বাংলা নিউজ > ময়দান > রিয়ালের ঘরের মাঠে ড্র করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ চারের লড়াইয়ে এগিয়ে থাকল চেলসিই
চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ চারের প্রথম লেগে মুখোমুখি চেলসি-রিয়াল মাদ্রিদ। ছবি: রয়টার্স
চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ চারের প্রথম লেগে মুখোমুখি চেলসি-রিয়াল মাদ্রিদ। ছবি: রয়টার্স

রিয়ালের ঘরের মাঠে ড্র করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ চারের লড়াইয়ে এগিয়ে থাকল চেলসিই

  • চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে ঘরের মাঠে চেলসির সঙ্গে ১-১ ড্র করে কিছুটা চাপেই থাকল জিনেদিন জিদানের রিয়াল মাদ্রিদ।

ইতিহাস গড়তে পারত দু'দলই। কিন্তু কৃতিত্বটা ভাগাভাগি করে নিল রিয়াল মাদ্রিদ আর চেলসি। চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে এর আগে কখনও মুখোমুখি হয়নি রিয়াল আর চেলসি। তবে প্রথম দেখায় জিতল না কেউই। সেমির প্রথম লেগে ১-১ ড্র করেই সন্তুষ্ট থাকতে হল চেলসি-রিয়ালকে। তবে রিয়ালের ঘরের মাঠে ম্যাচ ড্র হওয়ায় কিছুটা হলেও এগিয়ে থাকল চেলসিই।

ম্যাচের শুরুতেই চেলসি বলে দিয়েছিল, তারা গোল পেতেই এসেছে মাদ্রিদে। প্রথম গোলটা মিনিট দশেকের মধ্যেই পেয়ে যেতো তারা। আসাধারণ একটা আক্রমণ থেকে ক্রিস্টিয়ান পুলিসিচের হেড গিয়ে পড়ে টিমো ভের্নারের কাছে। মাত্র ছয় গজ দূর থেকে জার্মান স্ট্রাইকারের নেওয়া শট সেভ করেন থিবো কুর্তোয়া। তবে এই মিসের জন্য কুর্তোয়ার সাফল্যের চেয়ে ভের্নারের ব্যর্থতাই বেশি।

তবে বেশিক্ষণ আফসোস করতে হয়নি চেলসিকে। ম্যাচের ১৪ মিনিটেই গোল পেয়ে যায় তারা। ব্যাকে তিনজন ডিফেন্ডার নিয়ে শুরু থেকেই চাপে পড়ে গিয়েছিল রিয়াল। যার ফল, ক্রিস্টিয়ান পুলিসিচ ১-০ এগিয়ে দেয় চেলসিকে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সর্বোচ্চ গোল করা আমেরিকান এখন তিনি। ম্যাচের প্রথম ২০ মিনিট রিয়ালের উপর দিয়ে এক প্রকার ঝড়ই বয়ে গিয়েছে। কিন্তু ম্যাচের ২৯ মিনিটে সমতা ফেরান করিম বেঞ্জেমা। চ্যাম্পিয়নস লিগে বেঞ্জেমার গোল এখন ৭১টি। সামনে শুধু লেভানডস্কি, লিওনেল মেসি আর ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো।

তবে গোল খাওয়ার পরও চেলসি ফের লড়াইয়ে ফেরে। কিন্তু গোলের সুযোগ তারা কাজে লাগাতে পারেনি। অঝোর বৃষ্টির মধ্যেই একে অপরকে টক্কর দিচ্ছিল চেলসি-রিয়াল। তবে ১-১ ড্র করে কিছুটা চাপে থাকল জিনেদিন জিদানের দলই। তবে চেলসির কোচ টমাস টুখেলের আফসোস, প্রথমার্ধের সুযোগগুলো কাজে লাগাতে পারলে তারা ফাইনালে ওঠার বিষয়ে অনেকটাই এগিয়ে থাকতে পারত।

বন্ধ করুন