বাংলা নিউজ > ময়দান > পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নজির গড়ে জয় ছিনিয়ে নিল বাংলাদেশের মেয়েরা
রেকর্ড গড়ে জয় পেল বাংলাদেশ।
রেকর্ড গড়ে জয় পেল বাংলাদেশ।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নজির গড়ে জয় ছিনিয়ে নিল বাংলাদেশের মেয়েরা

  • মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের বাহিনী যখন পাকিস্তানের কাছে দেশের মাটিতে সিরিজ হেরেছেন, ঠিক তখন জয় দিয়ে বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব শুরু করল মেয়েরা। রবিবার হারারেতে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩ উইকেটে এক রুদ্ধশ্বাস জয় ছিনিয়ে নিল বাংলাদেশ। ২০২ রানের জয়ের লক্ষ্য তারা ২ বল বাকি থাকতেই জিতে গেলেন বাংলাদেশের মেয়েরা।

শুভব্রত মুখার্জি: বাংলাদেশের পুরুষ ক্রিকেট দল না পারলেও, মহিলারা কিন্তু সেই কাজটাই করে দেখালেন। নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে নজির গড়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জয় তুলে নিলেন রুমনারা । প্রথম বার বাংলাদেশের মহিলা ক্রিকেটের ইতিহাসে আইসিসির পূর্ণ সদস্য কোন দেশকে বিশ্বকাপের কোয়ালিফায়ারে হারাতে সক্ষম হল তাঁরা।

মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের বাহিনী যখন পাকিস্তানের কাছে দেশের মাটিতে সিরিজ হেরেছেন, ঠিক তখন জয় দিয়ে বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব শুরু করল মেয়েরা। রবিবার হারারেতে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩ উইকেটে এক রুদ্ধশ্বাস জয় ছিনিয়ে নিল বাংলাদেশ। ২০২ রানের জয়ের লক্ষ্য তারা ২ বল বাকি থাকতেই জিতে গেলেন বাংলাদেশের মেয়েরা। এদিন প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে ২০১ রান করে পকিস্তান। ৪৯.৪ ওভারে বাংলাদেশের মেয়েরা সেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায়।

হারারেতে টস জিতে পাকিস্তানকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় বাংলাদেশ। জাভেইরা খানের দল মাত্র ৪৯ রানে পাঁচ উইকেট হারায়। বল হাতে তখন দুরন্ত বোলিং করছেন রিতু মনি–নাহিদা আক্তাররা। নিদা দার এবং আলিয়া রিয়াজের ৬ষ্ঠ উইকেট জুটিতে ঘুরে দাঁড়ায় পাকিস্তান। ১৩৭ রানের জুটি গড়েন দুজন। নিদার অবদান ১১১ বলে ৮৭ আর আলিয়া ৮২ বলে অপরাজিত ৬১ রান করেন। নির্ধারিত ৫০ ওভারে পাকিস্তান ৭ উইকেটে ২০১ রান করতে সক্ষম হয় । রিতু মনি আর নাহিদা ২টি করে উইকেট নেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১০ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মুর্শিদা খাতুন (৯)। এর পর ৭০ রানের জুটি গড়ে দলকে লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে নিয়ে যান আর এক ওপেনার শারমিন আক্তার এবং ফারজানা হক। শারমিন ৩১ এবং ফারজানা ৪৫ রান করেন। দ্রুত দুই উইকেট হারানোর পর পঞ্চম উইকেট জুটিতে রিতু মনি এবং রুমানা জুটি ৬১ রান করে দলকে লড়াইয়ে ফেরান। এর পর ফের দ্রুত দুই উইকেটের পতন ঘটে যায়। ম্যাচ জমে ওঠে। রুমানা এবং সালমা খাতুনের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। রুমানা আহমেদ খেলেন অপরাজিত ৫০ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। তাঁকে যোগ্য সঙ্গত দেন সালমা। তাদের ৪২ রানের জুটিতে ৪৯.৪ ওভারে জয়ের মুখ দেখে বাংলাদেশ। সালমা খাতুন ১৮ রানে অপরাজিত থাকেন। ম্যাচের সেরা হয়েছেন রুমানা আহমেদ।

বন্ধ করুন