেছিলেন। উনি অধিনায়ক ছিলেন। উনি উইকেট নিয়েছিলেন। কয়েকটি ম্যাচে উইকেটরক্ষাও করেছিলেন।’ একইসঙ্গে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে কাজ করেছিলেন মুলাঘ। ১৮৮৬ সালের বক্সিং ডে টেস্টেও খেলেছিলেন। 

সেই সূত্র ধরেই প্রতি বছর বক্সিং ডে টেস্টের সেরা খেলোয়াড়কে ‘জনি মুলাঘ মেডেল’ দেওয়া হবে। মেডেলে ‘অ্যাবঅরিজিনাল’ দলের ছবি থাকবে। চারপাশে থাকবে সোনালি ফ্রেম। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার আশা, অস্ট্রেলিয়ান ফুটবল লিগে যেমন নর্ম স্মিথ মেডেল গুরুত্বপূর্ণ, সেরকমভাবেই ‘জনি মুলাঘ মেডেল’ বিবেচিত হবে।

বন্ধ করুন