বাংলা নিউজ > ময়দান > Australia vs India: ১২ বছরে কখনও হয়নি, ২০২০ সালে সেটাও দেখতে হল কোহলিকে!
বিরাট কোহলি। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)
বিরাট কোহলি। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)

Australia vs India: ১২ বছরে কখনও হয়নি, ২০২০ সালে সেটাও দেখতে হল কোহলিকে!

  • অ্যাডিলেড ওভালে ভারত অস্ট্রেলিয়ার কাছে আট উইকেটে লজ্জাজনক হারের সম্মুখীন হয়েছে।

শুভব্রত মুখার্জি

অ্যাডিলেড ওভালে ভারত অস্ট্রেলিয়ার কাছে আট উইকেটে লজ্জাজনক হারের সম্মুখীন হয়েছে। দ্বিতীয় ইনিংসের তৃতীয় দিনের প্রথম ঘণ্টাতেই ভারতীয় ব্যাটিংয়ের মেরুদণ্ড ভেঙে দেন অজি বোলাররা। চেতেশ্বর পূজারা, বিরাট কোহলি-সহ গোটা ভারতীয় দল ২২ গজে নেমেছেন আর প্যাভিলিয়নে ফিরে গিয়েছেন পরক্ষণেই। যদিও অ্যাডিলেডের পিচে সেরকম কোন জুজু ছিল না, তাও ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের দেখে মনে হয়নি কেউ ক্রিজে টিকে থাকার মানসিকতা নিয়ে ২২ গজে ব্যাট করতে নামছেন। আপাতত চার ম্যাচের সিরিজে ভারত ১-০ ফলে পিছিয়ে। আর এই টেস্টের পরে বাকি টেস্টগুলিতে অধিনায়ক বিরাটকেও পাবে না তাঁরা। কারণ পিতৃত্বকালীন ছুটির কারণে বিরাট কোহলি দেশে ফিরতে চলেছেন।

বলা বাহুল্য, যে উচ্চমান তৈরি করেছেন বিরাট, তাঁর ধারেকাছেও পৌঁছাননি। এই টেস্টে যদি তিনি শতরান করতে পারতেন, তাহলে অধিনায়ক হিসেবে শতরান করার দিক দিয়ে পিছনে ফেলতে পারতেন কিংবদন্তি রিকি পন্টিংকে। কিন্তু তা আর সম্ভবপর হয়নি। কারণ প্রথম ইনিংসে অত্যন্ত ভালো খেলেও আজিঙ্কা রাহানের ভুলে ৭৪ রানে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরতে হয় তাঁকে। তবে যেভাবে খেলছিলেন, তাতে বলাই যায় রান আউট হয়ে শতরানটা মাঠে ফেলে এলেন। দ্বিতীয় ইনিংসে অবশ্য তাকে ইংল্যান্ডের 'পুরনো রোগে' ভর করার ফলে প্রায় ষষ্ঠ স্টাম্পের বল তাড়া করে খোঁচা দিয়ে আউট হন তিনি।

এই প্রসঙ্গে বলা যেতে পারে, বিরাটের মতো একজন এই মুহূর্তে বিশ্ব শ্রেষ্ঠ ব্যাটসম্যানের কাছে ব্যাট হাতে একেবারে খারাপ সময় গেল চলতি বছর। ফলে ২০০৮ সালের পরে এই প্রথম বিরাট কোহলিকে একটি ক্যালেন্ডার বর্ষ শেষ করতে হল একটিও আন্তর্জাতিক শতরান ছাড়া।

এই বছরে করোনাভাইরাসের কারণে যদিও বিরাট মাত্র ন'টি একদিনের ম্যাচ, তিনটি টেস্ট এবং ১০ টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন। আইপিএলে এবার খেলেছেন মাত্র তিনটি অর্ধশতরান করেছেন। ১৫ ম্যাচে তাঁর সর্বোচ্চ রান ৯০।

বন্ধ করুন