বাংলা নিউজ > ময়দান > বক্সার বাবার ছেলে ভারোত্তোলনে ইতিহাস গড়লেন! সোনা জিতে আবেগে ভাসলেন জেরেমি

বক্সার বাবার ছেলে ভারোত্তোলনে ইতিহাস গড়লেন! সোনা জিতে আবেগে ভাসলেন জেরেমি

বাবার সঙ্গে জেরেমি লালরিনুঙ্গা (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

২০২২ সালের কমনওয়েলথ গেমসে ভারতের ঝুলিতে দ্বিতীয় সোনা এনে দিলেন জেরেমি লালরিনুঙ্গা। মিরাবাই চানুর পরে,জেরেমি ভারোত্তোলনে সকলকে চমকে দিয়েছেন। ভারতের এই তারকা খেলোয়াড় ৬৭ কেজি বিভাগে মোট ৩০০ কেজি তুলেছেন। বক্সিং-এর রিং ছেড়ে মিজোরামের এই ছেলে ভারোত্তোলনে পা রেখে নিজের বাবার স্বপ্ন পূরণ করলেন।

২০২২ সালের কমনওয়েলথ গেমসে ভারতের ঝুলিতে দ্বিতীয় সোনা এনে দিলেন জেরেমি লালরিনুঙ্গা। মিরাবাই চানুর পরে,জেরেমি ভারোত্তোলনে mk। ভারতের এই তারকা খেলোয়াড় ৬৭ কেজি বিভাগে মোট ৩০০ কেজি তুলেছেন। একই সঙ্গে ক্লিন অ্যান্ড জার্কে ১৬০ কেজি তোলেন জেরেমি। তিনি এদিন ৩০০ কেজি ওজন তুলে গেমসের রেকর্ড তৈরি করেছিলেন। তবে বক্সিং-এর রিং ছেড়ে মিজোরামের এই ছেলে ভারোত্তোলনে পা রেখে নিজের বাবার স্বপ্ন পূরণ করলেন।

২০২২ কমনওয়েলথ গেমস-এ চমক দেখালেন ভারতের চ্যাম্পিয়ন বক্সারের ১৯ বছর বয়সী ছেলে। ভারোত্তোলনে পুরুষদের ৬৭ কেজিতে সোনা জিতেছেন জেরেমি লালরিনুঙ্গা। জেরেমি,যুব অলিম্পিক গেমসে সোনা জেতা প্রথম ভারতীয়,বার্মিংহামে মোট ৩০০ কেজি তুলেছিলেন তিনি। জেরেমির গল্প হল বেশ মজার। রিংয়ে বক্সিং করতে শুরু করেছিলেন কিন্তু পরেভারোত্তোলনে পা রেখেছিলেন তিনি। এই গল্পটা বেশ মজার।

আরও পড়ুন… Jeremy Lalrinnunga Wins Gold: গেমস রেকর্ড গড়ে সোনা জিতলেন ভারতের জেরেমি

আসলে জেরেমির বাবা একজন জুনিয়র জাতীয় চ্যাম্পিয়ন বক্সার ছিলেন। জেরেমি এবং তাঁর চার ভাইও তাদের বাবার পদাঙ্ক অনুসরণ করেছিলেন এবং বক্সিং রিংয়ে প্রবেশ করেছিলেন।কিন্তু সেখান থেকে জেরেমিকে কী ভাবে বক্সিং রিং ছেড়ে ভারোত্তোলনে এলেন। কিছুদিন আগে এক সাক্ষাৎকারে জেরেমি বলেছিলেন, আমার গ্রামে একটি অ্যাকাডেমি ছিল,যেখানে কোচ ভারোত্তোলনের প্রশিক্ষণ দিচ্ছিলেন। আমি আমার বন্ধুদের প্রশিক্ষণ দেখেছিলাম এবং ভেবেছিলাম এটা শক্তির খেলা এবং আমি এটাতেই যাব।

আরও পড়ুন… Jeremy Lalrinnunga Wins Gold: গেমস রেকর্ড গড়ে সোনা জিতলেন ভারতের জেরেমি

২০১১ সালে আর্মি ইনস্টিটিউট ট্রায়ালের জন্য নির্বাচিত হওয়ার পর জেরেমির কর্মজীবনে মোড় নেয় এবং এটি জেরেমির পেশাদার ভারোত্তোলন যাত্রার সূচনা করে। এরপরে তিনি ২০১৬ সালে বিশ্ব যুব চ্যাম্পিয়নশিপে ৫৬ কেজি ওজন বিভাগে রুপোর পদক জিতেছিলেন। পরের বছর একই ইভেন্টে আরেকটি রুপো জিতে নেন তিনি। জেরেমি এরপর ২০১৮ সালে জুনিয়র এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ পদক জিতেছিলেন তিনি।জেরেমি সাত বছর বয়সে বক্সিং শুরু করেছিলেন।

আরও পড়ুন… Jeremy Lalrinnunga Wins Gold: গেমস রেকর্ড গড়ে সোনা জিতলেন ভারতের জেরেমি

জেরেমির বাবা ন্যাশানাল বক্সার লালনেইতুঙ্গার মতে,তাঁর স্বপ্ন ছিল আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করা। কিন্তু তাঁর স্বপ্ন পূরণ হয়নি। এই কারণে তিনি চেয়েছিলেন তাঁর ছেলে বক্সার হোক। তবে বক্সার না হলেও, বিশ্ব মঞ্চে বাবার স্বপ্ন পূরণ করলেন জেরেমি। এদিন যখন তিনি সোনা জিতে পোর্ডিয়ামে উঠেছিলেন, যখন দেশেরে পতাকার সঙ্গে ইংল্যান্ডের মাটিতে ভারতের জাতীয় সঙ্গিত বেজে উঠেছিল সেই গল্পটাই যেন ভেসে উঠেছিল।

বন্ধ করুন