বাংলা নিউজ > ময়দান > বিরাটদের আছে, আমাদের নেই কেন! নতুন আবদার শ্রীলঙ্কার ক্যাপ্টেনের
টিম শ্রীলঙ্কা (ছবি:গেটি ইমেজ)
টিম শ্রীলঙ্কা (ছবি:গেটি ইমেজ)

বিরাটদের আছে, আমাদের নেই কেন! নতুন আবদার শ্রীলঙ্কার ক্যাপ্টেনের

দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের আগে শ্রীলঙ্কা বোর্ডের কাছে ‘থ্রো ডাউন’ কোচের আবদার করলেন দাসুন শানাকা। 

শ্রীলঙ্কার সীমিত ওভারের অধিনায়ক দাসুন শানাকা জানিয়েছেন যে তিনি জাতীয় দলের টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে অনুরোধ করেছেন, যেন তাদের ‘থ্রো ডাউন’ কোচ দেওয়া হয়। ঠিক যেমন টিম ইন্ডিয়ায় রয়েছেন শ্রীলঙ্কার ‘বাওয়া’ ওরফে নুয়ান সেনেভিরত্নে। দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের আগে এমন ‘থ্রো ডাউন’ কোচ চাইলেন শানাকা । 

দাসুন শ্রীলঙ্কা টিম ম্যানেজমেন্টকে অনুরোধ করেছেন, দু’জন থ্রো-ডাউন স্পেশালিস্ট তাদের লাগবে। একটি বাঁহাতি এবং অন্যটি ডানহাতি হতে হবে। আলাদা কোচ দিয়ে তরুণদের প্রশিক্ষণ দিতে চাইছেন শ্রীলঙ্কার সীমিত ওভারের অধিনায়ক। যাতে দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদের মুখোমুখি হতে কোনও অসুবিধা না হয়। আগামী ২ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার থেকে কলম্বোতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু হচ্ছে। এরপরে শ্রীলঙ্কা এবং দক্ষিণ আফ্রিকা কলম্বোতে ১০, ১২ এবং ১৪ সেপ্টেম্বর তিনটি টি টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভারতের সিরিজের আগে নুয়ানকে ভারতীয় দলে যোগ করিয়েছিলেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তিনি বিশ্বাস করেছিলেন যে মিচেল স্টার্ক একটি সমস্যা হতে চলেছে তিনি নুয়ানকে নিয়োগের জন্য অনুরোধ করেছিলেন এবং তার দলকে বাওয়া থ্রো ডাউনের জন্য প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন। সেই ভাবনা থেকেই বিরাটের পথে হাঁটতে চাইছেন দাসুন শানাকা।

শ্রীলঙ্কার ‘বাওয়া’ ওরফে নুয়ান সেনেভিরত্নে ভারতীয় দলের অনুশীলনে (ছবি: ফেসবুক)
শ্রীলঙ্কার ‘বাওয়া’ ওরফে নুয়ান সেনেভিরত্নে ভারতীয় দলের অনুশীলনে (ছবি: ফেসবুক)

দাশুন বলেন, ‘আমাদের মাত্র তিনজন বোলার আছে যারা ১৪০ কিমি প্রতি ঘণ্টায় গতিতে বল করে। যেহেতু আমরা বাইরে থেকে বোলার আনতে পারি না তাই আমি থ্রো-ডাউন বিশেষজ্ঞদের জন্য অনুরোধ করেছি। বাওয়া তার গতি এবং বাউন্সের কারণে ভারত ব্যবহার করছে যা বিদেশে খেলার সময় খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক যোগ করেছেন, ‘আমাদের এমন একটি দল দরকার যারা অনুশীলন সেশনে ক্রমাগত থ্রো ডাউন করবে। একটি তরুণ দলের দক্ষতা বিকাশের জন্য এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। যদি তরুণ খেলোয়াড়রা তাদের প্রথম এক থেকে দুই বছরের মধ্যে এইরকম প্রশিক্ষণ পেতে পারে তাহলে সেই অভিজ্ঞতা তাদের পুরো ক্যারিয়ার জুড়ে ব্যবহার করা যেতে পারে তা পাঁচ বছর হোক বা দশ বছর।’

বন্ধ করুন