বাংলা নিউজ > ময়দান > টেস্ট সিরিজ শুরুর আগেই যে চোট পায় তাকে অধিনায়ক নয়: টেস্টে রোহিতের অধিনায়কত্ব প্রসঙ্গে সাবা করিম
রোহিত শর্মা।
রোহিত শর্মা।

টেস্ট সিরিজ শুরুর আগেই যে চোট পায় তাকে অধিনায়ক নয়: টেস্টে রোহিতের অধিনায়কত্ব প্রসঙ্গে সাবা করিম

  • করিমের বক্তব্য, এমন একজনকে কখনওই টেস্ট অধিনায়ক করা উচিত নয় যিনি টেস্ট সিরিজ শুরুর আগেই চোটগ্রস্ত হয়ে যান

শুভব্রত মুখার্জি: দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শুরুর আগেই অনুশীলন করতে গিয়ে চোট পেয়েছিলেন রোহিত শর্মা। ফলে প্রোটিয়াভূমে টেস্টের পাশাপাশি ওয়ানডে সিরিজেও খেলতে পারেননি রোহিত। তার হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট সারিয়ে দেশের মাটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজে ফিরেছেন ভারতের সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটের অধিনায়ক। ইতিমধ্যেই প্রোটিয়া সিরিজে টেস্ট হারের পরে ভারতীয় টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন বিরাট কোহলি। তারপরেই রোহিতকে টেস্ট দলের অধিনায়ক করার দাবি উঠেছে। সেই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে প্রাক্তন জাতীয় নির্বাচক সাবা করিমের বক্তব্য এমন একজনকে কখনওই টেস্ট অধিনায়ক করা উচিত নয় যিনি টেস্ট সিরিজ শুরুর আগেই চোটগ্রস্ত হয়ে যান।

উল্লেখ্য ফেব্রুয়ারি মাসের ৬ তারিখ থেকেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজে মুখোমুখি হবে রোহিতের নেতৃত্বাধীন ভারত। টেস্টে অধিনায়ক হিসেবে কোহলির উত্তরসূরি হিসেবে অনেকেই রোহিতের কথা বলেছেন। তবে প্রাক্তন জাতীয় নির্বাচক সাবা করিম মনে করেন দীর্ঘসময়ের অধিনায়কের কথা চিন্তা করলে টেস্ট সহ তিন ফর্ম্যাটের অধিনায়কত্বের দায়িত্ব রোহিতের হাতে তুলে দেওয়া ঠিক হবে না।

সাবা করিম জানিয়েছেন 'যদি রোহিতকে অধিনায়ক হিসেবে টেস্টে দায়িত্ব দেওয়াও হয় তবে তা খুব স্বল্প সময়ের মতো হবে। ২০২৩ সাল ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। ৫০ ওভারের বিশ্বকাপের পাশাপাশি রয়েছে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ও। এই বিষয়টির উপরে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টেরও নজর দেওয়া উচিত। ও (রোহিত) ওর পারফরম্যান্সের মধ্যে দিয়ে সবার মন জয় করে নিয়েছে। ওর উপস্থিতি, ওয়ার্ক এথিক্স অনবদ্য। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ রোহিতের জন্য কড়া পরীক্ষা ছিল। ও দারুণ পারফরম্যান্স করেছিল সেখানে। তবে রোহিতের ক্ষেত্রে সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ ওর ফিটনেস। অধিনায়কত্ব তো ছেড়েই দিলাম। ওর পক্ষে তিন ফর্ম্যাটে খেলাটাই বড় রিস্ক হয়ে যাবে। ও একাধিকবার চোটগ্রস্ত হয়েছে। ও এখন রিহ্যাব থেকে ফিরছে। ওর ফিটনেসের সঙ্গে যারা জড়িত সেই ফিজিও, ট্রেনার প্রত্যেকের সঙ্গে পরামর্শ করা উচিত। এমন একজনকে কখনওই অধিনায়ক করা উচিত নয় যে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগেই চোট পেয়ে যায়।'

বন্ধ করুন