বাংলা নিউজ > ময়দান > প্লেয়ারদের কী ধরনের পোশাক পরা উচিত, তার উপরেও নাকি নজর রাখতেন অধিনায়ক দ্রাবিড়
রাহুল দ্রাবিড়।
রাহুল দ্রাবিড়।

প্লেয়ারদের কী ধরনের পোশাক পরা উচিত, তার উপরেও নাকি নজর রাখতেন অধিনায়ক দ্রাবিড়

  • সুরেশ রায়না তাঁর বই ‘বিলিভ: হোয়াট লাইফ এন্ড ক্রিকেট টট মি’-তে লিখেছেন, খেলার আগে দ্রাবিড় খুবই সিরিয়াস হয়ে পড়তেন। এবং সেই সময়ে তাঁকে বিরক্ত করার সাহস কারও হত না।

অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড় কেমন ছিলেন? তাঁর কিছু উদাহরণ সুরেশ রায়না তাঁর বই ‘বিলিভ: হোয়াট লাইফ এন্ড ক্রিকেট টট মি’-তে দিয়েছেন। রায়না এই বইতে দু'টি ঘটনার উল্লেখ করেছেন। যার থেকে অধিনায়ক দ্রাবিড়ের খেলার প্রতি সিরিয়াসনেস, তাঁর ভাবনা, তাঁর দর্শন, এই সব কিছুই প্রকাশ পেয়েছে।

সুরেশ রায়না তাঁর বইতে লিখেছেন, খেলার আগে দ্রাবিড় খুবই সিরিয়াস থাকতেন। এবং সেই সময়ে তাঁকে বিরক্ত করার সাহস কারও হত না। সুরেশ রায়নার ব্যাখ্যায়, ম্যাচের আগে নিজের প্রস্তুতির জন্য দ্রাবিড় একেবারে গম্ভীর হয়ে পড়তেন। এমন সময়ও ছিল, যখন দ্রাবিড় প্রাতরাশ করতে আসতেন, তখন তাঁর চোখে মুখে কাঠিন্যের ছাপ থাকত স্পষ্ট। খুবই গম্ভীর হয়ে থাকতেন তিনি। রায়না লিখেছেন, ‘ওই সময়ে আমার মনে হত, ওকে বলি, কিছুটা রিল্যাক্স করতে আর হাসতে। কিন্তু আমি জানতাম, ওটা ওর ম্যাচের আগে প্রস্তুতির সময়। ও তখন সেই জায়গায় থাকত, যেখানে ওকে কেউ বিরক্ত করতে পারত না।’

এর সঙ্গে আরও একটি ঘটনার উল্লেখ করেছেন রায়না। যেখানে তিনি লিখেছেন, ২০০৬ সালে মালয়েশিয়ায় যখন ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে গিয়েছিল ভারত, তখন দ্রাবিড়ের থেকে পোশাক নির্বাচন করা নিয়ে শিক্ষা পেয়েছিলেন রায়না। মালয়েশিয়ায় শপিং করতে গিয়ে রায়না একটা স্টাইলিশ টি-শার্ট নির্বাচন করেছিলেন। যাতে লেখা ছিল, ‘FCUK’। সেই টি-শার্ট রায়নাকে পরে ঘুরতে দেখে দ্রাবিড় বলেছিলেন, ‘তুমি কি জান, তুমি কি পরে ঘুরে বেড়াচ্ছো? তুমি ভারতের ক্রিকেটার। তুমি এ ধরনের লেখা টি-শার্ট পরে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াতে পার না।’ রায়না স্বীকার করে নিয়েছিলেন, দ্রাবিড়ের এই কথা শুনে তিনি খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন। এবং সেই টি-শার্টটি ডাস্টবিনে ফেলে দিয়েছিলেন।

বন্ধ করুন