বাংলা নিউজ > ময়দান > হঠাৎ ডিউক বলে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলার সিদ্ধান্ত বাংলাদেশে
হঠাৎ ডিউক বলে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলার সিদ্ধান্ত বাংলাদেশে (Reuters)

হঠাৎ ডিউক বলে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলার সিদ্ধান্ত বাংলাদেশে

  • অক্টোবর মাসের ১০ তারিখ থেকে শুরু হওয়ার কথা রয়েছে এই টুর্নামেন্টের। চলবে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত। বিসিবির প্রধান লক্ষ্য জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা যাতে করে এই বলের সঙ্গে নিজেদেরকে মানিয়ে নিতে পারেন।

শুভব্রত মুখার্জি: বিদেশের মাটিতে ভালো খেলাই লক্ষ্য। আর সেই লক্ষ্যেই এবার এক বড়সড় সিদ্ধান্ত নেওয়া হল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের তরফে। দীর্ঘদিন ধরেই টেস্ট ক্রিকেট খেলছে বাংলাদেশ। তবে এখন পর্যন্ত বিদেশের মাটিতে সেইভাবে আসেনি সাফল্য টাইগার বাহিনীর। সদ্য নিউজিল্যান্ডে তারা ঐতিহাসিক টেস্ট জিতলেও সিরিজ জেতা হয়নি তাদের। এবার সেইসব ইতিহাসকেই বদলে ফেলতে বদ্ধপরিকর বিসিবি। ফলে এবার ঘরোয়া ক্রিকেটে ডিউক বলের ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিল তারা। আসন্ন ঘরোয়া মরশুমে ন্যাশনাল ক্রিকেট লিগেই ব্যবহার করা হবে এই ডিউক বল।

অক্টোবর মাসের ১০ তারিখ থেকে শুরু হওয়ার কথা রয়েছে এই টুর্নামেন্টের। চলবে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত। বিসিবির প্রধান লক্ষ্য জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা যাতে করে এই বলের সঙ্গে নিজেদেরকে মানিয়ে নিতে পারেন। বিদেশ সফরের সময়তে তাদের কোনও অসুবিধা না হয়। সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে প্রথমবার ডিউক বলের ব্যবহার করেন টাইগাররা। এই বল ব্যবহার করার ফলে তারা বলটির খুঁটিনাটি পার্থক্য অনুভব করেন। যা তাদের তরফে জানানো হয় বিসিবিকে। তারপরেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বিসিবির তরফে।

বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিনের তরফে ক্রিকবাজকে জানানো হয়েছে 'আমরা এনসিএলে ডিউক বল ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এর কারণ আমাদের ক্রিকেটাররা যাতে এর সঙ্গে নিজেদেরকে মানিয়ে নিতে পারে। এসজি বল এবং ডিউক বলের ফারাক বিরাট। দুই বলের আকার এবং সিমে বিস্তর ফারাক রয়েছে। ফলে এই বলের ব্যবহার করা হবে যাতে করে ভবিষ্যতে আমাদের খেলা থাকলে তা ক্রিকেটারদের সহায়ক হয়।'

বন্ধ করুন