বাংলা নিউজ > ময়দান > ভুল করেই কি গ্রেগকে প্রিয় শিক্ষকের তকমা! সৌরভের টুইট ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্ক
সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও গ্রেগ চ্যাপেল (ছবি-গেটি ইমেজ) (Getty Images)

ভুল করেই কি গ্রেগকে প্রিয় শিক্ষকের তকমা! সৌরভের টুইট ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্ক

  • শিক্ষক দিবসে গ্রেগকে শুভেচ্ছা জানিয়ে চাপে পড়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। মহারাজের ভুল ধরে ফেললেন নেটিজেনরা। এরপরেই ঠিক ও ভুল টুইটকে সামনে রেখে সমালোচনার ঝড় উঠতে থাকে। সোশ্যাল মিডিয়াতে দুই টুইটকে সামনে আনা হয়। এরপরেই শুরু হয় বিতর্কের ঝড়।

শিক্ষক দিবসে গ্রেগ চ্যাপেলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে চাপে পড়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। মহারাজের ভুল ধরে ফেললেন নেটিজেনরা। এরপরেই ঠিক ও ভুল টুইটকে সামনে রেখে সমালোচনার ঝড় উঠতে থাকে। সোশ্যাল মিডিয়াতে দুই টুইটকে সামনে আনা হয়। এরপরেই শুরু হয় বিতর্কের ঝড়।

প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় সোমবার শিক্ষক দিবস উপলক্ষে ইতিহাসের উত্থান-পতনের কথা স্মরণ করেছেন। গ্রেগ চ্যাপেল সহ নিজের ক্রিকেট জীবনের কোচদের, শিক্ষক দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। ২০০০ সালে ভারতীয় ক্রিকেটকে নাড়িয়ে দেওয়া ম্যাচ ফিক্সিং কেলেঙ্কারির পরে ভারতীয় ক্রিকেটের ভাগ্য পুনরুজ্জীবিত করার জন্য সৌরভকে কৃতিত্ব দেওয়া হয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৬ বছরের যাত্রায় সৌরভ বেশ কয়েকজন প্রতিষ্ঠিত কোচের অধীনে কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলেন। জন রাইটের সঙ্গে তার একটি চমৎকার ক্রিকেট জীবনের যাত্রা ছিল।

আরও পড়ুন…. রোহিত-দ্রাবিড়কে চোখো চোখা চারটি প্রশ্ন ভাজ্জির, উত্তর দিতে সমস্যা হবে ম্যানেজমেন্টের

অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক গ্রেগ চ্যাপেল ভারতীয় দলের কোচ থাকাকালীন সৌরভ বহু বিতর্ক সামনে এসেছেন। সৌরভ এবং চ্যাপেলের মধ্যে অধিনায়ক-কোচের সম্পর্ক শীঘ্রই তিক্ত হয়ে উঠেছিল, এমনকি তাঁর ফর্ম প্রশ্নের মুখে পড়েছিল। ২০০৫ সালে, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যা শুধুমাত্র অধিনায়ক হিসেবেই নয়, ওয়ানডে দল থেকেও বাদ পড়েছিলেন। ২০০৬ সালের জানুয়ারিতে টেস্ট দল থেকেও বাদ পড়েন ক্রিকেটের মহারাজ।

যদিওতারকা ক্রিকেটা একটি প্রত্যাবর্তন করেন এবং ২০০৬ সালের ডিসেম্বরে টেস্ট দলে এবং ২০০৭ বিশ্বকাপের ঠিক আগে ওয়ানডে দলে ফিরে আসেন। শিক্ষক দিবসের দিনে সৌরভ নিজের টুইটারে লিখেছিলেন, ‘দেবু মিত্র,জন রাইট,আমার প্রিয় গ্যারি কার্স্টেন এবং গ্রেগকে শিক্ষক দিবসের শুভেচ্ছা! জীবনের কিছু মুহূর্ত আছে যা আপনাকে আপনার অতীতকে পুনরুজ্জীবিত করে, এখানে আমার ব্যর্থতা এবং প্রত্যাবর্তনের কিছু মুহূর্ত রয়েছে।’ এরপরে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন…. অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজেও চলবে এক্সপেরিমেন্ট, ভরাডুবির পরে বললেন রোহিত

তবে এরপরেই শুরু হয় বিতর্ক। কারণ এরপরেই সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় উঠতে থাকে। অনেকেই মজা করতে শুরু করেন। আসলে গ্রেগ আর সৌরভের সম্পর্ক সম্বন্ধে সকলেই জানতেন। সেই কারণে শিক্ষক দিবসে চ্যাপেলকে সৌরভের শুভেচ্ছা জানানোর বিষয়টি অনেকেই হজম করতে পারেননি। সোশ্যাল মিডিয়াতে মিমের বন্যা বইতে থাকে। কেউ বলে এটা একটা ভুল, তো কেউ আবার অন্য ভাবে মজা করেছেন। আসলে পরের ও আগের টুইটকে সামনে এনে নেটিজেনরা মজা করতে থাকেন।

বন্ধ করুন