বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs SA: ‘রোহিত-রাহুলকে সরিয়ে আমাকে খেলানোর কথা বলতে পারি না’, বাস্তবটা জানেন ইশান
ইশান কিষাণ। ছবি: পিটিআই

IND vs SA: ‘রোহিত-রাহুলকে সরিয়ে আমাকে খেলানোর কথা বলতে পারি না’, বাস্তবটা জানেন ইশান

  • মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে সে ভাবে প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারলেও, ভারতীয় দলের জার্সিতে কিন্তু ইশানকে চেনা ছন্দে পাওয়া গিয়েছে। যদিও তিনি জানেন, কেএল রাহুল এবং রোহিত শর্মা দুই প্লেয়ার একসঙ্গে থাকলে, তাঁকে হয়তো জায়গা হারাতে হবে। তবু প্রতি মুহূর্তে নিজের সেরাটা দিয়ে প্রমাণ করতে মরিয়া থাকেন ইশান।

দল জিততে পারেনি ঠিকই, তবে দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে মুগ্ধ করেছেন ইশান কিষাণ। ভারতের হয়ে তার রানই সর্বোচ্চ। ৪৮ বলে ৭৬ রানের অনবদ্য একটি ইনিংস খেলেছেন ইশান। তাঁরএই ইনিংসে ১১টি ৪ এবং ৩টি ছক্কা রয়েছে। তাঁর রানের সৌজন্যেই ২০০ পার করে ভারত। যদিও শেষ রক্ষা হয়নি। ৫ বল বাকি থাকতে ৭ উইকেটে হারতে হয়েছে ভারতকে।

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে সে ভাবে প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারলেও, ভারতীয় দলের জার্সিতে কিন্তু ইশানকে চেনা ছন্দে পাওয়া গিয়েছে। যদিও তিনি জানেন, কেএল রাহুল এবং রোহিত শর্মা দুই প্লেয়ার একসঙ্গে থাকলে, তাঁকে হয়তো জায়গা হারাতে হবে। তবু প্রতি মুহূর্তে নিজের সেরাটা দিয়ে প্রমাণ করতে মরিয়া থাকেন ইশান। তিনি জানেন, কোনও কারণে ব্যর্থ হলে অনেক দূর ছিটকে যেতে হবে।

আরও পড়ুন: ইশান, দীনেশ, পন্ত- T20 WC দলে কার ভাগ্য সহায় হবে? স্পষ্ট জানালেন রবি শাস্ত্রী

আরও পড়ুন: রান তাড়া করে রেকর্ড জয় দঃআফ্রিকার, ভারতের বিশ্বরেকর্ডের সম্ভাবনা জলে

ইশান বৃহস্পতিবার ম্যাচের পর সাংবাদিক সম্মেলনে বলেওছেন, ‘আমি মনে করি, ওরা (রোহিত শর্মা এবং কেএল রাহুল) বিশ্বমানের খেলোয়াড় এবং ওরা যখন দলে থাকবে তখন আমি জায়গা পেতে পারি না। তবে এখানে আমার কাজ হল অনুশীলন সেশনে আমার সেরাটা দেওয়া। আর যখনই আমি সুযোগ পাব, আমাকে নিজেকে প্রমাণ করতে হবে এবং দলের জন্য ভালো কিছু করতে হবে।’

জাতীয় দলের জার্সিতে টানা ভালো খেলার পরেও, ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তাঁর জায়গা পাকা কিনা, সেটাও জানেন না ইশান। কারণ ইশান উইকেটকিপার আবার ওপেনারও। ভারতীয় টিমে এই ২টি জায়গা পূরণের জন্য তাঁর চেয়ে অভিজ্ঞ প্লেয়ারের অভাব নেই। যে কারণে ভারতের প্রাক্তন কোচ রবি শাস্ত্রীও বলেছিলেন, ইশান ভারতীয় কন্ডিশনে ওপেনার হিসাবে বড় দাবীদার হয়ে উঠতে পারেন। তবে ২৩ বছরের যুবক অস্ট্রেলিয়ার পিচের জন্য হয়তো পিছিয়ে পড়বেন। তবে হাল ইশানও হয়তো হাল ছাড়বেন না।

বন্ধ করুন