বাংলা নিউজ > ময়দান > IPL ১০ দলের! তবে ২০২২ থেকে, সিলমোহর পড়তে চলেছে BCCI-এর বার্ষিক সাধারণ সভায়
আইপিএল ট্রফি। ছবি- টুইটার।
আইপিএল ট্রফি। ছবি- টুইটার।

IPL ১০ দলের! তবে ২০২২ থেকে, সিলমোহর পড়তে চলেছে BCCI-এর বার্ষিক সাধারণ সভায়

  • ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগে নতুন দু'টি দল নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হবে বোর্ডের এজিএমে।

বিসিসিআইয়ের বার্ষিক সাধারণ সভায় সিলমোহর পড়তে চলেছে ১০ দলের আইপিএলে। অর্থাৎ, ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগে বাড়তি দু'টি দল নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে ভারতীয় বোর্ড। তবে আগামী মরশুমে নয়, বরং ২০২২ থেকে। এমনটাই খবর বোর্ডের অন্দরমহলে।

আগামী বৃহস্পতিবার আমদাবাদে বসছে বিসিসিআইয়ের বার্ষিক সাধারণ সভা। বৈঠকের অন্যতম আলোচনার বিষয় হল ১০ দলের আইপিএল। এবছর আমিরশাহিতে আইপিএল চলাকালীনই বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও সচিব জয় শাহ আইপিএল চেয়ারম্যান ব্রিজেশ প্যাটেল ও অন্যান্য বোর্ড কর্তাদের সঙ্গে এই নিয়ে প্রাথমিক আলোচনা সেরে রেখেছেন বলে খবর। বোর্ডের এজিএমে এই সিদ্ধান্তে সিলমোহর পড়ার সম্ভাবনা বিস্তর।

যদিও পরের আইপিএলের আগে হাতে নিতান্ত কম সময় থাকায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও এখনই কার্যকর না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। ২০২১-এর আইপিএল ফিরতে চলেছে এপ্রিল-মে মাসের পুরনো উইন্ডোয়। এই অবস্থায় ফেব্রুয়ারি নাগাদ নতুন দল নেওয়া হলে তারা টুর্নামেন্টের জন্য দল গড়ে প্রস্তুতি নেওয়ার মতো পর্যাপ্ত সময় পাবে না।

এক সিনিয়র বোর্ড কর্তা সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বলেন, ‘নতুন দল নেওয়ার প্রক্রিয়া বিস্তর আলোচনা সাপেক্ষ। বেশিরভাগ অংশীদার মনে করছে যে, আইপিএল যদি এপ্রিল মাসে আয়োজিত হয়, তবে মেগা নিলামে দল গড়া থেকে টুর্নামেন্টের জন্য প্রস্তুতি নেওয়ার মতো সময় পাবে না নতুন দল। প্রথমত, টেন্ডার ডাকতে হবে। যদি জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে নতুন দল নেওয়ার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা যায়, তাহলেও নিলামের আগে তাদের সময় দিতে হবে। তখন মার্চের আগে নিলাম আয়োজন সম্ভব হবে না। সুতরাং নতুন দল টুর্নামেন্টের জন্য যথাযথ পরিকল্পনা করার মতো মোটেও সময় পাবে না।’

বন্ধ করুন