বাংলা নিউজ > ময়দান > দ্রুত ৩ উইকেট হারিয়েও ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে নয়া নজির বাবর আজম-ফাওয়াদ আলম জুটির
বাবর আজম-ফাওয়াদ আলম জুটির নয়া নজির।
বাবর আজম-ফাওয়াদ আলম জুটির নয়া নজির।

দ্রুত ৩ উইকেট হারিয়েও ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে নয়া নজির বাবর আজম-ফাওয়াদ আলম জুটির

  • ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে একই রানে অর্থাৎ দলের স্কোর যখন ২ রান, তখন পরপর ৩ উইকেট হারিয়ে বসেছিল পাকিস্তান। সেখান থেকে বাবর আজম এবং ফাওয়াদ আলম জুটি ১৫৮ রানের পার্টনারশিপ গড়ে। আর এটাই হয়ে যায় নতুন নজির। একই রানে ৩ উইকেট হারানোর পরেও সর্বোচ্চ রানের পার্টনারশিপের নজির।

একেবারে দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া পরিস্থিতি থেকে ঘুরে দাঁড়িয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট টিম। আর সেখান থেকেই নতুন নজির গড়ে ফেলেছেন বাবর আজম এবং ফাওয়াদ আলম। একই রানে ৩ উইকেট হারানোর পরেও, সর্বোচ্চ রানের পার্টনারশিপ গড়ে ফেলেছেন এই দুই ক্রিকেটার।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে একই রানে অর্থাৎ দলের স্কোর যখন ২ রান, তখন পরপর ৩ উইকেট হারিয়ে বসেছিল পাকিস্তান। সেখান থেকে বাবর আজম এবং ফাওয়াদ আলম জুটি ১৫৮ রানের পার্টনারশিপ গড়ে। আর এটাই হয়ে যায় নতুন নজির। একই রানে ৩ উইকেট হারানোর পরেও সর্বোচ্চ রানের পার্টনারশিপের নজির।

এর আগে ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বাংলাদেশের তামিম ইকবাল এবং শাকিব আল হাসান গড়েছিলেন ১৫৫ রানের পার্টিনারশিপ। একই রানে ৩ উইকেট হারানের পরে, এটাই ছিল এত দিন সর্বোচ্চ রানের পার্টনারশিপের নজির। এই তালিকায় এর পরে রয়েছেন পাকিস্তানেরই ফাকর জামন এবং সরফরাজ আহমেদ। এই জুটি ২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ১৪৭ রানের পার্টনারশিপ গড়েছিল।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনেই কেমার রোচের দাপটে বেকায়দায় পড়ে গিয়েছিল পাকিস্তান। মাত্র ২ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বসেছিল তারা। সেখান থেকে বাবর আজম এবং ফাওয়াদ আলমের ১৫৮ রানের পার্টনারশিপ পাকিস্তানকে কিছুটা হলেও নির্ভরতা দেয়। যে কারণে প্রথম দিনের শেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২১২ রান। প্রসঙ্গত, ফাওয়াদ আলম 'রিটায়ার্ড হার্ট' হয়েছেন।

পাকিস্তানের দুই ওপেনার আবিদ আলি (১) এবং ইমরান বাট (১) দ্রুত সাজঘরে ফেরেন। মাঝে অবশ্য তিনে নেমে আজহার আলি শূন্য করে প্যাভিলিয়নে ফিরে গিয়েছিলেন। এই পরিস্থিতিতে ফাওয়াদ আলমকে সঙ্গে নিয়ে দলের হাল ধরেন পাক অধিনায়ক বাবর আজম। চতুর্থ উইকেটে তাঁরা ১৫৮ রান যোগ করেন। ৭৬ রান করে 'রিটায়ার্ড হার্ট' হন ফাওয়াদ আলম। আর বাবর আজম ৭৫ রান করে আউট হন। এখন ক্রিজে রয়েছেন মহম্মদ রিজওয়ান (২২) এবং ফাহিম আশরফ (২৩)।

বাবর আজম সহ মোট ৩ উইকেট নিয়েছেন কেমার রোচ। জয়ডেন সিলস ১ উইকেট নিয়েছেন। তবে দ্বিতীয় দিনের শুরু থেকে ফের ক্যারিবিয়ানদের আগুনে বোলিংয়ের মুখোমুখি হতে হবে পাকিস্তানকে। দ্বিতীয় দিন স্কোরবোর্ডে তারা কতটা রান যোগ করতে পারে, সেটা কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হবে। এ দিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ চাইবে, দিনের শুরুতেই পাকিস্তানকে গুড়িয়ে দিতে।

বন্ধ করুন