বাংলা নিউজ > ময়দান > BBL 11: অদ্ভুত নিয়ম, ৬ ম্যাচ জিতে বিগ ব্যাশের প্লে-অফে অ্যাডিলেড, ৭টি ম্যাচ জিতেও ছিটকে গেলেন ম্যাক্সওয়েলরা
গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ছবি- বিবিএল।

BBL 11: অদ্ভুত নিয়ম, ৬ ম্যাচ জিতে বিগ ব্যাশের প্লে-অফে অ্যাডিলেড, ৭টি ম্যাচ জিতেও ছিটকে গেলেন ম্যাক্সওয়েলরা

  • ব্যাট হাতে তাণ্ডব চালিয়েও মেলবোর্ন স্টার্সকে প্লে-অফে তুলতে পারলেন না গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

লিগের শেষ ম্যাচে ব্যাট হাতে তাণ্ডব চালান গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। একাই ১৫৪ রান করে বিগ ব্যাশ লিগের ইতিহাসে সর্বকালীন রেকর্ড গড়েন। মেলবোর্ন স্টার্স ২৭৩ রানের রেকর্ড ইনিংস গড়ে। শেষমেশ হবার্ট হ্যারিকেনসের বিরুদ্ধে ১০৬ রানের বড় ব্যাবধানে ম্যাচ জেতে তারা।

এমন ধ্বংসাত্মক ক্রিকেট খেলেও চলতি বিগ ব্যাশ লিগের প্লে-অফে জায়গা করে নিতে পারল না মেলবোর্ন স্টার্স। বরং হেরেও মেলবোর্নকে টপকে পাঁচ দলের প্লে-অফের টিকিট নিশ্চিত করে হবার্ট।

১৪ রাউন্ডের খেলা শেষে শীর্ষে থাকা পারথ স্কর্চার্স ১১টি জয়-সহ সব থেকে বেশি ৪০ পয়েন্ট সংগ্রহ করে। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে থাকা সিডনি সিক্সার্স ও সিডনি থান্ডার, উভয়েরই সংগ্রহ ৩৫ পয়েন্ট করে। দু'দলই ৯টি করে ম্যাচ জিতেছে। অ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্স ৬টি জয়-সহ সংগ্রহ করে ২৮ পয়েন্ট। তারা লিগ টেবিলের চার নম্বরে থেকে প্লে-অফে জায়গা করে নেয়। পঞ্চম দল হিসেবে প্লে-অফে চলে যায় হবার্ট হ্যারিকেনস। তারা ৭টি জয়-সহ ২৭ পয়েন্ট সংগ্রহ করে।

ম্যাক্সওয়েলের মেলবোর্ন স্টার্সও ৭টি ম্যাচ জেতে। তবে তাদের সংগৃহীত পয়েন্ট ২৬। ফলে ম্যাক্সওয়েলদের ছিটকে যেতে হয় টুর্নামেন্ট থেকে। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, বিগ ব্যাশের অদ্ভুত নিয়মের জন্যই অ্যাডিলেড ৬টি ম্যাচ জিতে প্লে-অফে চলে যায়। তারা হেরেছে ৮টি ম্যাচ। অথচ মেলবোর্ন স্টার্স ৭টি ম্যাচ জিতেও ছিটকে যায় লড়াই থেকে।

আসলে বিগ ব্যাশে প্রতিটি ম্যাচ জয়ের জন্য ৩ পয়েন্ট করে দেওয়া হয়। তবে বাড়তি ১ পয়েন্ট সংগ্রহ করা যায় ম্যাচের প্রথম ১০ ওভারে প্রতিপক্ষের থেকে এগিয়ে থাকতে পারলে। দু'দল নিজেদের ইনিংসের প্রথম ১০ ওভারে কত রান সংগ্রহ করে, তার নিরিখেই এক পয়েন্ট দেওয়া হয়। যে দল এগিয়ে থাকে, তাদের খাতায় যায় ১ পয়েন্ট।

সুতরাং, ম্যাচ জিতলে ও সেই সঙ্গে প্রথম ১০ ওভারের সংগৃহীত রানে এগিয়ে থাকলে কোনও দল এক ম্যাচ থেকে ৪ পয়েন্ট সংগ্রহ করতে পারে। তবে হেরে যাওয়া দল যদি প্রথম ১০ ওভারের রানে প্রতিপক্ষের থেকে এগিয়ে থাকে, তবে সেই ম্যাচে জয়ী দল ৩ পয়েন্ট সংগ্রহ করে। হেরে যাওয়া দল পকেটে পোরে ১ পয়েন্ট। ঠিক এভাবেই মেলবোর্ন স্টার্সের থেকে কম ম্যাচ জিতেও বেশি পয়েন্ট সংগ্রহ করে নেয় অ্যাডিলেড।

বন্ধ করুন