বাংলা নিউজ > ময়দান > মাঠের মধ্যে কার্তিককে নিয়ে খোঁচা, দর্শকদের সঙ্গে হাতাহাতি, দলের বাইরে মুরলি বিজয়
দর্শকদের সঙ্গে হাতাহাতি করে বিতর্কে মুরলি বিজয়

মাঠের মধ্যে কার্তিককে নিয়ে খোঁচা, দর্শকদের সঙ্গে হাতাহাতি, দলের বাইরে মুরলি বিজয়

  • এক দর্শকের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন মুরলি বিজয়। সঙ্গে সঙ্গে ছুটে আসেন নিরাপত্তা কর্মীরা। তাঁদের হস্তক্ষেপে ঘটনা বেশি দূর গড়ায়নি। তবে এরপরে প্রবল বিদ্রূপের মুখে পড়েন মুরলি বিজয়। তাঁর আচরণের নিন্দা করেছেন অনেকেই।

তামিলনাড়ু প্রিমিয়ার লিগে ভারতের প্রাক্তন তারকা ব্যাটার মুরলি বিজয় প্যান্থার্সের বিরুদ্ধে ম্যাচে একাদশে ছিলেন না। তবে তিনি এদিন রুবি ট্রিচি ওয়ারিয়র্সের বিকল্প ফিল্ডার হিসেবে সেই ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন। ম্যাচ চলাকালীন মুরলি বিজয় বাউন্ডারিতে ফিল্ডিং করছিলেন। সেখানে দীনেশ কার্তিকের নাম নিয়ে ভক্তরা তাঁকে হয়রানি করতে শুরু করেন। সেই সময়ে অনেকেই‘ডিকে’,‘ডিকে’ বলে চিৎকার করতে থাকেন। সেই সময়ে বাউন্ডারি লাইনে ফিল্ডিং করছিলেন মুরলি বিজয়।

মুরলি বিজয় কিছুক্ষণ শান্ত ছিলেন এবং পরে তিনি ভক্তদের এটি করতে মানা করেন। কিন্তু ম্যাচ দেখতে আসা সমর্থকেরা এরপরেও সেটি করতে থাকেন। কিছুক্ষণ পরেই নিজের মেজাজ হারিয়ে ফেলেন মুরলি বিজয়। এরপরেই তিনি স্ট্যান্ডে চলে যান এবং ভক্তদের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। এই ঘটনার ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রমশ ভাইরাল হতে থাকে।

আরও পড়ুন… ভিডিয়ো: ম্যাচ চলাকালীন মাঠে দর্শকের সঙ্গে ধস্তাধস্তি, ঝামেলায় জড়ালেন মুরলি বিজয়

আসলে সেদিন দর্শকদের ‘কটূক্তি’ প্রথমে হালকা ভাবেই নিয়েছিলেন মুরলি বিজয়। সেই সময়ে তিনি তাঁদের হাতজোড় করে চুপ করতে বলেছিলেন। কিন্তু দর্শকরা সেই সময়ে চিৎকার থামাননি। সেই ভিডিয়োও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়েছিল। কিছুক্ষণ এমন চলার পর শেষ পর্যন্ত মেজাজ হারান মুরলি বিজয়। ইলেক্ট্রনিক্স বিল বোর্ড টপকে তিনি চলে যান গ্যালারিতে। দর্শকদের সঙ্গে বচসায় জড়ান।

আরও পড়ুন… ভিডিয়ো: ম্যাচ চলাকালীন মাঠে দর্শকের সঙ্গে ধস্তাধস্তি, ঝামেলায় জড়ালেন মুরলি বিজয়

এক দর্শকের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন মুরলি বিজয়। সঙ্গে সঙ্গে ছুটে আসেন নিরাপত্তা কর্মীরা। তাঁদের হস্তক্ষেপে ঘটনা বেশি দূর গড়ায়নি। তবে এরপরে প্রবল বিদ্রূপের মুখে পড়েন মুরলি বিজয়। তাঁর আচরণের নিন্দা করেছেন অনেকেই। গত ২৪ জুলাই নেল্লাই রয়্যাল কিংসের বিরুদ্ধে এই ম্যাচের পর গ্রুপ পর্বের শেষ দু’ম্যাচে দলের প্রথম একাদশে জায়গা হয়নি অভিজ্ঞ ব্যাটারের। যদিও চারটি ম্যাচে তিনি করেছিলেন যথাক্রমে ৮,৩৪, ৬১ এবং ১২১ রান। মুরলি বিজয়ের দল অবশ্য প্রতিযোগিতার নকআউট পর্বে পৌঁছতে পারেনি।

বন্ধ করুন