বাংলা নিউজ > ময়দান > বন্দুক দেখিয়ে নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ করা হয়েছিল, FIR থেকে নাম তুলে নেওয়ায় মুক্তি পাক ক্রিকেটারের
ইয়াসির শাহ। ছবি- টুইটার।
ইয়াসির শাহ। ছবি- টুইটার।

বন্দুক দেখিয়ে নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ করা হয়েছিল, FIR থেকে নাম তুলে নেওয়ায় মুক্তি পাক ক্রিকেটারের

  • ২০২০ সালে বন্দুক দেখিয়ে ১৪ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণ ও ঘটনার ভিডিও করে রাখার মতো গুরুতর অভিযোগে নাম জড়িয়ে গিয়েছিল পাকিস্তানের তারকা ক্রিকেটারের।

২০২০ সালে দায়ের হওয়া ধর্ষণ মামলা থেকে মুক্তি পেয়ে গেলেন পাকিস্তানের তারকা লেগস্পিনার ইয়াসির শাহ। এফআইআর থেকে তারকা ক্রিকেটারের নাম তুলে নিয়েছেন অভিযোগকারিণী। এমনটাই জানানো হয়েছে ইসলামাবাদ পুলিশের তরফে। ভুলবশতই নাকি ইয়াসিরের নাম যোগ করা হয়েছিল এফআইআরে।

২০২০ সালের ডিসেম্বরে ইসলামাবাদের শালিমার থানায় ইয়াসিরের বন্ধু ফারহানউদ্দিনের নামে এক নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়। সেবছর অক্টোবরে ১৪ বছরের এক নাবালিকাকে বন্দুক দেখিয়ে ধর্ষণ করা হয়েছিল বলে অভিযোগ করা হয়ে তাঁর পরিবারের তরফে। সেই সঙ্গে গোটা ঘটনা ভিডিও করে রেখে নির্যাতিতাকে ভয় দেখানোর অভিযোগও আনা হয়। আগাগোড়া এমন অপরাধে ইয়াসিরের মদত ছিল বলেও উল্লেখ করা হয় সেই সময় দায়ের করা এফআইআরে।

পাকিস্তানের দণ্ডবিধির ১৯২-বি ও ১৯২-সি (শিশু পর্ণগ্রাফি) এবং ৩৭৬ (ধর্ষণের সাজা) নং ধারা অনুয়ায়ী ইয়াসিরদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছিল। অবশেষে এমন গুরুতর অভিযোগ থেকে মুক্তি পেলেন পাক ক্রিকেটার।

এমন ঘটনায় নাম জড়িয়ে পড়ার পর থেকে ইয়াসির এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেননি। যদিও পিসিবির তরফে প্রাথমিকভাবে ঘটনা সম্পর্কে পূর্ণ তথ্য সংগ্রহ করার কথা জানানো হয়েছিল। এও জানানো হয়েছিল যে, দোষি প্রমাণিত হলে সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে পারে পাক ক্রিকেট বোর্ড। যদিও ইয়াসির শেষমেশ নির্দোষ প্রমাণিত হন।

বন্ধ করুন