বাংলা নিউজ > ময়দান > পেপ গুয়ার্দিওলা, জেরার্ড পিকেদের দেশে এ বার তৈরি হবে ক্রিকেট মাঠ
ক্রিকেট ব্যাট ও বল। ছবি- টুইটার।
ক্রিকেট ব্যাট ও বল। ছবি- টুইটার।

পেপ গুয়ার্দিওলা, জেরার্ড পিকেদের দেশে এ বার তৈরি হবে ক্রিকেট মাঠ

  • ৮২২টি প্রোজেক্টের মধ্যে ক্রিকেট মাঠ তৈরির প্রকল্পেই সবচেয়ে অধিক ভোট দেন বার্সেলোনার জনগণ। 

কিছুদিন আগেই আইপিএলের সময় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের জার্সি হাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি আপলোড করেছিলেন ম্যাঞ্চেস্টার সিটির ম্যানেজার পেপ গুয়ার্দিওলা। জানিয়েছিলেন ক্রিকেটের নিয়ম জানতে আগ্রহী তিনি। এ বার খোদ তাঁর শহর বার্সেলোনাতেই ক্রিকেট মাঠ তৈরির দাবি তুললেন সেখানকার জনগণ।

৩০ মিলিয়নের এক নতুন প্যাকেজে কাতালোনিয়ার জনগণকে সাইকেল চালানোর সরণী, খেলার মাঠসহ মোট ৮২২টি প্রকল্পের মধ্যে থেকে বাছাই করে নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়। দ্য গার্ডিয়ানে প্রকাশিত এক রিপোর্ট অনুযায়ী আধিকারিকদের বেশ খানিকটা চমকে দিয়েই নতুন ক্রিকেট মাঠ গড়ার পক্ষে ভোট দেন সর্বাধিক মানুষ। এই উদ্যোগের মূলে রয়েছেন মহিলারাই।

হিফসা বাট নামক উদ্যোগের সঙ্গে জড়িত এক মহিলা জানান, ‘এ সবকিছুর শুরু হয় তিন বছর আগে যখন আমাদের জিম প্রশিক্ষক স্কুলের সময়ের পর একটা ক্রিকেট ক্লাব গড়ার উপদেশ দেন।’

ওই মহিলা দলের সকলে এক যৌথ বিবৃতিতে লেখেন, ‘প্রোজেক্টের সাথে জড়িত সকলেই মহিলা। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আমরা একটি কাতালান মহিলা ক্রিকেট দল গঠন করতে চাই। ১১ জন খেলোয়াড় ও আসল ক্রিকেট বল দিয়েই আমরা ক্রিকেট খেলতে চাই এবং তার জন্য সিন্থেটিক ঘাসের বদলে প্রয়োজন একটি আসল ক্রিকেট মাঠ।’

মহিলাদের সকলেই ভারতীয় বা পাকিস্তানি বংশোদ্ভুত। খেলা শুরুর সময় ক্রিকেটের নিয়মের বিষয়ে বিশেষ কোন ধারনা না থাকলেও হিফসার বাবা এক সময় পাকিস্তানে ক্রিকেট খেলেছেন এবং তিনি তাঁদের ক্রিকেটের বিভিন্ন বিষয়ে জানান। ক্রিকেট তাঁদের সুরক্ষিত মনে করায় ও নারী অধিকার প্রকাশের সুযোগ দেয় বলেই আরও জানান নাফিসা।

বার্সেলোনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্লাবের সভাপতি ড্যামিয়েন ম্যাকমুলেন জানান কাতালোনিয়ায় প্রায় ২০টি দলে মোট সাতশো জন ক্রিকেটার খেলেন। এ ছাড়াও মাদ্রিদ, ভ্যালেন্সিয়া সহ একাধিক জায়গায়ও ক্রিকেট খেলা হয়। জুলিয়া দে ক্যাপমেনি নামক একটা পাহাড়ে ১.২ মিলিয়ন খরচা করে একটা অ্যাস্ট্রোটার্ফ ক্রিকেট পিচ বানানোর প্রকল্পই সবচেয়ে বেশি ভোট পায়।

বন্ধ করুন