বাড়ি > ময়দান > শেষ ছয় ওভারে ব্যাটিং বিপর্যয়, টি-টোয়েন্টি সিরিজ হাতছাড়া ভারতীয় মহিলা দলের
কাজে এল স্মৃতি মন্দনার লড়াকু ৬৬ রানে ইনিংস (গেটি ইমেজ)
কাজে এল স্মৃতি মন্দনার লড়াকু ৬৬ রানে ইনিংস (গেটি ইমেজ)

শেষ ছয় ওভারে ব্যাটিং বিপর্যয়, টি-টোয়েন্টি সিরিজ হাতছাড়া ভারতীয় মহিলা দলের

  • শেষ ছয় ওভারে ভারতীয় প্রমীলা বাহিনীর ব্যাটিং বিপর্যয়ে, হাত ছাড়া ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের ট্রফি। ফাইনালে ১১ রানে অজিদের কাছে হারল টিম ইন্ডিয়া।

তীরে এসে তরী ডুবল ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের। ত্রিদেশীয় সিরিজে ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ১১ রানে হারের মুখ দেখল ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দল। যা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে যা বড় ধাক্কা হরমনপ্রীতদের। অস্ট্রেলিয়ার তরফে রাখা ১৫৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ১৪৪ রানেই গুটিয়ে গেল ভারতের ইনিংস। স্মৃতি মন্দানার লড়াকু অর্ধশতরান(৬৬) কাজে এল না টিম ইন্ডিয়ার। অস্ট্রেলিয়ার জয়ের কান্ডারি অল রাউন্ডার জেস জোনাসেন। এদিন মেলবোর্নের ২২ গজে জোনাসেনর ঘূর্ণির জবাব ছিল না ভারতীয় ব্যাটসওম্যানদের কাছে। মাত্র ১২ রান দিয়ে ৫ উইকেট তুলে দেন জোনাসেন। ম্যাচের সেরা নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

একটা সময় ভারতের জয় কার্যত নিশ্চিত ছিল। কিন্তু শেষ ছয় ওভারে খেলা ঘুরিয়ে দিলেন জোনাসেন। শেষ ছ ওভারে ভারতের জয়ের জন্য ৪৫ রান প্রয়োজন ছিল। সেই সময় ক্রিজে ছিলেন স্মৃতি ও অধিনায়ক হরমনপ্রীত, কিন্তু স্মৃতি আউট হওয়ার পরই ভারতীয় প্রমীলা বাহিনীর ব্যাটিং বিপর্যয় নেমে আসে। ১১৫/৩ উইকেট থেকে ১৪৪ রানে গুটিয়ে যায় টিম ইন্ডিয়া।


এদিন মেলবোর্নের জংশন ওভালে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় অজিরা। ব্যাট হাতে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সর্বোচ্চ ৭১ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন বেথ মুনি। ইনিংস শেষেও অপারজিত ছিলেন মুনি। তাঁর ইনিংসের সুবাদেই নির্ধারিত ২০ ওভারে মাত্র ৫ উইকেট হারিয়ে ১৫৫ রান তোলে অস্ট্রেলিয়া। । টিম ইন্ডিয়ার হয়ে ২টি করে উইকেট নেন দীপ্তি শর্মা ও রাজেশ্বরী গায়েকোয়াড়। এবং অপর উইকেটটি নেন অরুন্ধুতি রেড্ডি।

যদিও এই হারের রেশ ভুলে টিম ইন্ডিয়ার পাখির চোখ এখন বিশ্বকাপের দিকে, চলতি মাসের ২১ তারিখ অস্ট্রেলিয়াতে শুরু হচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। প্রথম ম্যাচে সিডনিতে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি ভারত।



বন্ধ করুন