বাংলা নিউজ > ময়দান > ICC-এর অর্থ আর বাণিজ্যিক প্রধান হলেন জয় শাহ, চেয়ারম্যান থাকলেন বার্কলেই

ICC-এর অর্থ আর বাণিজ্যিক প্রধান হলেন জয় শাহ, চেয়ারম্যান থাকলেন বার্কলেই

জয় শাহ।

বিসিসিআই সচিব জয় শাহকে বোর্ডের সভায় আইসিসির গুরুত্বপূর্ণ পদে বসানো হয়। তাঁকে অর্থ ও বাণিজ্যিক বিষয়ক কমিটির প্রধান হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে। এই কমিটি সমস্ত প্রধান আর্থিক নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে, যা পরে আইসিসি বোর্ড দ্বারা অনুমোদিত হয়।

নিউজিল্যান্ডের গ্রেগ বার্কলেই শনিবার সর্বসম্মতিক্রমে দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। বার্কলে ছাড়াও বিসিসিআই (ক্রিকেট বোর্ড অফ ইন্ডিয়া) সচিব জয় শাহকে বোর্ডের সভায় আইসিসির গুরুত্বপূর্ণ পদে বসানো হয়। তাঁকে অর্থ ও বাণিজ্যিক বিষয়ক কমিটির প্রধান হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে।

আইসিসি-র চেয়ারম্যান হিসেবে বার্কলের মেয়াদ হবে দু'বছরের। জিম্বাবোয়ের তাওয়েংওয়া মুকুহলানি নাম প্রত্যাহার করার পর, বার্কলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।

বার্কলে ফের আইসিসি চেয়ারম্যান হয়ে বলেছেন, ‘চেয়ারম্যান হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলে পুনঃনির্বাচিত হওয়া একটি সম্মানের বিষয় এবং আমাকে এই সমর্থন করার জন্য জন্য আমার সহযোগী আইসিসি পরিচালকদের ধন্যবাদ জানাতে চাই।’

আরও পড়ুন: IPL নিয়ে প্রশ্নে বেজায় অস্বস্তিতে বাবর,ত্রাতা হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়লেন মিডিয়া ম্যানেজার

বার্কলেকে ২০২০ সালের নভেম্বরে আইসিসি চেয়ারম্যান করা হয়। তিনি এর আগে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের চেয়ারম্যান এবং ২০১৫ সালের আইসিসি পুরুষ ক্রিকেট বিশ্বকাপের পরিচালক ছিলেন। তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার অর্থ হল ১৭ সদস্যের বোর্ডে বিসিসিআই (ক্রিকেট বোর্ড অফ ইন্ডিয়া) এর সমর্থনও ছিল।

জয় শাহকে আইসিসির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কমিটির সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এই কমিটি সমস্ত প্রধান আর্থিক নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে, যা পরে আইসিসি বোর্ড দ্বারা অনুমোদিত হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আইসিসি-র একটি সূত্র পিটিআইকে জানিয়েছে, ‘প্রত্যেক সদস্য জয় শাহকে অর্থ এবং বাণিজ্যিক বিষয়ক কমিটির প্রধান হিসেবে মেনে নিয়েছেন। আইসিসি চেয়ারম্যান ছাড়াও এটি একটি সমান শক্তিশালী উপ-কমিটি।’

আরও পড়ুন: শোচনীয় হারের ময়নাতদন্ত করবে BCCI,উত্তর দিতে হবে কোচ-অধিনায়ককে,বাদ যাবেন না কোহলিও

অর্থ এবং বাণিজ্যিক বিষয়ক কমিটি সব সময়ে আইসিসি বোর্ডের একজন সদস্যের নেতৃত্বে থাকে এবং শাহের নির্বাচন স্পষ্ট করেছে যে, বিসিসিআই-এর হয়ে আইসিসি-তে প্রতিনিধিত্ব করবেন জয় শাহ-ই।

এন শ্রীনিবাসনের আমলে এই কমিটির প্রধানের পদ ভারতের হাতেই ছিল। কিন্তু আইসিসি চেয়ারম্যান হিসেবে শশাঙ্ক মনোহরের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর বিসিসিআই-এর ক্ষমতা ব্যাপক ভাবে হ্রাস পায়।

বিসিসিআইয়ের প্রাক্তন সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় গত বছর পর্যন্ত এই কমিটির সদস্য ছিলেন। আইসিসি-র একটি সূত্র জানিয়েছে, ‘ভারত হল বিশ্ব ক্রিকেটের বাণিজ্যিক কেন্দ্র এবং ৭০ শতাংশেরও বেশি স্পনসরশিপ এই অঞ্চল থেকে আসে। তাই আইসিসির ফিনান্স অ্যান্ড কমার্শিয়াল অ্যাফেয়ার্স কমিটি সব সময়s বিসিসিআই-এর সভাপতিত্বে থাকা প্রয়োজন।’

বন্ধ করুন