বাংলা নিউজ > ময়দান > Wriddhiman Saha-Boria Majumdar: ঋদ্ধিকে হুমকি দেওয়ায় বোরিয়া মজুমদারকে ২ বছরের জন্য ব্যান করল BCCI
ঋদ্ধিমান সাহাকে হুমকি দেওয়ায় দু'বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন সাংবাদিক বোরিয়া মজুমদার। (ফাইল ছবি)
ঋদ্ধিমান সাহাকে হুমকি দেওয়ায় দু'বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন সাংবাদিক বোরিয়া মজুমদার। (ফাইল ছবি)

Wriddhiman Saha-Boria Majumdar: ঋদ্ধিকে হুমকি দেওয়ায় বোরিয়া মজুমদারকে ২ বছরের জন্য ব্যান করল BCCI

Wriddhiman Saha-Boria Majumdar: ঋদ্ধিমান সাহাকে হুমকি দেওয়ায় শাস্তির মুখে পড়লেন সাংবাদিক বোরিয়া মজুমদার। রীতিমতো কড়া অবস্থান নিল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। দু'বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে দেওয়া হল সাংবাদিক বোরিয়াকে।

আগেই ইঙ্গিত মিলেছিল। তাতেই সিলমোহর পড়ল। ঋদ্ধিমান সাহাকে হুমকি দেওয়ায় সাংবাদিক বোরিয়া মজুমদারের উপর দু'বছরের নিষেধাজ্ঞা চাপাল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)।

কী হয়েছিল ঋদ্ধি এবং বোরিয়ার বিষয়টি?

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি রাতের দিকে টুইটারে একটি হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাটের স্ক্রিনশট পোস্ট করেছিলেন ঋদ্ধি। সঙ্গে লিখেছিলেন, 'ভারতীয় ক্রিকেটের প্রতি আমার যাবতীয় অবদানের পর তথাকথিত শ্রদ্ধেয় সাংবাদিকের থেকে এরকম বিষয়ের সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এই পর্যায় নেমে গিয়েছে সাংবাদিকতা।'

আরও পড়ুন: GT vs SRH IPL 2022: ভালো খেললেন ঋদ্ধিমান, চর্চা হল আর একজনকে নিয়ে, উত্তাল হল নেটদুনিয়া

রাত ১০ টা ১৮ মিনিটে এক নম্বর থেকে আসা হোয়্যাটসঅ্যাপ মেসেজে লেখা ছিল, 'আমার সঙ্গে একটা ইন্টারভিউ কর। (তোমার জন্য) ভালো হবে।' এক মিনিট পরেই আরও একটি মেসেজ এসেছে। তাতে বলা হয়েছিল, 'ওরা (বোর্ড) একজন উইকেটকিপার বেছে নিয়েছে, যে সেরা উইকেটকিপার। তুমি ১১ জন সাংবাদিককে বেছে নেওয়ার চেষ্টা করছ, যাঁরা আমার কাছে সেরা নয়। এমন কাউকে বেছে নাও, যে তোমায় সবথেকে বেশি সাহায্য করতে পারবে।' 

রাত ১০ টা ৪৩ মিনিটের একটি মেসেজে বলা হয়েছিল, 'তুমি ফোন করলে না। আমি কখনও তোমার ইন্টারভিউ নেব না। আমি একেবারে সহজে অপমান মেনে নিই না এবং এটা আমি মনে রাখব। এটা তোমার করা উচিত হয়নি।' তারইমধ্যে ঋদ্ধির পোস্ট করা স্ক্রিনশটে সন্ধ্যা ৭ টা ৩০ মিনিটে হোয়্যাটসঅ্যাপ কলের বিষয়টি ধরা পড়েছে। যা মিসড কল হয়ে গিয়েছিল।

সেই ‘হুমকির’ স্ক্রিনশট পোস্ট করলেও কোনও সাংবাদিকের নাম প্রকাশ করেননি ঋদ্ধি। পরে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। জনসমক্ষে কারও নাম না জানালেও বোর্ডের পুরো বিষয়টি খুলে জানিয়েছেন বলে স্পষ্টভাবে বলে দিয়েছিলেন ঋদ্ধি। তার কিছুক্ষণ পরেই টুইটার ভিডিয়ো পোস্ট করেছিলেন বোরিয়া।

কী বলেছিলেন বোরিয়া?

নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় করা এক পোস্টে নিজেই সেই মেসেজ পাঠানোর কথা স্বীকার করে নিয়েছিলেন বোরিয়া। তবে ঋদ্ধিমানের বিরুদ্ধে তাঁর মেসেজের দিনক্ষণ বদলে তাঁর বিরুদ্ধে অযাচিত আরোপ লাগানোর পালটা অভিযোগ তুলেছিলেন বোরিয়া। 

আরও পড়ুন: Boria Majumdar To Be Banned: ঋদ্ধিকে হুমকি দিয়ে ২ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হচ্ছেন বোরিয়া, ICC-কেও চিঠি দেবে BCCI

তিনি দাবি করেছিলেন, ঋদ্ধিমানকে ১৩ ফেব্রুয়ারি মেসেজ করেছিলেন, যেটা ঋদ্ধি তাঁর ছয়দিন পর ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়ার পর আপলোড করেন। এমনকী মেসেজে ঋদ্ধিকে তিনি কল করার কথা সম্পূর্ণ অস্বীকার করে জানান, ১৩ ফেব্রুয়ারির পরে তিনি ঋদ্ধির সঙ্গে আর কোনওরকম যোগাযোগ করার চেষ্টাও করেননি। ঋদ্ধি স্রেফ সহানুভূতি পাওয়ার জন্যই এই মেসেজ এতদিন পরে আপলোড করেন। ১৩ ফেব্রুয়ারি পূর্ব পরিকল্পিত দিনক্ষণ অনুযায়ী ঋদ্ধি তাঁকে সাক্ষাৎকার দেওয়া তো দূর, তাঁর ফোন পর্যন্ত ধরেননি। সেইজন্যেই তিনি রেগে গিয়েছিলেন। সেইসঙ্গে ঋদ্ধির বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করারও হুমকি দিয়েছিলেন বোরিয়া।

বন্ধ করুন