বাংলা নিউজ > ময়দান > স্বজনপোষণের অভিযোগ- মইন খানের ছেলের পাশে দাঁড়ালেন ইনজামাম উল হকের ভাইপো
মইন খান ও তাঁর ছেলে আজম খান (ছবি: গুগল)
মইন খান ও তাঁর ছেলে আজম খান (ছবি: গুগল)

স্বজনপোষণের অভিযোগ- মইন খানের ছেলের পাশে দাঁড়ালেন ইনজামাম উল হকের ভাইপো

  • আজম খান অতিরিক্ত ওজন হওয়া সত্ত্বেও, তিনি নাকি তার 'বিখ্যাত' বাবার কারণেই পাকিস্তান দলে জায়গা পেয়েছেন বলে নিন্দুকদের অভিযোগ। এই প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন পাকিস্তান দলের বা হাতি ওপেনার ইমাম-উল-হক।

শুভব্রত মুখার্জি:  প্রতিষ্ঠিত বাবা-মায়ের সন্তান হওয়া যে কতটা মানসিক চাপ সৃষ্টি করতে পারে তার একাধিক উদাহরণ আমরা পেয়েছি। সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্র যেমন খেলাধুলা, রাজনীতি,  শিল্প,  সংস্কৃতি,  সিনেমা সবক্ষেত্রেই এই উদাহরণ ভুরিভুরি। সচিন তেন্ডুলকরের ছেলে অর্জুন, অমিতাভ বচ্চনের ছেলে অভিষেক, রাজীব গান্ধীর ছেলে রাহুল গান্ধী, প্রকাশ পাড়ুকোনের মেয়ে দীপিকা পাড়ুকোন সবাইকে এই পর্যায়টার মধ্যে দিয়ে তাদের ক্যারিয়ারে কোন না কোন সময় যেতে হয়েছে বা এখনও যেতে হচ্ছে। সদ্য পাকিস্তান ক্রিকেটেও এমন ঘটনার সাক্ষী থাকছে। দেশের একদা কিংবদন্তি উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মইন খান। তাঁর ছেলে আজম খান সম্প্রতি জায়গা পেয়েছেন পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দলে। 

প্রসঙ্গত আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং ইংল্যান্ড সফরের জন্য পাকিস্তান তাদের যে টি২০ দল ঘোষণা করেছে তাতে আজম খানের জায়গা হয়েছে। আজম খান অতিরিক্ত ওজন হওয়া সত্ত্বেও, তিনি নাকি তার 'বিখ্যাত' বাবার কারণেই পাকিস্তান দলে জায়গা পেয়েছেন বলে নিন্দুকদের অভিযোগ। এই প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন পাকিস্তান দলের বা হাতি ওপেনার ইমাম-উল-হক। যিনি ঘটনাচক্রে কিংবদন্তি ক্রিকেটার ইনজামাম-উল-হকের ভাইপো‌। ২০১৭ সালে যখন ইমাম পাকিস্তান দলে জায়গা পেয়েছিলেন তখন তার বিরুদ্ধেও স্বজনপোষণের অভিযোগ শুনতে হয়েছিল। সেই সময় ইনজামাম ঘটনাচক্রে জাতীয় নির্বাচক ও ছিলেন। 

এক ইউটিউব চ্যানেলে এই বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে ইমাম উল হক বলেন 'আমি জানি প্রনিঃসন্দেহে চুর মানুষ আজম খানের খেলা দেখেছেন। আমি সবাইকে অনুরোধ করব স্বজনপোষণের বিষয়টি তুলে ওকে বারবার ট্রোল করবেন না। ওকে সমর্থন করুন। ও খুব ট্যালেন্টেড ক্রিকেটার। পিএসএলে যেভাবে ও পারফরম্যান্স করেছে তা এককথায় অসাধারণ। আমরা যদি ওকে সমর্থন করি ও খুব ভাল একজন টি২০ ক্রিকেটার হতে পারে। আমরা কেউ ভাল পারফরম্যান্স করলে তাকে তৎক্ষণাৎ মাথায় তুলি। আবার কেউ খারাপ পারফরম্যান্স করলেই তাকে সমালোচনায় বিদ্ধ করি। আজম খান যদি পাকিস্তানের হয়ে কয়েকটা ম্যাচে ব্যর্থও হয় তবু আমি আপনাদের সবাইকে ধৈর্য ধরতে বলছি। এটা আমি আপনাদের শুধু আজম খানের জন্য বলছি না। প্রত্যেকটি নতুন ক্রিকেটারের জন্য বলছি। যখন কেউ ফেল করেন তখন তাকে আরও বেশি করে আমাদেরকে সমর্থন করা উচিত।'

বন্ধ করুন