বাংলা নিউজ > ময়দান > ICC সুপার লিগে সব থেকে বেশি রান করেছেন বাবর আজম, তবে তাঁর দল পাকিস্তানকে দেখাচ্ছে বেকায়দায়
বাবর আজম। ছবি- আইসিসি।
বাবর আজম। ছবি- আইসিসি।

ICC সুপার লিগে সব থেকে বেশি রান করেছেন বাবর আজম, তবে তাঁর দল পাকিস্তানকে দেখাচ্ছে বেকায়দায়

  • ICC মেনস ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগে সব থেকে বেশি রান সংগ্রহকারী ও সর্বোচ্চ উইকেটশিকারিদের সেরা পাঁচের তালিকায় চোখ রাখুন। দেখে নিন পয়েন্ট টেবিলও।

২০২৩ আইসিসি বিশ্বকাপে সরাসরি যোগ্যতা অর্জন করার লক্ষ্যে লড়াই চালাচ্ছে ১২টি দল। ১৩ দলের সুপার লিগে অংশ নিলেও ভারত বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ হওয়ায় তাদের যোগ্যতা অর্জনের ঝামেলায় পড়তে হবে না।

দলগত লড়াইয়ের বাইরেও ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত উৎকর্যতা প্রমাণের আলাদা লড়াইও চলছে সমান্তরালে। আপাতত আইসিসি মেনস ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগে সব থেকে বেশি রান সংগ্রহকারীদের তালিকার শীর্ষে রয়েছেন পাক দলনায়ক বাবর আজম। যদিও তাঁর দল লিগ টেবিলে সুবিধাজনক জায়গায় নেই মোটেও।

সুপার লিগে যুগ্মভাবে সব থেকে বেশি উইকেট নিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডাম জাম্পা ও আয়ারল্যান্ডের ক্রেগ ইয়ং। দেখে নেওয়া যাক মেনস ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগে সব থেকে বেশি রান সংগ্রহকারী ও সর্বোচ্চ উইকেটশিকারিদের সেরা পাঁচের তালিকা। চোখ রাখা যাক সুপার লিগের পয়েন্ট টেবিলেও।

আরও পড়ুন:- নতুন মরশুমে ঠাসা ক্রীড়াসূচি বাবর আজমদের, প্রশ্ন একটাই, ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড শেষমেশ পাকিস্তান সফরে যাবে তো?

ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগের সেরা পাঁচ রান সংগ্রহকারী:-
১. বাবর আজম (পাকিস্তান): ৯০২
২. পল স্টার্লিং (আয়ারল্যান্ড): ৭৯১
৩. হ্যারি টেকটর (আয়ারল্যান্ড): ৬৩১
৪. তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ): ৬২৪
৫. ইমাম-উল-হক (পাকিস্তান): ৫৯৮

ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগের সেরা পাঁচ উইকেট সংগ্রহকারী:-
১. অ্যাডাম জাম্পা (অস্ট্রেলিয়া): ২৮
২. ক্রেগ ইয়ং (আয়ারল্যান্ড): ২৮
৩. অ্যান্ডি ম্যাকব্রায়ান (আয়ারল্যান্ড): ২৬
৪. শাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ): ২৫
৫. জোস লিটল (আয়ারল্যান্ড): ২৫

আরও পড়ুন:- RR vs MI: টানা ৮ ম্যাচে হারের পরে প্রথম জয়, বাবরের করাচি কিংসের সঙ্গে হুবহু মিলে যাচ্ছে রোহিতদের IPL 2022 অভিযান

আইসিসি মেনস ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগ টেবিল:-
১. বাংলাদেশ: ১৮ ম্যাচে ১২০ পয়েন্ট।
২. ইংল্যান্ড: ১৫ ম্যাচে ৯৫ পয়েন্ট।
৩. ভারত: ১২ ম্যাচে ৭৯ পয়েন্ট।
৪. অস্ট্রেলিয়া: ১২ ম্যাচে ৭০ পয়েন্ট।
৫. আফগানিস্তান: ৯ ম্যাচে ৭০ পয়েন্ট।
৬. আয়ারল্যান্ড: ১৮ ম্যাচে ৬৮ পয়েন্ট।
৭. শ্রীলঙ্কা: ১৮ ম্যাচে ৬২ পয়েন্ট।
৮. নিউজিল্যান্ড: ৬ ম্যাচে ৬০ পয়েন্ট।
৯. পাকিস্তান: ১২ ম্যাচে ৬০ পয়েন্ট।
১০. ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ১৫ ম্যাচে ৫০ পয়েন্ট।
১১. দক্ষিণ আফ্রিকা: ১৩ ম্যাচে ৪৯ পয়েন্ট।
১২. জিম্বাবোয়ে: ১২ ম্যাচে ৩৫ পয়েন্ট।
১৩. নেদারল্যান্ডস: ১০ ম্যাচে ২৫ পয়েন্ট।

বন্ধ করুন