বাংলা নিউজ > ময়দান > ICC Awards: জোরদার লড়াই ছিল শাকিব ও বাবরের মধ্যে, দেখুন শেষমেশ কে জিতলেন আইসিসির বর্ষসেরা ODI ক্রিকেটারের পুরস্কার?
মনোনীত চার ক্রিকেটার। ছবি- আইসিসি।
মনোনীত চার ক্রিকেটার। ছবি- আইসিসি।

ICC Awards: জোরদার লড়াই ছিল শাকিব ও বাবরের মধ্যে, দেখুন শেষমেশ কে জিতলেন আইসিসির বর্ষসেরা ODI ক্রিকেটারের পুরস্কার?

  • আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ান ডে ক্রিকেটারের দৌড়ে ছিলেন পল স্টার্লিং এবং জানেমন মালানও।

আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ান ডে ক্রিকেটারের পুরস্কারের জন্য জোরদার লড়াই ছিল শাকিব আল হাসান ও বাবর আজমের মধ্যে। এমনটা নয় যে, মনোনীত আরও দুই ক্রিকেটার পল স্টার্লিং ও জানেমন মালান খুব একটা পিছিয়ে ছিলেন দৌড়ে। তবে শেষমেশ বাকিদের পিছনে ফেলে খেতাব উঠল পাক অধিনায়কের হাতে। ২০২১ সালের সার্বিক পারফর্ম্যান্সের নিরিখে এবার আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ান ডে ক্রিকেটারের পুরস্কার জিতলেন বাবর।

উল্লেখ্য, এবার আইসিসির বর্ষসেরা পুরস্কারে বাবর আজমের মুকুটে একাধিক রঙিন পালক যোগ হয়। বাবর এবার আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ান ডে ও টি-২০ দলের ক্যাপ্টেন নির্বাচিত হন। যদিও একা পাক দলনায়কই নন, বরং পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের অধিপত্য চোখে পড়ছে আইসিসির বার্ষিক পুরস্কারে। এর আগে মহম্মদ রিজওয়ান জিতেছেন আইসিসির বর্ষসেরা টি-২০ ক্রিকেটারের পুরস্কার। ফতিমা সানার হাতে উঠেছে মেয়েদের বর্ষসেরা উঠতি ক্রিকেটারের খেতাব।

বাবর আজম ২০২১ সালে ৬টি ওয়ান ডে ম্যাচে ৬৭.৫০ গড়ে ৪০৫ রান সংগ্রহ করেন। তিনি সেঞ্চুরি করেন ২টি। অন্যদিকে, বাংলাদেশের তারকা অল-রাউন্ডার শাকিব আল হাসান ২০২১ সালে ৯টি ওয়ান ডে ম্যাচে ৩৯.৫৭ গড়ে ২৭৭ রান সংগ্রহ করেন। হাফ-সেঞ্চুরি করেন ২টি। বল হাতে ১৭.৫২ গড়ে ১৭টি উইকেট নেন।

পল স্টার্লিং ২০২১ সালে ১৪টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে সবথেকে বেশি ৭০৫ রান সংগ্রহ করেন। ব্যাটিং গড় ৭৯.৬৬। তিনি ৩টি সেঞ্চুরি ও ২টি হাফ-সেঞ্চুরি করেন। দক্ষিণ আফ্রিকার জানেমন মালান ২০২১ সালে ৮টি ওয়ান ডে ম্যাচের ৭টি ইনিংসে ৮৪.৮৩ গড়ে ৫০৯ রান সংগ্রহ করেন। সেঞ্চুরি করেন ২টি। হাফ-সেঞ্চুরি করেন ২টি।

বন্ধ করুন