বাংলা নিউজ > ময়দান > অলিম্পিক্সও কি দর্শক শূন্য স্টেডিয়ামেই হবে?
করোনা আক্রান্ত অলিম্পিক্স।
করোনা আক্রান্ত অলিম্পিক্স।

অলিম্পিক্সও কি দর্শক শূন্য স্টেডিয়ামেই হবে?

  • করোনা সংক্রমণের জেরে অলিম্পিক্সকে ঘিরে নতুন করে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে। এই বছর ২৩ জুলাই থেকে অলিম্পিক্স শুরু হওয়ার কথা। কিন্তু জাপানে করোনার চতুর্থ ঢেউ আছড়ে পড়ার পর এত খারাপ পরিস্থিতি, আয়োজকরা এখন দ্বিধাগ্রস্ত।

যে রকম দর্শকশূন্য ভাবে বিভিন্ন টুর্নামেন্ট করা হচ্ছে, সেরকম ভাবেই কি অলিম্পিক্সেও দর্শক প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না? জাপানের করোনা পরিস্থিতি সেই প্রশ্নই তুলে দিয়েছে। বিদেশি দর্শকদের আসার বিষয়ে আগেই নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। এ বার স্থানীয় দর্শকদের উপরও কি নিষেধাজ্ঞা জারি হবে?

করোনা সংক্রমণের জেরে অলিম্পিক্সকে ঘিরে নতুন করে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে। এই করোনাভাইরাসের কারণেই এক বছর পিছিয়ে দেওয়া হয় টোকিও অলিম্পিক্স। এই বছর ২৩ জুলাই থেকে অলিম্পিক্স শুরু হওয়ার কথা। কিন্তু জাপানে করোনার চতুর্থ ঢেউ আছড়ে পড়ার পর এত খারাপ পরিস্থিতি, আয়োজকরা এখন দ্বিধাগ্রস্ত। আদৌ কি অলিম্পিক্স আয়োজন সম্ভব হবে? আর যদি অলিম্পিক্স আয়োজন করা হয়, সে ক্ষেত্রে দর্শক প্রবেশের অনুমতি মিলবে কিনা, তা নিয়ে যথেষ্ঠ সংশয় দেখা দিয়েছে।

প্রথমে আশা করা হয়েছিল, এপ্রিল মাসেই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সেই সঙ্গে টিকিট বিক্রি নিয়েও কোনও একটা সিদ্ধান্তে উপনীত হবে আয়োজক কমিটি। কিন্তু সূত্রের খবর, এখনই কোনও সিদ্ধান্ত নয়। অলিম্পিক্স শুরুর এক মাস আগে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। সে ক্ষেত্রে টিকিট বিক্রি আরও পিছিয়ে যাবে। অনেকেই আবার মনে করছেন, করোনা সংক্রমণ জাপানে খুব বাজে ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। যে কারণে হয়তো অলিম্পিক্সেও দর্শক  প্রবেশের অনুমতি নাও মিলতে পারে।

আয়োজকদের তরফে জানানো হয়েছে, করোনা পরিস্থিতির উপর নজর রেখেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তাদের দাবি, ‘আমরা এই নিয়ে সব সময় আইওসি (আন্তর্জাতিক অলিম্পিক্স কমিটি) এবং আইপিসি-র (আন্তর্জাতিক প্যারালিম্পিক্স কমিটি) সঙ্গে আলোচনা করছি। এবং সকলের মতামত নিয়ে সেই মতোই এগোব।’

বন্ধ করুন