বাংলা নিউজ > ময়দান > পাকাপাকিভাবে বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচের পদে নিযুক্ত হলেন অ্যাশওয়েল প্রিন্স
বাংলাদেশ কোচিং স্টাফের সঙ্গে প্রিন্স (বাঁ-দিকে)। ছবি- বিসিবি।
বাংলাদেশ কোচিং স্টাফের সঙ্গে প্রিন্স (বাঁ-দিকে)। ছবি- বিসিবি।

পাকাপাকিভাবে বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচের পদে নিযুক্ত হলেন অ্যাশওয়েল প্রিন্স

  • অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অবধি প্রিন্সের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে বাংলাদেশ বোর্ড।

সময়টা বেশ ভালই যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। পরপর জিম্বাবোয়ে এবং অস্ট্রেলিয়াকে পরাস্ত করেছে বাংলা টাইগাররা। এবার তাদের দলের ব্যাটংয়ের আরও উন্নতি ঘটাতে দলের ব্যাটিং কোচ হিসাবে পাকাপাকিভাবে দায়িত্ব নিতে চলেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান অ্যাশওয়েল প্রিন্স। 

জিম্বাবোয়ে সফরেই প্রিন্স অস্থায়ী চুক্তিতে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে যুক্ত হয়েছিলেন। বাংলাদেশ বোর্ডের তরফে বলা হয়েছিল পারফরম্যান্সের ওপর ভিত্তি করেই প্রিন্সের চুক্তি পাকা করা হলেও হতে পারে। বাংলাদেশের ভাল পারফরম্যান্সেরই সুফল পেলেন প্রিন্স। পাকাপাকিভাবে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে যুক্ত হওয়ায় দক্ষিণ আফ্রিকার ঘরোয়া দল ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের কোচের পদে ইস্তফা দিয়ে দিয়েছেন তিনি।

কোবরার্সের হয়ে নিজের কোচিং কেরিয়ার শুরু করেন প্রিন্স। সেই দলই ২০১৬-১৭ সালে ভেঙে ওয়েস্টার্ন প্রভিন্স, বোল্যান্ড এবং সাউথ ওয়েস্টার্ন ডিসট্রিক্ট, তিনটি দলে ভাগ হয়ে যায়। তারপরেই ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের দায়িত্ব নেন তিনি। প্রিন্সের অধীনে কোন খেতাব না জিতলেও তাঁর দল থেকে ছয়জন জাতীয় দলের সুযোগ পায়। এটাকেই প্রিন্স ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের কোচ হিসাবে নিজের সবচেয়ে বড় পাওনা বলে মনে করেন। 

তৃতীয় দক্ষিণ আফ্রিকান হিসাবে বাংলাদেশ কোচিং স্টাফের সঙ্গে যুক্ত হলেন স্মিথ। বাংলাদেশের হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো (২০১৩ থেকে ২০১৭ সাল অবধি প্রোটিয়া কোচ) ও বোলিং কোচ ওটিস গিবসন (২০১৭ থেকে ২০১৯ অবধি প্রোটিয়া কোচ), দুই জনেই দক্ষিণ আফ্রিকান। ২০২২ সালের অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অবধি প্রিন্সের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে বাংলাদেশ বোর্ড।

বন্ধ করুন