বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘নতুন চিন্তা-ভাবনা আনতে চাই’, সরকারি ভাবে কোচের দায়িত্ব পেয়ে সাফ দাবি লক্ষ্মীর
লক্ষ্মীরতন শুক্লার নাম সরকারি ভাবে ঘোষণা করল সিএবি।

‘নতুন চিন্তা-ভাবনা আনতে চাই’, সরকারি ভাবে কোচের দায়িত্ব পেয়ে সাফ দাবি লক্ষ্মীর

  • ১৯৯৭ সালে বাংলা ক্রিকেট টিমে অভিষেক হয়েছিল লক্ষ্মীর। ২০১৫ সাল পর্যন্ত বাংলার হয়ে তিনি সাফল্যের সঙ্গে খেলে গিয়েছেন। ১৮ বছর বাংলার হয়ে খেলে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ৬২১৭ রান করেন লক্ষ্মী। বাংলাকে নেতৃত্বও দিয়েছেন তিনি। এ বার একেবারে অন্য ভূমিকায় দেখা যাবে লক্ষ্মীকে। কোচ হিসেবে নয়া চ্যালেঞ্জ তাঁর সামনে।

আগে থেকেই জানা ছিল। মঙ্গলবার সরকারী ভাবে বাংলা দলের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হল লক্ষ্মীরতন শুক্লার কাঁধে। অরুণ লালের জায়গায় সিনিয়র দলের কোচ হিসেবে সিএবি বেছে নেয় লক্ষ্মীকে। তাঁর সহকারী হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয় সৌরাশিস লাহিড়ীকে।

মঙ্গলবার সিএবিতে অভিষেক ডালমিয়া, যুগ্মসচিব স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়ে দেন লক্ষ্মীই কোচ হচ্ছেন। দীর্ঘ দিন ধরে বাংলার ক্রিকেটের সঙ্গে যুক্ত লক্ষ্মী। বাংলা দলকে ক্রিকেটার লক্ষ্মী বহু সাফল্য এনে দিয়েছেন। বাংলার অধিনায়কও ছিলেন তিনি। এ বার একেবারে নতুন দায়িত্বে।

আরও পড়ুন: বাবার পথে হাঁটা শুরু করল লক্ষ্মীর ১২ বছরের ছেলে, সই করল মৌড়ি স্পোর্টিং ক্লাবে

কোচ হয়ে লক্ষ্মী বলেন, ‘চেষ্টা করব বাংলাকে সাফল্য এনে দিতে। নতুন ধরনের চিন্তা-ভাবনা আনতে চাই। আর অতীতের দিকে তাকাব না। অধিনায়ক হিসেবে সহজ সরল ভাবে দলকে চালনা করার চেষ্টা করতাম, কোচ হিসাবেও সেটাই করতে চাই। সিএবি, দাদিকে (সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়) ধন্যবাদ।’

আরও পড়ুন: 'আমার পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না', বাংলা কোচের পদ থেকে ইস্তফা অরুণ লালের

১৯৯৭ সালে বাংলা ক্রিকেট টিমে অভিষেক হয়েছিল লক্ষ্মীর। ২০১৫ সাল পর্যন্ত বাংলার হয়ে তিনি সাফল্যের সঙ্গে খেলে গিয়েছেন। ১৮ বছর বাংলার হয়ে খেলে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ৬২১৭ রান করেন লক্ষ্মী। বাংলাকে নেতৃত্বও দিয়েছেন তিনি।

এ ছাড়াও লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে তাঁর সংগ্রহ ২৯৯৭ রান। ক্রিকেট কেরিয়ারে মোট ১৩টি শতরান রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। বল হাতে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ১৪৩টি উইকেট পান তিনি। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তিনি মোট ১৭২টি উইকেট নিয়েছেন।

এখানেই শেষ নয়। জাতীয় দলের জার্সিতেও তিনটি ম্যাচ খেলেছিলেন তিনি। সেই তিনটি একদিনের ম্যাচে তাঁর সংগ্রহ মাত্র ১৮ রান। আর বল হাতে ১ উইকেট পেয়েছিলেন। এর পর আর ভারতীয় দলে সুযোগ পাননি তিনি।

মাঝে রাজনীতিতে যোগ দিয়ে বহু দিন ক্রিকেট থেকে দূরে সরেছিলেন। এখন অবশ্য রাজনীতি ছেড়ে ফের ক্রিকেটে যোগ দিয়েছেন। তবে একেবারে অন্য ভূমিকায়। এর আগে বাংলার জুনিয়র দলের কোচিং করিয়েছেন। এ বার সিনিয়র দলের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হল তাঁকে।

বন্ধ করুন