বাংলা নিউজ > ময়দান > বোর্ড প্রেসিডেন্টের পাড়ার পুজো উদ্বোধন করলেন ঝুলন, অবসরের পর উপভোগ করছেন চুটিয়ে

বোর্ড প্রেসিডেন্টের পাড়ার পুজো উদ্বোধন করলেন ঝুলন, অবসরের পর উপভোগ করছেন চুটিয়ে

ঝুলন গোস্বামী।

শুক্রবার বড়িশা প্লেয়ার্স কর্নারের পুজো উদ্বোধন করতে এসেছিলেন। ভারতীয় বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের পাড়ার পুজো। সৌরভও সঙ্গে ছিলেন ঝুলনের। পুজোর উদ্বোধনে গিয়ে ঢাকও বাজালেন ঝুলন। অবসরের পর পুজোতে চুটিয়ে আনন্দ করছেন বাংলার তারকা বোলার।

এক যুগ বাদে ক্রিকেটহীন জীবন। বিপক্ষের ব্যাটারদের আউট করার অঙ্ক কষার ঝামেলা নেই। সিরিজ নিয়ে ভাবনাচিন্তা করার প্রয়োজন নেই। দুর্গাপুজোর সময়ে খেলার জন্য বাইরে যাওয়া নেই। এখন জীবনে প্রচুর সময়ে। তাই অবসরের পর চুটিয়ে এ বার পুজো উপভোগ করছেন ঝুলন গোস্বামী।

আরও পড়ুন: ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে দুরন্ত শতরান, Ranking-এ বড় লাফ হরমনের, এগোলেন স্মৃতি-দীপ্তি

সদ্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন ঝুলন। তাই এ বার কলকাতায় বেশ তাড়িয়ে তাড়িয়েই দুর্গাপুজো উপভোগ করছেন সদ্য প্রাক্তনী। ঝলন গোস্বামী চান, এ বারের দুর্গাপুজোয় বাঙালি প্রাণ খুলে আনন্দ করুক, উৎসব করুক। গত দু’বছর কোভিডের কারণে দুর্গাপুজোয় সে ভাবে আনন্দ করতে পারেননি বাংলার মানুষ। ঝুলন চান, এ বার সেই দুঃখ ভুলে যাক বাঙালি। তবে কোভিডের কথা মাথায় রেখেই আনন্দ করার পরামর্শ ঝুলনের। সে কারণে সবাই যেন সতর্ক থাকেন, সে কথাও বলেছেেন ঝুলন।

আরও পড়ুন: দীপ্তির মতো বিতর্কে জড়িয়েছিলেন কপিলও, দিলেন সহজ সমাধান সূত্র

শুক্রবার বড়িশা প্লেয়ার্স কর্নারের পুজো উদ্বোধন করতে এসেছিলেন। ভারতীয় বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের পাড়ার পুজো। সৌরভও সঙ্গে ছিলেন ঝুলনের। পুজোর উদ্বোধনে গিয়ে ঢাকও বাজালেন ঝুলন। অবসরের পর পুজোতে চুটিয়ে আনন্দ করছেন বাংলার তারকা বোলার। শনিবার তিনি বিবেকানন্দ রোডের তরুণ স্পোর্টিং ক্লাবের পুজোও উদ্বোধন করেছেন তিনি। ক্রিকেট ছেড়ে দিলেও ঝুলনকে ঘিরে আকর্ষণ একটুও কমেনি। আটোগ্রাফ আর সেলফি নেওয়ার আব্দারের সংখ্যাটা বেড়েছে, কমেনি। ঝুলন বলছিলেন, ‘দুর্গাপুজো বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব। এই উৎসবের সঙ্গে আলাদা আবেগ জড়িয়ে থাকে। গত দু’বছর ধরে করোনার জন্য আমরা সবাই খুব কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে গিয়েছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘কোভিডের দুঃসময় আমরা কাটিয়ে উঠেছি ঠিকই, কিন্তু তাই বলে অসতর্ক হলে চলবে না। উৎসব করুন, আনন্দ করুন, কিন্তু কোভিডের কঠিন সময়টাও ভুলে যাবেন না।’

বন্ধ করুন